ঢাকা ১২:০৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

যা কিছু গুরুত্ব পাচ্ছে এবারের জি-২০ সম্মেলনে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৭০ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

এবারের জি-টুয়েন্টির শীর্ষ সম্মেলনে গুরুত্ব পেতে যাচ্ছে টেকসই উন্নয়ন। আলোচনায় থাকছে বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তায় ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার প্রভাব প্রসঙ্গ। বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস বলছে, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় অর্থায়ন, নবায়নযোগ্য জ্বালানির মতো বিষয়ও থাকছে আলোচনার তালিকায়।
যুদ্ধ, খাদ্য সংকট, জলবায়ু পরিবর্তন, অর্থনৈতিক অস্থিরতাসহ ভূ-রাজনৈতিক নানামুখী সংকট মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে বিশ্ব। এসব সংকটের মধ্যেই আগামীকাল শনিবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে শুরু হতে যাচ্ছে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন। এবারের শ্লোগান—এক বিশ্ব, এক পরিবার, এক ভবিষ্যৎ।

সম্মেলনে মূলত ৬টি এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা হবে। যার মধ্যে রয়েছে বহুপাক্ষিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে আর্থিক সহায়তা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করা। থাকছে বিশ্বব্যাপী ঋণ কাঠামো সংস্কার, ঋণ ব্যবস্থাপনায় স্থায়িত্ব এবং ন্যায্যতা নিশ্চিত প্রসঙ্গ। এ ছাড়াও পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, সব ক্ষেত্রে নারীর ক্ষমতায়ন ইস্যুতে আলোচনা হবে এবারের সম্মেলনে।

জি-২০ সম্মেলনের ৬টি এজেন্ডা হলো—জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় অর্থায়ন, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, উন্নত প্রযুক্তির ডিজিটাল অবকাঠামো নির্মাণ, একুশ শতকের চাহিদা মেটাতে বহুমাত্রিক প্রতিষ্ঠান ও নারী নেতৃত্বাধীন উন্নয়ন। এবারের এই শীর্ষ সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় অর্থায়ন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানির গুরুত্ব তুলে ধরতে চায় আয়োজক দেশ ভারত।

এ ছাড়াও ইউক্রেন, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, মিসরসহ উন্নয়নশীল দেশের ঋণ সমস্যা সমাধান, ক্রিপ্টোকারেন্সি নীতিমালা তৈরি এবং খাদ্য ও জ্বালানি নিরাপত্তার ক্ষেত্রে ভূরাজনৈতিক অনিশ্চয়তার প্রভাব নিয়েও আলোচনা হবে জি-২০ সম্মেলনে।

নিউজটি শেয়ার করুন

যা কিছু গুরুত্ব পাচ্ছে এবারের জি-২০ সম্মেলনে

আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

এবারের জি-টুয়েন্টির শীর্ষ সম্মেলনে গুরুত্ব পেতে যাচ্ছে টেকসই উন্নয়ন। আলোচনায় থাকছে বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তায় ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার প্রভাব প্রসঙ্গ। বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস বলছে, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় অর্থায়ন, নবায়নযোগ্য জ্বালানির মতো বিষয়ও থাকছে আলোচনার তালিকায়।
যুদ্ধ, খাদ্য সংকট, জলবায়ু পরিবর্তন, অর্থনৈতিক অস্থিরতাসহ ভূ-রাজনৈতিক নানামুখী সংকট মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে বিশ্ব। এসব সংকটের মধ্যেই আগামীকাল শনিবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে শুরু হতে যাচ্ছে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন। এবারের শ্লোগান—এক বিশ্ব, এক পরিবার, এক ভবিষ্যৎ।

সম্মেলনে মূলত ৬টি এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা হবে। যার মধ্যে রয়েছে বহুপাক্ষিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে আর্থিক সহায়তা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করা। থাকছে বিশ্বব্যাপী ঋণ কাঠামো সংস্কার, ঋণ ব্যবস্থাপনায় স্থায়িত্ব এবং ন্যায্যতা নিশ্চিত প্রসঙ্গ। এ ছাড়াও পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, সব ক্ষেত্রে নারীর ক্ষমতায়ন ইস্যুতে আলোচনা হবে এবারের সম্মেলনে।

জি-২০ সম্মেলনের ৬টি এজেন্ডা হলো—জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় অর্থায়ন, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, উন্নত প্রযুক্তির ডিজিটাল অবকাঠামো নির্মাণ, একুশ শতকের চাহিদা মেটাতে বহুমাত্রিক প্রতিষ্ঠান ও নারী নেতৃত্বাধীন উন্নয়ন। এবারের এই শীর্ষ সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় অর্থায়ন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানির গুরুত্ব তুলে ধরতে চায় আয়োজক দেশ ভারত।

এ ছাড়াও ইউক্রেন, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, মিসরসহ উন্নয়নশীল দেশের ঋণ সমস্যা সমাধান, ক্রিপ্টোকারেন্সি নীতিমালা তৈরি এবং খাদ্য ও জ্বালানি নিরাপত্তার ক্ষেত্রে ভূরাজনৈতিক অনিশ্চয়তার প্রভাব নিয়েও আলোচনা হবে জি-২০ সম্মেলনে।