ঢাকা ০৪:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ভয়াবহ সংঘর্ষে উত্তাল ইরাকের কিরকুক, কারফিউ জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৮২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কুর্দি ও আরবদের মধ্যে চলমান ভয়াবহ সংঘর্ষে উত্তাল ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় শহর কিরকুক। তিনজন নিহতের পাশপাশি আহত অন্তত ১৬ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরটিতে কারফিউ জারি করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শিয়া আল সুদানি।

কুর্দিস্তান ডেমোক্র্যাটিক পার্টি- কেডিপিকে তাদের পুরাতন কার্যালয় ভবন ফিরিয়ে দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত।

২০১৭ সাল থেকে ভবনটি নিজেদের দখলে রাখলেও সম্প্রতি তা ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইরাকের ফেডারেল সরকার। তবে এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে রাস্তায় নামে স্থানীয় আরব ও তুর্কী জনগোষ্ঠীর মানুষ। সাবেক কেডিপি হেড কোয়ার্টারের বাইরে জড়ো হয় কুর্দিরাও। মুখোমুখি এ অবস্থান এক পর্যায়ে রূপ নেয় রক্তক্ষয়ী সংঘাতে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ছুড়লেও পুলিশ কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে পারেনি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এ অবস্থায় সন্ধ্যায় কারফিউ জারি করতে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী শিয়া আল সুদানি। বিবৃতিতে শহরটির অধিবাসীদের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আহ্বান জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ভয়াবহ সংঘর্ষে উত্তাল ইরাকের কিরকুক, কারফিউ জারি

আপডেট সময় : ০৬:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কুর্দি ও আরবদের মধ্যে চলমান ভয়াবহ সংঘর্ষে উত্তাল ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় শহর কিরকুক। তিনজন নিহতের পাশপাশি আহত অন্তত ১৬ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরটিতে কারফিউ জারি করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শিয়া আল সুদানি।

কুর্দিস্তান ডেমোক্র্যাটিক পার্টি- কেডিপিকে তাদের পুরাতন কার্যালয় ভবন ফিরিয়ে দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত।

২০১৭ সাল থেকে ভবনটি নিজেদের দখলে রাখলেও সম্প্রতি তা ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইরাকের ফেডারেল সরকার। তবে এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে রাস্তায় নামে স্থানীয় আরব ও তুর্কী জনগোষ্ঠীর মানুষ। সাবেক কেডিপি হেড কোয়ার্টারের বাইরে জড়ো হয় কুর্দিরাও। মুখোমুখি এ অবস্থান এক পর্যায়ে রূপ নেয় রক্তক্ষয়ী সংঘাতে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ছুড়লেও পুলিশ কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে পারেনি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এ অবস্থায় সন্ধ্যায় কারফিউ জারি করতে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী শিয়া আল সুদানি। বিবৃতিতে শহরটির অধিবাসীদের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আহ্বান জানান তিনি।