০৫:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মঙ্গলবার মাঠে নামছে শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান

  • ক্রীড়া ডেস্ক
  • আপডেট : ০৪:৫৩:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ১৩০ দেখেছেন

এশিয়া কাপের সুপার ফোর নিশ্চিতের লক্ষ্যে ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। এ ম্যাচ জিতলেই সুপার নিশ্চিত করবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। অপরদিকে, বড় ব্যবধানে ম্যাচ জিতলেই সুপার ফোরে খেলার সুযোগ পাবে আফগানিস্তান। পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

জয় দিয়ে এবারের এশিয়া কাপ শুরু করে শ্রীলঙ্কা। বোলারদের দুর্দান্ত নৈপুণ্যে বাংলাদেশকে ৫ উইকেটে হারায় লঙ্কানরা। প্রথমে ব্যাট করা বাংলাদেশকে ১৬৪ রানে গুটিয়ে দেয় শ্রীলঙ্কার বোলাররা। পেসার মাথিশা পাথিরানা ৪টি উইকেট নেন।

১৬৫ রানের টার্গেটে শুরুতে চাপে পড়লেও সাদিরা সামারাবিক্রমা ও চারিথ আসালঙ্কার জুটিতে ৩৯তম ওভারেই জয়ের স্বাদ পায় শ্রীলঙ্কা। সামারাবিক্রমা ৫৪ ও আসালঙ্কা অপরাজিত ৬২ রান করেন।

অন্যদিকে, সুপার ফোরে খেলতে হলে বড় জয়ের স্বাদ নিতে হবে আফগানিস্তানকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে ৮৯ রানে হেরেছে দলটি। ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিং তিন বিভাগেই ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে আফগানরা। ব্যর্থতাকে পেছনে ফেলে ঘুড়ে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা আফগান অধিনায়ক হাশমতউল্লাহ শাহিদির কন্ঠে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচকে ভুলে গিয়ে নতুন করে শুরু করতে হবে আমাদের। জয় পেতে হলে তিন বিভাগে একত্রে জ্বলে উঠতে হবে দলকে। শ্রীলঙ্কা কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে নিজেদের সেরাটা দিয়ে জয়ের জন্যই মাঠে নামবো আমরা।’

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত ১৩টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কা। জয় পেয়েছে ৯টিতে। এই ভেন্যুতে অন্তত দশ ম্যাচ খেলা সফরকারী দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জয় শ্রীলঙ্কারই।

এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ১০ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। এরমধ্যে ৬টিতে জিতেছে লঙ্কানরা এবং ৩টিতে জয় আছে আফগানিস্তানের। ১টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।

মঙ্গলবার মাঠে নামছে শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান

আপডেট : ০৪:৫৩:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

এশিয়া কাপের সুপার ফোর নিশ্চিতের লক্ষ্যে ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। এ ম্যাচ জিতলেই সুপার নিশ্চিত করবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। অপরদিকে, বড় ব্যবধানে ম্যাচ জিতলেই সুপার ফোরে খেলার সুযোগ পাবে আফগানিস্তান। পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

জয় দিয়ে এবারের এশিয়া কাপ শুরু করে শ্রীলঙ্কা। বোলারদের দুর্দান্ত নৈপুণ্যে বাংলাদেশকে ৫ উইকেটে হারায় লঙ্কানরা। প্রথমে ব্যাট করা বাংলাদেশকে ১৬৪ রানে গুটিয়ে দেয় শ্রীলঙ্কার বোলাররা। পেসার মাথিশা পাথিরানা ৪টি উইকেট নেন।

১৬৫ রানের টার্গেটে শুরুতে চাপে পড়লেও সাদিরা সামারাবিক্রমা ও চারিথ আসালঙ্কার জুটিতে ৩৯তম ওভারেই জয়ের স্বাদ পায় শ্রীলঙ্কা। সামারাবিক্রমা ৫৪ ও আসালঙ্কা অপরাজিত ৬২ রান করেন।

অন্যদিকে, সুপার ফোরে খেলতে হলে বড় জয়ের স্বাদ নিতে হবে আফগানিস্তানকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে ৮৯ রানে হেরেছে দলটি। ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিং তিন বিভাগেই ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে আফগানরা। ব্যর্থতাকে পেছনে ফেলে ঘুড়ে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা আফগান অধিনায়ক হাশমতউল্লাহ শাহিদির কন্ঠে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচকে ভুলে গিয়ে নতুন করে শুরু করতে হবে আমাদের। জয় পেতে হলে তিন বিভাগে একত্রে জ্বলে উঠতে হবে দলকে। শ্রীলঙ্কা কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে নিজেদের সেরাটা দিয়ে জয়ের জন্যই মাঠে নামবো আমরা।’

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত ১৩টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কা। জয় পেয়েছে ৯টিতে। এই ভেন্যুতে অন্তত দশ ম্যাচ খেলা সফরকারী দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জয় শ্রীলঙ্কারই।

এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ১০ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। এরমধ্যে ৬টিতে জিতেছে লঙ্কানরা এবং ৩টিতে জয় আছে আফগানিস্তানের। ১টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।