ঢাকা ১১:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দুই নারী সাংবাদিককে কারাদণ্ড দিল ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:৩৮:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৭৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ইরানে দুই নারী সাংবাদিককে ষড়যন্ত্রমূলক কার্যকলাপের অভিযোগে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। প্রথমে তাঁদের তিন বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। সেই সাজা স্থগিত রেখে এক মাস করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, যে দুই সাংবাদিককে সাজা দেওয়া হয়েছে তাঁরা হলেন— নেগিন বাঘেরি এবং এলনাজ মোহাম্মদী। আদেশ অনুযায়ী মোট সাজার চল্লিশ ভাগের এক ভাগ অর্থাৎ এক মাসেরও কম সময় জেলে থাকতে হবে তাঁদের। স্থানীয় গণমাধ্যমকে নেগিন ও এলনাজের আইনজীবী এ কথা জানিয়েছেন।

আইনজীবী আরও জানিয়েছেন, তাঁর মক্কেলদের বাকি সাজা পাঁচ বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে তাঁদের পেশাদার নৈতিকতার প্রশিক্ষণ নিতে হবে এবং দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। এ সাজার বিরুদ্ধে আপিলের সুযোগ রয়েছে কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সাংবাদিক এলনাজ মোহাম্মদীর বোন এলাহেহ স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, ইরানে পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া মাহসা আমিনিকে নিয়ে প্রতিবেদন করায় এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে তাঁদের।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে হিজাবনীতি লঙ্ঘনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ার পর পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু হয় কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির। এ ঘটনা ঘিরে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয় ইরানে। বিক্ষোভ ঠেকাতে দমন-পীড়ন চালায় দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। ইরানজুড়ে মৃত্যু হয় ৫ শতাধিক মানুষের। আটক করা হয় কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

দুই নারী সাংবাদিককে কারাদণ্ড দিল ইরান

আপডেট সময় : ০৬:৩৮:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ইরানে দুই নারী সাংবাদিককে ষড়যন্ত্রমূলক কার্যকলাপের অভিযোগে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। প্রথমে তাঁদের তিন বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। সেই সাজা স্থগিত রেখে এক মাস করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, যে দুই সাংবাদিককে সাজা দেওয়া হয়েছে তাঁরা হলেন— নেগিন বাঘেরি এবং এলনাজ মোহাম্মদী। আদেশ অনুযায়ী মোট সাজার চল্লিশ ভাগের এক ভাগ অর্থাৎ এক মাসেরও কম সময় জেলে থাকতে হবে তাঁদের। স্থানীয় গণমাধ্যমকে নেগিন ও এলনাজের আইনজীবী এ কথা জানিয়েছেন।

আইনজীবী আরও জানিয়েছেন, তাঁর মক্কেলদের বাকি সাজা পাঁচ বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে তাঁদের পেশাদার নৈতিকতার প্রশিক্ষণ নিতে হবে এবং দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। এ সাজার বিরুদ্ধে আপিলের সুযোগ রয়েছে কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সাংবাদিক এলনাজ মোহাম্মদীর বোন এলাহেহ স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, ইরানে পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া মাহসা আমিনিকে নিয়ে প্রতিবেদন করায় এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে তাঁদের।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে হিজাবনীতি লঙ্ঘনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ার পর পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু হয় কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির। এ ঘটনা ঘিরে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয় ইরানে। বিক্ষোভ ঠেকাতে দমন-পীড়ন চালায় দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। ইরানজুড়ে মৃত্যু হয় ৫ শতাধিক মানুষের। আটক করা হয় কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীকে।