ঢাকা ০৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পারমাণবিক অস্ত্রবাহী সাবমেরিন নামালো উত্তর কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৮০ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কৌশলগত পারমাণবিক হামলা চালাতে সক্ষম সাবমেরিন তৈরি করেছে উত্তর কোরিয়া। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। উত্তর কোরিয়ার প্রথম অপারেশনাল “কৌশলগত পারমাণবিক সাবমেরিন” এটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং এশিয়ান প্রতিদ্বন্দ্বীদের মোকাবিলায় দীর্ষদিন ধরেই এ ধরনের সাবমেরিন চালুর চেষ্টা করছিল দেশটি।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বের নামানুসারে হিরো কিম কুন ওকে নামকরণ করা হয়েছে। বুধবার সাবমেরিনটি উন্মুক্ত করা হয়। এটি পানির নিচে থেকে কৌশলগত পারমাণবিক হামলা চালাতে সক্ষম।

তবে ডুবোজাহাজটি কতগুলি ক্ষেপণাস্ত্র বহন করতে পারে এবং এর সক্ষমতা সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণা দেওয়া হয়নি।

সাবমেরিন উদ্বোধন শেষে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন বলেন, নৌবাহিনীর জন্য “একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করেছে”।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার পরও উত্তর কোরিয়া সাম্প্রতিক বছরগুলিতে বেশ কয়েকটি অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটি সামরিক বাহিনীকে আধুনিকীকরণের জন্য জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। গত মাসে তারা পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম সামুদ্রিক ড্রোনের সফল পরীক্ষা চালিয়েছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

পারমাণবিক অস্ত্রবাহী সাবমেরিন নামালো উত্তর কোরিয়া

আপডেট সময় : ০৬:০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কৌশলগত পারমাণবিক হামলা চালাতে সক্ষম সাবমেরিন তৈরি করেছে উত্তর কোরিয়া। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। উত্তর কোরিয়ার প্রথম অপারেশনাল “কৌশলগত পারমাণবিক সাবমেরিন” এটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং এশিয়ান প্রতিদ্বন্দ্বীদের মোকাবিলায় দীর্ষদিন ধরেই এ ধরনের সাবমেরিন চালুর চেষ্টা করছিল দেশটি।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বের নামানুসারে হিরো কিম কুন ওকে নামকরণ করা হয়েছে। বুধবার সাবমেরিনটি উন্মুক্ত করা হয়। এটি পানির নিচে থেকে কৌশলগত পারমাণবিক হামলা চালাতে সক্ষম।

তবে ডুবোজাহাজটি কতগুলি ক্ষেপণাস্ত্র বহন করতে পারে এবং এর সক্ষমতা সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণা দেওয়া হয়নি।

সাবমেরিন উদ্বোধন শেষে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন বলেন, নৌবাহিনীর জন্য “একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করেছে”।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার পরও উত্তর কোরিয়া সাম্প্রতিক বছরগুলিতে বেশ কয়েকটি অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। দেশটি সামরিক বাহিনীকে আধুনিকীকরণের জন্য জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। গত মাসে তারা পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম সামুদ্রিক ড্রোনের সফল পরীক্ষা চালিয়েছিল।