০৫:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মরক্কোয় ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ২১ শ ছাড়িয়ে গেছে

ছয় দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্পে উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোয় নিহতের সংখ্যা ২১ শ ছাড়িয়ে গেছে। আহত হয়েছে প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষ। তাঁদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রোববার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারকারী জানিয়েছে, মরক্কো ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২,১২২ জন। এছাড়া আহত আছেন ২,৪২১ জন। উদ্ধারকারীরা সতর্ক করেছেন যে সংখ্যা এখনও বাড়তে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। গত শুক্রবার গভীর রাতে ৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভূমিকম্পে দেশটিতে ৩ লাখেরও বেশি অধিবাসী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সবচেয়ে বেশি হতাহত হয়েছেন মারাকেসের দক্ষিণের প্রদেশগুলো। ঘরবাড়ি হারিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে বাসিন্দারা। দেশটিতে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালিত হচ্ছে।

চারপাশে ধ্বংসস্তুপ, প্রিয়জন হারানোর আর্তনাদ। চোখেমুখে অসহায়ত্বের স্পষ্ট ছাপ। পলকেই ধূলিস্মাৎ সাজানো স্বপ্নের বাড়ি। এ যেন মধ্যরাতের কোনো এক দু:স্বপ্নে বাস করছে মরক্কো। ২০ সেকেন্ডের ভূমিকম্পে শেষ হয়ে গেছে নিজেদের সহায়-সম্বল। নি:স্ব হয়ে খোলা আকাশের নিচে দিন কাটাতে হচ্ছে তাদের।

মর্মান্তিক এই ঘটনায় দেশটিতে তিন দিনের শোক পালিত হচ্ছে। একইসাথে বেঁচে যাওয়াদের আশ্রয়, খাবার ও অন্যান্য সাহায্য দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির রাজা।

এদিকে, ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় সুলাওয়েসি দ্বীপের মিনাহাসা উপদ্বীপে ৫ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। জার্মান রিসার্চ সেন্টার ফর জিওসায়েন্স জানিয়েছে, ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে এর উৎপত্তি।

মরক্কোয় ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ২১ শ ছাড়িয়ে গেছে

আপডেট : ১০:১২:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ছয় দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্পে উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোয় নিহতের সংখ্যা ২১ শ ছাড়িয়ে গেছে। আহত হয়েছে প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষ। তাঁদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রোববার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারকারী জানিয়েছে, মরক্কো ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২,১২২ জন। এছাড়া আহত আছেন ২,৪২১ জন। উদ্ধারকারীরা সতর্ক করেছেন যে সংখ্যা এখনও বাড়তে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। গত শুক্রবার গভীর রাতে ৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভূমিকম্পে দেশটিতে ৩ লাখেরও বেশি অধিবাসী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সবচেয়ে বেশি হতাহত হয়েছেন মারাকেসের দক্ষিণের প্রদেশগুলো। ঘরবাড়ি হারিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে বাসিন্দারা। দেশটিতে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালিত হচ্ছে।

চারপাশে ধ্বংসস্তুপ, প্রিয়জন হারানোর আর্তনাদ। চোখেমুখে অসহায়ত্বের স্পষ্ট ছাপ। পলকেই ধূলিস্মাৎ সাজানো স্বপ্নের বাড়ি। এ যেন মধ্যরাতের কোনো এক দু:স্বপ্নে বাস করছে মরক্কো। ২০ সেকেন্ডের ভূমিকম্পে শেষ হয়ে গেছে নিজেদের সহায়-সম্বল। নি:স্ব হয়ে খোলা আকাশের নিচে দিন কাটাতে হচ্ছে তাদের।

মর্মান্তিক এই ঘটনায় দেশটিতে তিন দিনের শোক পালিত হচ্ছে। একইসাথে বেঁচে যাওয়াদের আশ্রয়, খাবার ও অন্যান্য সাহায্য দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির রাজা।

এদিকে, ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় সুলাওয়েসি দ্বীপের মিনাহাসা উপদ্বীপে ৫ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। জার্মান রিসার্চ সেন্টার ফর জিওসায়েন্স জানিয়েছে, ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০ কিলোমিটার গভীরে এর উৎপত্তি।