১০:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর চায় আমেরিকা

বাংলাদেশের সঙ্গে সামরিক ও বেসামরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বাড়াতে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র। আজ ঢাকায় বাংলাদেশ-আমেরিকার নবম নিরাপত্তা সংলাপ দু’দেশের পাস্পরিক সহযোগিতার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনায় আমেরিকা মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর প্রতিষ্ঠায় জোর দিয়েছে। আর বাংলাদেশ র‌্যাব কর্মকর্তাদের ওপর দেয়া আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে অনুরোধ করেছে। বৈঠক শেষে এসব কথা জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ দমন, মানবাধিকার ও শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সহযোগিতা নিয়ে নিয়মিত আলোচনার ফোরাম ‘সিকিউরিটি ডায়ালগ’ বা ‘নিরাপত্তা সংলাপ’। মঙ্গলবার রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয় দু’দেশের বেসামরিক নিরাপত্তা বিষয়ে নবম সংলাপ। এতে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক খন্দকার মাসুদুল আলম। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন দেশটির রাজনৈতিক সামরিক বিষয়ক দপ্তরের উপ সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিরা রেজনিক।

দিনব্যাপী এ বৈঠকে দুর্যোগের সময় সামরিক সহায়তা, সাইবার নিরাপত্তা, মানবাধিকারসহ দুই দেশের বহুমাত্রিক বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন জানান, যুক্তরাষ্ট্র উন্মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর দেখতে চায়। আর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে র‌্যাবের কয়েকজন কর্মকর্তার ওপর দেয়া নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পররাষ্ট্র সচিব জানান, ভারতে জি টুয়েন্টি সম্মেলনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে ৮ই সেপ্টেম্বর দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে তিস্তা নদীর পানি বন্টন নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।

মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর চায় আমেরিকা

আপডেট : ০৩:২০:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বাংলাদেশের সঙ্গে সামরিক ও বেসামরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বাড়াতে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র। আজ ঢাকায় বাংলাদেশ-আমেরিকার নবম নিরাপত্তা সংলাপ দু’দেশের পাস্পরিক সহযোগিতার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনায় আমেরিকা মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর প্রতিষ্ঠায় জোর দিয়েছে। আর বাংলাদেশ র‌্যাব কর্মকর্তাদের ওপর দেয়া আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে অনুরোধ করেছে। বৈঠক শেষে এসব কথা জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ দমন, মানবাধিকার ও শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সহযোগিতা নিয়ে নিয়মিত আলোচনার ফোরাম ‘সিকিউরিটি ডায়ালগ’ বা ‘নিরাপত্তা সংলাপ’। মঙ্গলবার রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয় দু’দেশের বেসামরিক নিরাপত্তা বিষয়ে নবম সংলাপ। এতে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক খন্দকার মাসুদুল আলম। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন দেশটির রাজনৈতিক সামরিক বিষয়ক দপ্তরের উপ সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিরা রেজনিক।

দিনব্যাপী এ বৈঠকে দুর্যোগের সময় সামরিক সহায়তা, সাইবার নিরাপত্তা, মানবাধিকারসহ দুই দেশের বহুমাত্রিক বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন জানান, যুক্তরাষ্ট্র উন্মুক্ত ও নিরাপদ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগর দেখতে চায়। আর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে র‌্যাবের কয়েকজন কর্মকর্তার ওপর দেয়া নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পররাষ্ট্র সচিব জানান, ভারতে জি টুয়েন্টি সম্মেলনে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে ৮ই সেপ্টেম্বর দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে তিস্তা নদীর পানি বন্টন নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।