ঢাকা ০৪:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রেলওয়েতে প্রায় ২০ হাজার শূন্যপদ রয়েছে : রেলমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:৪০:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৫২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, বাংলাদেশ রেলওয়েতে বর্তমানে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে প্রায় ২০ হাজার শূন্যপদ রয়েছে। তবে, গত নয় মাসে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দুই হাজার ৮৮০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে আওয়ামী লীগের সাংসদ এম আব্দুল লতিফের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে রেলমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

জনবল সংকট দূর করার লক্ষ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আশা করা যাচ্ছে, দ্রুত জনবল সংকট নিরসন হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ে আন্তনগর রেলগুলোর সেবার মান বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গত পাঁচ বছরে ১৩০টি নতুন ব্রডগেজ কোচ, ২৫৮টি মিটারগেজ কোচ, ৩০টি মিটারগেজ এবং ২৫টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভ রেল বহরে যুক্ত করা হয়েছে।’

রেলমন্ত্রী বলেন, ‘যাত্রীদের ট্রেনে আরোহণ ও অবতরণের সুবিধার্থে প্ল্যাটফর্মের উচ্চতা বাড়ানোর কার্যক্রম চলছে। প্রতিবন্ধীদের জন্য স্টেশনগুলোতে হুইলচেয়ার ও র‍্যাম্প রয়েছে। বিনাটিকিটের যাত্রীরা যাতে স্টেশন বা ট্রেনে প্রবেশ করতে না পারেন সেজন্য বড় স্টেশনগুলোতে ফেন্সিং নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনের সৌন্দর্যবর্ধন কার্যক্রম শেষ করা হয়েছে।’

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী সব জেলা স্টেশনগুলো পর্যায়ক্রমে রি-মডেলিং করা হবে। নারীদের জন্য আলাদা কাউন্টার, কোচ সংরক্ষণ ও আলাদা টয়লেট স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া ট্রেনের অভ্যন্তরে মানসম্মত খাবার সরবরাহ নিশ্চিত করার পশাপাশি ট্রেনে যাত্রীদের অনবোর্ড সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। এতে আরামদায়ক ও নিরাপদ হচ্ছে যাত্রীদের ভ্রমণ।’

নিউজটি শেয়ার করুন

রেলওয়েতে প্রায় ২০ হাজার শূন্যপদ রয়েছে : রেলমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৪:৪০:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, বাংলাদেশ রেলওয়েতে বর্তমানে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে প্রায় ২০ হাজার শূন্যপদ রয়েছে। তবে, গত নয় মাসে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দুই হাজার ৮৮০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে আওয়ামী লীগের সাংসদ এম আব্দুল লতিফের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে রেলমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

জনবল সংকট দূর করার লক্ষ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আশা করা যাচ্ছে, দ্রুত জনবল সংকট নিরসন হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ে আন্তনগর রেলগুলোর সেবার মান বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গত পাঁচ বছরে ১৩০টি নতুন ব্রডগেজ কোচ, ২৫৮টি মিটারগেজ কোচ, ৩০টি মিটারগেজ এবং ২৫টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভ রেল বহরে যুক্ত করা হয়েছে।’

রেলমন্ত্রী বলেন, ‘যাত্রীদের ট্রেনে আরোহণ ও অবতরণের সুবিধার্থে প্ল্যাটফর্মের উচ্চতা বাড়ানোর কার্যক্রম চলছে। প্রতিবন্ধীদের জন্য স্টেশনগুলোতে হুইলচেয়ার ও র‍্যাম্প রয়েছে। বিনাটিকিটের যাত্রীরা যাতে স্টেশন বা ট্রেনে প্রবেশ করতে না পারেন সেজন্য বড় স্টেশনগুলোতে ফেন্সিং নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনের সৌন্দর্যবর্ধন কার্যক্রম শেষ করা হয়েছে।’

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী সব জেলা স্টেশনগুলো পর্যায়ক্রমে রি-মডেলিং করা হবে। নারীদের জন্য আলাদা কাউন্টার, কোচ সংরক্ষণ ও আলাদা টয়লেট স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া ট্রেনের অভ্যন্তরে মানসম্মত খাবার সরবরাহ নিশ্চিত করার পশাপাশি ট্রেনে যাত্রীদের অনবোর্ড সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। এতে আরামদায়ক ও নিরাপদ হচ্ছে যাত্রীদের ভ্রমণ।’