০৪:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাইজারে ফরাসি ঘাঁটির বাইরে বিক্ষোভরত হাজারো মানুষ

রাষ্ট্রদূত ও সেনা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানী নিয়ামির ফরাসি সামরিক ঘাঁটির বাইরে বিক্ষোভ করেছে নাইজারের হাজার হাজার মানুষ।

শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) প্রতীকী কফিন নিয়ে নিয়ামির ফরাসি ঘাঁটির বাইরে জড়ো হয় হাজার হাজার মানুষ। ২৬ জুলাইয়ের পর অভ্যুত্থানকারীদের সমর্থনে দেশটিতে এটাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় জনসমাবেশ।

এর আগে শুক্রবার বন্দি নাইজারীয় প্রেসিডেন্ট বাজোমের সাথে ফোনালাপ করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাখোঁ। পরে নাইজারে সেনা বা দূত প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে কেবল প্রেসিডেন্ট বাজোমের মতামতকেই গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

একইসাথে সেনাঘাঁটিতে জোরপূর্বক প্রবেশের যেকোনো চেষ্টা শক্ত হাতে দমন করা হবে বলেও জানায় প্যারিস। একসময়ের উপনিবেশ নাইজারে এখনও মোতায়েন আছে দেড় হাজারের বেশি ফরাসি সেনা। গেল সপ্তাহে অভ্যুত্থানকারী সামরিক সরকার দেশটি থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেও মানেনি ফ্রান্স।

নাইজারে ফরাসি ঘাঁটির বাইরে বিক্ষোভরত হাজারো মানুষ

আপডেট : ০৭:০১:৩৭ পূর্বাহ্ন, রোববার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

রাষ্ট্রদূত ও সেনা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানী নিয়ামির ফরাসি সামরিক ঘাঁটির বাইরে বিক্ষোভ করেছে নাইজারের হাজার হাজার মানুষ।

শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) প্রতীকী কফিন নিয়ে নিয়ামির ফরাসি ঘাঁটির বাইরে জড়ো হয় হাজার হাজার মানুষ। ২৬ জুলাইয়ের পর অভ্যুত্থানকারীদের সমর্থনে দেশটিতে এটাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় জনসমাবেশ।

এর আগে শুক্রবার বন্দি নাইজারীয় প্রেসিডেন্ট বাজোমের সাথে ফোনালাপ করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাখোঁ। পরে নাইজারে সেনা বা দূত প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে কেবল প্রেসিডেন্ট বাজোমের মতামতকেই গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

একইসাথে সেনাঘাঁটিতে জোরপূর্বক প্রবেশের যেকোনো চেষ্টা শক্ত হাতে দমন করা হবে বলেও জানায় প্যারিস। একসময়ের উপনিবেশ নাইজারে এখনও মোতায়েন আছে দেড় হাজারের বেশি ফরাসি সেনা। গেল সপ্তাহে অভ্যুত্থানকারী সামরিক সরকার দেশটি থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেও মানেনি ফ্রান্স।