ঢাকা ০৬:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পটুয়াখালীতে করলা চাষে বাম্পার ফলন

পটুয়াখালী সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৭:২৩:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৫১ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পটুয়াখালী জেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের কৃষকরা নতুন পদ্ধতিতে উন্নত জাতের করলা আবাদ করে ভালো ফলন পেয়েছেন। আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, মাচা তৈরি করে চাষ ও পরিবেশ বান্ধব সারের ব্যবহারের ফলে এই সাফল্য পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। করলা চাষের এই পদ্ধতি দেশজুড়ে ছড়িয়ে দেয়া গেলে অন্যান্য সবজি চাষে আরও সাফল্য আসবে বলে মনে করেন তারা।

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নে এ বছর করলার বাম্পার ফলন হয়েছে। শুধু করলা নয় পাশাপাশি অন্যান্য লতা জাতীয় সবজি আবাদেও ভালো ফলন পেয়েছেন কৃষকরা।

এই এলাকার কৃষকরা লবনাক্ততা থেকে বাঁচাতে মাটি থেকে কিছুটা উঁচুতে মাচা তৈরী করে, তাতে করলার আবাদ করেছেন। ফলে লবনাক্ততার সমস্যা কাটানোর পাশাপাশি বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট জলাবদ্ধতা থেকেও তাদের মুক্তি মিলেছে। এছাড়া, কৃষকরা ফসলে পোকা মাকড়ের হাত থেকে রক্ষা পেতে ব্যবহার করছেন জৈব বালাইনাশক।

কৃষকদের কৃষি সংক্রান্ত নতুন নতুন প্রযুক্তির বিষয়ে আগ্রহ বাড়ছে জানিয়ে সরেজমিন গবেষণা বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন মাঠ পর্যায়ে এ সংক্রান্ত তথ্য ও পরামর্শ প্রদানে কাজ করছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট।

কৃষিতে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহারের ফলে পটুয়াখালীসহ দেশজুড়ে সবজি উৎপাদনে বড় ধরনের একটি অগ্রগতি ঘটেছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহা পরিচালক দেবাশীষ সরকার।

নীলগঞ্জ ইউনিয়নের এই সফলতা ছড়িয়ে দিতে পারলে দক্ষিনাঞ্চলের কৃষকরা ধান এবং ডাল আবাদের পাশাপাশি সবজি চাষেও সফলতা অর্জন করবে বলে মনে করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

পটুয়াখালীতে করলা চাষে বাম্পার ফলন

আপডেট সময় : ০৭:২৩:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পটুয়াখালী জেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের কৃষকরা নতুন পদ্ধতিতে উন্নত জাতের করলা আবাদ করে ভালো ফলন পেয়েছেন। আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, মাচা তৈরি করে চাষ ও পরিবেশ বান্ধব সারের ব্যবহারের ফলে এই সাফল্য পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন কৃষকরা। করলা চাষের এই পদ্ধতি দেশজুড়ে ছড়িয়ে দেয়া গেলে অন্যান্য সবজি চাষে আরও সাফল্য আসবে বলে মনে করেন তারা।

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নে এ বছর করলার বাম্পার ফলন হয়েছে। শুধু করলা নয় পাশাপাশি অন্যান্য লতা জাতীয় সবজি আবাদেও ভালো ফলন পেয়েছেন কৃষকরা।

এই এলাকার কৃষকরা লবনাক্ততা থেকে বাঁচাতে মাটি থেকে কিছুটা উঁচুতে মাচা তৈরী করে, তাতে করলার আবাদ করেছেন। ফলে লবনাক্ততার সমস্যা কাটানোর পাশাপাশি বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট জলাবদ্ধতা থেকেও তাদের মুক্তি মিলেছে। এছাড়া, কৃষকরা ফসলে পোকা মাকড়ের হাত থেকে রক্ষা পেতে ব্যবহার করছেন জৈব বালাইনাশক।

কৃষকদের কৃষি সংক্রান্ত নতুন নতুন প্রযুক্তির বিষয়ে আগ্রহ বাড়ছে জানিয়ে সরেজমিন গবেষণা বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন মাঠ পর্যায়ে এ সংক্রান্ত তথ্য ও পরামর্শ প্রদানে কাজ করছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট।

কৃষিতে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহারের ফলে পটুয়াখালীসহ দেশজুড়ে সবজি উৎপাদনে বড় ধরনের একটি অগ্রগতি ঘটেছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহা পরিচালক দেবাশীষ সরকার।

নীলগঞ্জ ইউনিয়নের এই সফলতা ছড়িয়ে দিতে পারলে দক্ষিনাঞ্চলের কৃষকরা ধান এবং ডাল আবাদের পাশাপাশি সবজি চাষেও সফলতা অর্জন করবে বলে মনে করেন তিনি।