ঢাকা ০৮:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৩:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৭৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার (০৬ সেপ্টেম্বর) বেলা তিনটার দিকে মৃত্যু হয়েছে তার। মৃত্যুকালে ৭৮ বছর বয়স হয়েছিল সাবেক এ প্রতিমন্ত্রীর।

রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এবাদুর রহমান চৌধুরী। তার গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার গাঙকুল গ্রামে। মৃত্যুকালে স্ত্রী ও চার মেয়ে রেখে গেছেন তিনি।

এদিন রাতে এশার নামাজের পর রাজধানীর লালমাটিয়া সি ব্লক মসজিদে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। আর বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) তার গ্রামের বাড়িতে মরদেহ দাফন করা হবে।

এবাদুর রহমান চৌধুরীর মৃত্যুর বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন তার স্বজন যুক্তরাজ্যপ্রবাসী সাংবাদিক মুনজের আহমদ চৌধুরী। তিনি জানান, এবাদুর রহমান চৌধুরী কিছু দিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। আজ মাগরিবের পর লালমাটিয়ার সি-ব্লকের জামে মসজিদে প্রথম জানাজা এবং বৃহস্পতিবার সকালে মৌলভীবাজার জেলা সদরের কেন্দ্রীয় শাহী ঈদগাহে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বেলা ১১টায় বড়লেখা উপজেলা সদরে অবস্থিত পাথারিয়া-ছোটলেখা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে তৃতীয় জানাজা হবে। তারপর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে তাকে।

প্রসঙ্গত, এবাদুর রহমান চৌধুরী একজন খ্যাতনামা আইনজীবী ছিলেন। রাজনৈতিক জীবনে একসময় ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পরে তিনি জাতীয় পার্টি ও বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত হন। তিনি মৌলভীবাজার-১ আসন থেকে চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া ২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের আমলে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। এরপর ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পরাজিত হন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী আর নেই

আপডেট সময় : ০৪:৪৩:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার (০৬ সেপ্টেম্বর) বেলা তিনটার দিকে মৃত্যু হয়েছে তার। মৃত্যুকালে ৭৮ বছর বয়স হয়েছিল সাবেক এ প্রতিমন্ত্রীর।

রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এবাদুর রহমান চৌধুরী। তার গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার গাঙকুল গ্রামে। মৃত্যুকালে স্ত্রী ও চার মেয়ে রেখে গেছেন তিনি।

এদিন রাতে এশার নামাজের পর রাজধানীর লালমাটিয়া সি ব্লক মসজিদে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। আর বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) তার গ্রামের বাড়িতে মরদেহ দাফন করা হবে।

এবাদুর রহমান চৌধুরীর মৃত্যুর বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন তার স্বজন যুক্তরাজ্যপ্রবাসী সাংবাদিক মুনজের আহমদ চৌধুরী। তিনি জানান, এবাদুর রহমান চৌধুরী কিছু দিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। আজ মাগরিবের পর লালমাটিয়ার সি-ব্লকের জামে মসজিদে প্রথম জানাজা এবং বৃহস্পতিবার সকালে মৌলভীবাজার জেলা সদরের কেন্দ্রীয় শাহী ঈদগাহে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বেলা ১১টায় বড়লেখা উপজেলা সদরে অবস্থিত পাথারিয়া-ছোটলেখা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে তৃতীয় জানাজা হবে। তারপর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে তাকে।

প্রসঙ্গত, এবাদুর রহমান চৌধুরী একজন খ্যাতনামা আইনজীবী ছিলেন। রাজনৈতিক জীবনে একসময় ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পরে তিনি জাতীয় পার্টি ও বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত হন। তিনি মৌলভীবাজার-১ আসন থেকে চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া ২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের আমলে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। এরপর ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পরাজিত হন তিনি।