ঢাকা ০৬:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

প্লেন নষ্ট, ভারতেই রইলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:৩১:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৩৭ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আসা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর প্লেন নষ্ট হয়ে গেছে। তাই সম্মেলন শেষ হলেও তিনি এখনও ভারতেই রয়েছেন।

কানাডা থেকে ব্যাকআপ প্লেন আসছে। সেই প্লেনে স্পেয়ার পার্টসও আসছে। তা দিয়ে বিমান সারানোর চেষ্টা হবে বলে সরকারি কর্মকর্তারা সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গকে জানিয়েছেন। ট্রুডোর সঙ্গে তার প্রতিনিধিদলের সদস্যরাও আটকে পড়েছেন। প্লেন সারাতে অসুবিধা হলে ব্যাকআপ বিমানেই দেশে ফিরবেন তিনি।

দিল্লিতে কানাডার দূতাবাসের পক্ষ থেকে সংবাদ সংস্থা এএফপিকে ট্রুডোর অফিসের জারি করা একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই প্লেনের দেখভাল করে কানাডার বিমানবাহিনী। তারা জানিয়েছে, বিমানে কিছু যান্ত্রিক গোলযোগ হয়েছে, যা রাতারাতি সারানো সম্ভব নয়। বিকল্প ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত প্রতিনিধিদল দিল্লিতে থাকবেন।

ট্রুডোর অফিস বলেছে, খুব তাড়াতাড়ি হলে মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরতে পারেন।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর এবার খুব একটা মসৃন হয়নি। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অভিযোগ করেছেন, কানাডায় ভারতবিরোধী সন্ত্রাসীদের বিক্ষোভ করতে দেওয়া হচ্ছে। মোদি এখানে খালিস্তানপন্থিদের বিক্ষোভের কথাই বলছেন।

এর জবাবে ট্রুডোর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেছেন, ভারত কানাডার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

প্লেন নষ্ট, ভারতেই রইলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৭:৩১:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আসা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর প্লেন নষ্ট হয়ে গেছে। তাই সম্মেলন শেষ হলেও তিনি এখনও ভারতেই রয়েছেন।

কানাডা থেকে ব্যাকআপ প্লেন আসছে। সেই প্লেনে স্পেয়ার পার্টসও আসছে। তা দিয়ে বিমান সারানোর চেষ্টা হবে বলে সরকারি কর্মকর্তারা সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গকে জানিয়েছেন। ট্রুডোর সঙ্গে তার প্রতিনিধিদলের সদস্যরাও আটকে পড়েছেন। প্লেন সারাতে অসুবিধা হলে ব্যাকআপ বিমানেই দেশে ফিরবেন তিনি।

দিল্লিতে কানাডার দূতাবাসের পক্ষ থেকে সংবাদ সংস্থা এএফপিকে ট্রুডোর অফিসের জারি করা একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই প্লেনের দেখভাল করে কানাডার বিমানবাহিনী। তারা জানিয়েছে, বিমানে কিছু যান্ত্রিক গোলযোগ হয়েছে, যা রাতারাতি সারানো সম্ভব নয়। বিকল্প ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত প্রতিনিধিদল দিল্লিতে থাকবেন।

ট্রুডোর অফিস বলেছে, খুব তাড়াতাড়ি হলে মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরতে পারেন।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর এবার খুব একটা মসৃন হয়নি। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অভিযোগ করেছেন, কানাডায় ভারতবিরোধী সন্ত্রাসীদের বিক্ষোভ করতে দেওয়া হচ্ছে। মোদি এখানে খালিস্তানপন্থিদের বিক্ষোভের কথাই বলছেন।

এর জবাবে ট্রুডোর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেছেন, ভারত কানাডার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে।