ঢাকা ০৯:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতিস্তম্ভে শেখ হাসিনাসহ বিশ্বনেতাদের শ্রদ্ধা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৪১ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভারতবর্ষের স্বাধীনতা এবং নাগরিক অধিকার আন্দোলনের অন্যতম নেতা মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর (মহাত্মা গান্ধী) স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন জি-২০ উপলক্ষে দেশটি সফরে আসা বিশ্বনেতারা। শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও।

ভারতের জাতির পিতার স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানাতে রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে দিল্লির রাজঘাটে আসেন বিশ্বনেতারা। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাদের স্বাগত জানান।

প্রথমে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস এবং আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছান। এরপর একে একে বিশ্বনেতারা সেখানে পৌঁছান। মহাত্মার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর বিশ্বনেতারা লিডার্স লাউঞ্জে ‘শান্তি প্রাচীর’-এ স্বাক্ষর করেন।

এর আগে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লির অক্ষরধাম মন্দিরে প্রার্থনা করতে পৌঁছান। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর সেখানে যাওয়াকে কেন্দ্র করে মন্দির এবং এর আশপাশ এলাকায় নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়।

বিশ্বের শিল্পোন্নত ও বিকাশমান অর্থনীতির জোট জি-২০-এর শীর্ষ সম্মেলন গতকাল শনিবার ভারতের দিল্লিতে শুরু হয়েছে। ‘ভারত মণ্ডপমে’ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় এ শীর্ষ সম্মেলনের প্রথম সেশন-‘ওয়ান আর্থ’ বা ‘এক বিশ্ব’ শুরু হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, একে একে রাজঘাটে এসে পৌঁছান জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস, আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিভা, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা।
 
এছাড়া  দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক ইওল, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদ, ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি, জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ স্কোলৎজ, ইউরোপীয় কাউন্সিলের সভাপতি চার্লস মিশেল, ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডের লেইন, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাসিও, চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াংসহ অন্যান্যরা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান।

সম্মেলনের প্রথম দিনের প্রথম সেশনে স্থায়ী সদস্য হিসেবে আফ্রিকান ইউনিয়নকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফ্রিকান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত দেশের সংখ্যা ৫৫। আফ্রিকান ইউনিয়নকে জি–২০–এর সদস্য করার ঘোষণাকে করতালি দিয়ে স্বাগত জানান বিশ্বনেতারা।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদোর ছাড়া জি-২০ ভুক্ত সব দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা ভারতে এসেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতিস্তম্ভে শেখ হাসিনাসহ বিশ্বনেতাদের শ্রদ্ধা

আপডেট সময় : ০৬:০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ভারতবর্ষের স্বাধীনতা এবং নাগরিক অধিকার আন্দোলনের অন্যতম নেতা মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর (মহাত্মা গান্ধী) স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন জি-২০ উপলক্ষে দেশটি সফরে আসা বিশ্বনেতারা। শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও।

ভারতের জাতির পিতার স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা জানাতে রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে দিল্লির রাজঘাটে আসেন বিশ্বনেতারা। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাদের স্বাগত জানান।

প্রথমে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস এবং আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছান। এরপর একে একে বিশ্বনেতারা সেখানে পৌঁছান। মহাত্মার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর বিশ্বনেতারা লিডার্স লাউঞ্জে ‘শান্তি প্রাচীর’-এ স্বাক্ষর করেন।

এর আগে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লির অক্ষরধাম মন্দিরে প্রার্থনা করতে পৌঁছান। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর সেখানে যাওয়াকে কেন্দ্র করে মন্দির এবং এর আশপাশ এলাকায় নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়।

বিশ্বের শিল্পোন্নত ও বিকাশমান অর্থনীতির জোট জি-২০-এর শীর্ষ সম্মেলন গতকাল শনিবার ভারতের দিল্লিতে শুরু হয়েছে। ‘ভারত মণ্ডপমে’ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় এ শীর্ষ সম্মেলনের প্রথম সেশন-‘ওয়ান আর্থ’ বা ‘এক বিশ্ব’ শুরু হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, একে একে রাজঘাটে এসে পৌঁছান জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস, আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিভা, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা।
 
এছাড়া  দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক ইওল, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদ, ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি, জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ স্কোলৎজ, ইউরোপীয় কাউন্সিলের সভাপতি চার্লস মিশেল, ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডের লেইন, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাসিও, চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াংসহ অন্যান্যরা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান।

সম্মেলনের প্রথম দিনের প্রথম সেশনে স্থায়ী সদস্য হিসেবে আফ্রিকান ইউনিয়নকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফ্রিকান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত দেশের সংখ্যা ৫৫। আফ্রিকান ইউনিয়নকে জি–২০–এর সদস্য করার ঘোষণাকে করতালি দিয়ে স্বাগত জানান বিশ্বনেতারা।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদোর ছাড়া জি-২০ ভুক্ত সব দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা ভারতে এসেছেন।