০৪:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হলেন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত

সিঙ্গপুরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন দেশটির সাবেক উপপ্রধানমন্ত্রী থারমান শানমুগারত্মম (৬৬)। শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থী তান কিন লিয়ান(৭৫) এবং এনজি কোক সং (৭৫)-কে পরাজিত করে জিতেছেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় ভোট গণনা শেষে সিঙ্গাপুর নির্বাচন কমিশনের রিটার্নিং কর্মকর্তা তান মেঙ দুই এক ঘোষণায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ৭০ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট পেয়ে এই বিজয় নিশ্চিত করেছেন শানমুগারত্নম।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত দেশটির সাবেক উপপ্রধানমন্ত্রী থারমান শানমুগারাতনাম। এই অর্থনীতিবিদ সিঙ্গাপুর পিপলস অ্যাকশন পার্টির (পিএপি) সাবেক নেতা।

সিঙ্গাপুরে মন্ত্রিপরিষদ শাসিত সরকার প্রচলিত। দেশটির প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ৬ বছর। প্রেসিডেন্টের পদ সেখানে অনেকটাই আলঙ্করিক। তবে অন্যান্য মন্ত্রিপরিষদ শাসিত সরকারের প্রেসিডেন্টের তুলনায় সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব খানিকটা বেশি।

সিঙ্গাপুরের নির্বাচন কমিশন শুক্রবার রাতে জানিয়েছে, ৭০ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট গণনা শেষে ৬৬ বছর বয়সী রাজনীতিক ও অর্থনীতিবিদ থারমান শানমুগারাতনাম জয়ী হয়েছেন। থারমান সিঙ্গাপুরের নবম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা তান মেং দুই বলেন, ‘আমি থারমান শানমুগারাতনামকে সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট পদে বিজয়ী ঘোষণা করছি।’

সিঙ্গাপুরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট হালিমা ইয়াকুবের স্থলাভিষিক্ত হবেন থারমান। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে হালিমা ইয়াকুব ক্ষমতায় এসেছিলেন। তিনি সিঙ্গাপুরের অষ্টম ও প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।

সিঙ্গাপুরে প্রেসিডেন্ট পদ অনেকটা আলংকারিক। প্রেসিডেন্ট আনুষ্ঠানিকভাবে নগররাষ্ট্রটির পুঞ্জীভূত আর্থিক রিজার্ভ দেখভাল করেন, সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে ভেটো দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন এবং দুর্নীতিবিরোধী তদন্ত অনুমোদন করেন। তবে এই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য বেশ কঠিন কিছু শর্ত রয়েছে। সংবিধান মতে, প্রেসিডেন্ট হচ্ছে নির্দলীয় একটি পদ।

এই নগররাষ্ট্রের সরকার পরিচালিত হয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে। বতমানে পিএপির নেতা লি সিয়েন লুং সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী। এই দল ১৯৫৯ সাল থেকে টানা সিঙ্গাপুরের শাসন ক্ষমতায় রয়েছে।

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে থারমান শানমুগারাতনামের সঙ্গে আরও দুজন প্রার্থী ভোটের লড়াইয়ে নেমেছিলেন। তারা হলেন দেশটির সার্বভৌম সম্পদ তহবিল জিআইসির সাবেক বিনিয়োগ কর্মকর্তা এনজি কোক সং (৭৫) এবং বিমাপ্রতিষ্ঠান এটিইউসি ইনকামের সাবেক প্রধান নির্বাহী তান কিন লিয়ান (৭৫)। জিআইসি সিঙ্গাপুরের বৈদেশিক রিজার্ভের ব্যবস্থাপনা করে থাকে।

সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হলেন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত

আপডেট : ০৬:৪৭:৩২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সিঙ্গপুরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন দেশটির সাবেক উপপ্রধানমন্ত্রী থারমান শানমুগারত্মম (৬৬)। শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থী তান কিন লিয়ান(৭৫) এবং এনজি কোক সং (৭৫)-কে পরাজিত করে জিতেছেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় ভোট গণনা শেষে সিঙ্গাপুর নির্বাচন কমিশনের রিটার্নিং কর্মকর্তা তান মেঙ দুই এক ঘোষণায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ৭০ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট পেয়ে এই বিজয় নিশ্চিত করেছেন শানমুগারত্নম।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত দেশটির সাবেক উপপ্রধানমন্ত্রী থারমান শানমুগারাতনাম। এই অর্থনীতিবিদ সিঙ্গাপুর পিপলস অ্যাকশন পার্টির (পিএপি) সাবেক নেতা।

সিঙ্গাপুরে মন্ত্রিপরিষদ শাসিত সরকার প্রচলিত। দেশটির প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ৬ বছর। প্রেসিডেন্টের পদ সেখানে অনেকটাই আলঙ্করিক। তবে অন্যান্য মন্ত্রিপরিষদ শাসিত সরকারের প্রেসিডেন্টের তুলনায় সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব খানিকটা বেশি।

সিঙ্গাপুরের নির্বাচন কমিশন শুক্রবার রাতে জানিয়েছে, ৭০ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট গণনা শেষে ৬৬ বছর বয়সী রাজনীতিক ও অর্থনীতিবিদ থারমান শানমুগারাতনাম জয়ী হয়েছেন। থারমান সিঙ্গাপুরের নবম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা তান মেং দুই বলেন, ‘আমি থারমান শানমুগারাতনামকে সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট পদে বিজয়ী ঘোষণা করছি।’

সিঙ্গাপুরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট হালিমা ইয়াকুবের স্থলাভিষিক্ত হবেন থারমান। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে হালিমা ইয়াকুব ক্ষমতায় এসেছিলেন। তিনি সিঙ্গাপুরের অষ্টম ও প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।

সিঙ্গাপুরে প্রেসিডেন্ট পদ অনেকটা আলংকারিক। প্রেসিডেন্ট আনুষ্ঠানিকভাবে নগররাষ্ট্রটির পুঞ্জীভূত আর্থিক রিজার্ভ দেখভাল করেন, সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে ভেটো দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন এবং দুর্নীতিবিরোধী তদন্ত অনুমোদন করেন। তবে এই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য বেশ কঠিন কিছু শর্ত রয়েছে। সংবিধান মতে, প্রেসিডেন্ট হচ্ছে নির্দলীয় একটি পদ।

এই নগররাষ্ট্রের সরকার পরিচালিত হয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে। বতমানে পিএপির নেতা লি সিয়েন লুং সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী। এই দল ১৯৫৯ সাল থেকে টানা সিঙ্গাপুরের শাসন ক্ষমতায় রয়েছে।

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে থারমান শানমুগারাতনামের সঙ্গে আরও দুজন প্রার্থী ভোটের লড়াইয়ে নেমেছিলেন। তারা হলেন দেশটির সার্বভৌম সম্পদ তহবিল জিআইসির সাবেক বিনিয়োগ কর্মকর্তা এনজি কোক সং (৭৫) এবং বিমাপ্রতিষ্ঠান এটিইউসি ইনকামের সাবেক প্রধান নির্বাহী তান কিন লিয়ান (৭৫)। জিআইসি সিঙ্গাপুরের বৈদেশিক রিজার্ভের ব্যবস্থাপনা করে থাকে।