ঢাকা ০৬:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

প্লাস্টিক সার্জারি করায় অভিনেত্রীর মৃত্যু

বিনোদন প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:২৮:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৫০০ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সৌন্দর্যর জন্য মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে হলো অভিনেত্রীর। ঘটনাটি ঘটেছে আর্জেন্টিনায়। প্লাস্টিক সার্জারি করানোর পর শারীরিক নানা জটিলতার কারণে ৪৩ বছর বয়সে মারা গেছেন দেশটির অভিনেত্রী সিলভিনা লুনা।

প্রায় এক যুগ ধরে জটিলতায় ভুগছিলেন এই তারকা। ২০১১ সালে তার প্লাস্টিক সার্জারি হয়। এর সঙ্গে নানাবিধ সমস্যা দেখা দেয়। নষ্ট হয়ে যায় কিডনি। এ অবস্থায় তার আইনজীবী ফার্নান্দো বুরনান্দো মৃত্যুর খবরটি গতকাল (১ সেপ্টেম্বর) জানিয়েছে। খবর ডেইলি মেইল ও এনডিটিভি।

আইনজীবী বলেছেন, ‘তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা তা সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন। এর ফলে তার মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়।’

সিলভিনা লুনা আর্জেন্টিনার পরিচিত অভিনেত্রী, মডেল ও টিভি উপস্থাপিকা হিসেবে। তার বন্ধু ও অভিনেতা গুস্তাভো কোন্টি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দিয়েছেন এ খবরে।

তাতে লিখেছেন, ‘আমরা সবসময় তোমাকে ভালোবাসি। আমরা সবাই এই একই পথে ধাবিত। হৃদয়ের বন্ধনে আমরা একসঙ্গে বাঁধা থাকব। কারণ, তোমাকে আমার পরিবার পছন্দ করেছিল।’

বুয়েন্স আয়ার্স টাইমসের মতে, কসমেটিক সার্জারি করার সময় তার শরীরে বিষাক্ত পদার্থ প্রবেশ করে। ফলে দ্রুত শরীরে জটিলতা দেখা দেয়। এ জন্য কসমেটিক সার্জন আনিবল লোটোকির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

লুনার নিতম্বে পলিমিথাইল মেথাক্রাইলেট নামের সিন্থেটিক পলিমার দিয়ে ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল। এতেই মূল সমস্যা হয়। জটিলতার কারণে অভিনেত্রীর কিডনি প্রতিস্থাপনও করতে হয়েছিল। সপ্তাহে তিনবার ডায়ালাইসিস করাতে হত তাকে। তবে শেষ অবধি চলে গেলেন পরপারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

প্লাস্টিক সার্জারি করায় অভিনেত্রীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৪:২৮:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সৌন্দর্যর জন্য মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে হলো অভিনেত্রীর। ঘটনাটি ঘটেছে আর্জেন্টিনায়। প্লাস্টিক সার্জারি করানোর পর শারীরিক নানা জটিলতার কারণে ৪৩ বছর বয়সে মারা গেছেন দেশটির অভিনেত্রী সিলভিনা লুনা।

প্রায় এক যুগ ধরে জটিলতায় ভুগছিলেন এই তারকা। ২০১১ সালে তার প্লাস্টিক সার্জারি হয়। এর সঙ্গে নানাবিধ সমস্যা দেখা দেয়। নষ্ট হয়ে যায় কিডনি। এ অবস্থায় তার আইনজীবী ফার্নান্দো বুরনান্দো মৃত্যুর খবরটি গতকাল (১ সেপ্টেম্বর) জানিয়েছে। খবর ডেইলি মেইল ও এনডিটিভি।

আইনজীবী বলেছেন, ‘তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা তা সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন। এর ফলে তার মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়।’

সিলভিনা লুনা আর্জেন্টিনার পরিচিত অভিনেত্রী, মডেল ও টিভি উপস্থাপিকা হিসেবে। তার বন্ধু ও অভিনেতা গুস্তাভো কোন্টি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দিয়েছেন এ খবরে।

তাতে লিখেছেন, ‘আমরা সবসময় তোমাকে ভালোবাসি। আমরা সবাই এই একই পথে ধাবিত। হৃদয়ের বন্ধনে আমরা একসঙ্গে বাঁধা থাকব। কারণ, তোমাকে আমার পরিবার পছন্দ করেছিল।’

বুয়েন্স আয়ার্স টাইমসের মতে, কসমেটিক সার্জারি করার সময় তার শরীরে বিষাক্ত পদার্থ প্রবেশ করে। ফলে দ্রুত শরীরে জটিলতা দেখা দেয়। এ জন্য কসমেটিক সার্জন আনিবল লোটোকির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

লুনার নিতম্বে পলিমিথাইল মেথাক্রাইলেট নামের সিন্থেটিক পলিমার দিয়ে ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল। এতেই মূল সমস্যা হয়। জটিলতার কারণে অভিনেত্রীর কিডনি প্রতিস্থাপনও করতে হয়েছিল। সপ্তাহে তিনবার ডায়ালাইসিস করাতে হত তাকে। তবে শেষ অবধি চলে গেলেন পরপারে।