০৯:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবারও আবেদন

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে আবারও সরকারের কাছে আবেদন করেছে তার পরিবার। খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার এ বিষয়ে অনুমতি চেয়ে গত মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন দিয়েছেন।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান। এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার জানান, আবেদন করার বিষয়টি তিনি শুনেছেন।

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, লিভার ও কিডনি সমস্যা আরও জটিল হওয়ায় খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা নিয়ে তার চিকিৎসকেরা শঙ্কিত। নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে গত ৯ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি হন খালেদা জিয়া।

এক মাস ধরে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন। নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে গত মাসের ৯ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে।

বৃহস্পতিবার রাতে খালেদা জিয়াকে দেখতে হাসপাতালে যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি প্রায় এক ঘণ্টা ছিলেন সেখানে।

এদিকে খালেদা জিয়ার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শ্বাশুড়ির সেবার জন্য আগামী সপ্তাহে খালেদা জিয়ার ছোট পুত্রবধূ শর্মিলা রহমান ঢাকায় আসবেন।

এরই মধ্যে ৫৮২ জন বিশিষ্ট নাগরিক খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা করার ব্যবস্থা করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক নেতারাও অনুরূপ আহ্বান জানিয়েছেন।

খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবারও আবেদন

আপডেট : ১০:৩৮:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে আবারও সরকারের কাছে আবেদন করেছে তার পরিবার। খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার এ বিষয়ে অনুমতি চেয়ে গত মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন দিয়েছেন।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান। এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার জানান, আবেদন করার বিষয়টি তিনি শুনেছেন।

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, লিভার ও কিডনি সমস্যা আরও জটিল হওয়ায় খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা নিয়ে তার চিকিৎসকেরা শঙ্কিত। নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে গত ৯ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি হন খালেদা জিয়া।

এক মাস ধরে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন। নানা শারীরিক জটিলতা নিয়ে গত মাসের ৯ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে।

বৃহস্পতিবার রাতে খালেদা জিয়াকে দেখতে হাসপাতালে যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি প্রায় এক ঘণ্টা ছিলেন সেখানে।

এদিকে খালেদা জিয়ার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শ্বাশুড়ির সেবার জন্য আগামী সপ্তাহে খালেদা জিয়ার ছোট পুত্রবধূ শর্মিলা রহমান ঢাকায় আসবেন।

এরই মধ্যে ৫৮২ জন বিশিষ্ট নাগরিক খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা করার ব্যবস্থা করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক নেতারাও অনুরূপ আহ্বান জানিয়েছেন।