০৪:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি তাদের মিত্রদের নিয়ে অশান্তি তৈরি করতে চায়: তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি তাদের মিত্রদের নিয়ে অশান্তি তৈরি করতে চায়, মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে চায়। সেই অজুহাত তৈরি করার জন্য আন্দোলন খেলা খেলছে। সরকারি দল হিসেবে আমাদের দায়িত্ব জনগণের পাশে থাকা। শনিবার মোহাম্মদপুরে শান্তি সমাবেশে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, গোলাপবাগ গরুর হাটের মাঠ তাদের পছন্দ সমাবেশ করার জন্য বিএনপি ফখরুলের আন্দোলনের দম ফুরিয়ে গেছে। ফখরুল যদি তলে তলে আগুন সন্ত্রাস করার পরিকল্পনা করেন তাহলে তো চোরের মন পুলিশ পুলিশ হবেই। কেউ অপরাধ করলে বা পরিকল্পনা করলে পুলিশ স্বাধীনভাবে কাজ করবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, কেউ নোবেল পুরষ্কার পেলে সে আইনের ঊর্ধ্বে উঠে না, নোবেল পেলে শ্রমিকের পাওনা বুঝি দেবে না এটা কোন দেশের আইনেই নাই। ৭৫কোটি টাকা গ্রামীণ ব্যাংকের থেকে চ্যারিটি ফান্ডে দিয়েছেন বলে দাবি করেন, আসলে সেই টাকা দিয়েছেন ভাই-ব্রাদারদের। বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে ইউনূসের উপর ভর করেছে, কবে কবিরাজের উপর ভর করে সেটার অপেক্ষায় আছি।

মন্ত্রী বলেন, আকাশ থেকে ঢাকা বা চট্টগ্রাম চেনা যায় না, এটিই বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে পাকিস্তান দীর্ঘশ্বাস ফেলে আর ফখরুল সাহেবরা হা-হুতাশ করে। বিদেশিদের কাছে ধর্না দিয়ে কোন লাভ করতে পারেনি বিএনপি, বরং জো বাইডেন শেখ হাসিনার সঙ্গে সেলফি তোলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, দেশে আর অশান্তি সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবেন না, আমরা জনগণের সঙ্গে আছি, নির্বাচনে আসুন। জনগণের রায় নিন। এসময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, নির্বাচন পর্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে, আগামী নির্বাচনেও শেখ হাসিনা ৫ বারের মতো বিপুল ভোটে জিতবেন।

বিএনপি তাদের মিত্রদের নিয়ে অশান্তি তৈরি করতে চায়: তথ্যমন্ত্রী

আপডেট : ০৩:৪০:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি তাদের মিত্রদের নিয়ে অশান্তি তৈরি করতে চায়, মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে চায়। সেই অজুহাত তৈরি করার জন্য আন্দোলন খেলা খেলছে। সরকারি দল হিসেবে আমাদের দায়িত্ব জনগণের পাশে থাকা। শনিবার মোহাম্মদপুরে শান্তি সমাবেশে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, গোলাপবাগ গরুর হাটের মাঠ তাদের পছন্দ সমাবেশ করার জন্য বিএনপি ফখরুলের আন্দোলনের দম ফুরিয়ে গেছে। ফখরুল যদি তলে তলে আগুন সন্ত্রাস করার পরিকল্পনা করেন তাহলে তো চোরের মন পুলিশ পুলিশ হবেই। কেউ অপরাধ করলে বা পরিকল্পনা করলে পুলিশ স্বাধীনভাবে কাজ করবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, কেউ নোবেল পুরষ্কার পেলে সে আইনের ঊর্ধ্বে উঠে না, নোবেল পেলে শ্রমিকের পাওনা বুঝি দেবে না এটা কোন দেশের আইনেই নাই। ৭৫কোটি টাকা গ্রামীণ ব্যাংকের থেকে চ্যারিটি ফান্ডে দিয়েছেন বলে দাবি করেন, আসলে সেই টাকা দিয়েছেন ভাই-ব্রাদারদের। বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে ইউনূসের উপর ভর করেছে, কবে কবিরাজের উপর ভর করে সেটার অপেক্ষায় আছি।

মন্ত্রী বলেন, আকাশ থেকে ঢাকা বা চট্টগ্রাম চেনা যায় না, এটিই বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে পাকিস্তান দীর্ঘশ্বাস ফেলে আর ফখরুল সাহেবরা হা-হুতাশ করে। বিদেশিদের কাছে ধর্না দিয়ে কোন লাভ করতে পারেনি বিএনপি, বরং জো বাইডেন শেখ হাসিনার সঙ্গে সেলফি তোলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, দেশে আর অশান্তি সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবেন না, আমরা জনগণের সঙ্গে আছি, নির্বাচনে আসুন। জনগণের রায় নিন। এসময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, নির্বাচন পর্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে, আগামী নির্বাচনেও শেখ হাসিনা ৫ বারের মতো বিপুল ভোটে জিতবেন।