ঢাকা ০৫:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আখাউড়া-আগরতলা রেলপথে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল শুরু

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৯:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৮০ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

প্রায় পাঁচ বছরের কর্মযজ্ঞ শেষে বহুল কাঙ্ক্ষিত আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথের বাংলাদেশ অংশে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল শুরু করেছে । বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার গঙ্গাসাগর রেলস্টেশন থেকে ভারত সীমান্তবর্তী শিবনগর পর্যন্ত একটি খালি কনটেইনার ট্রেন চারটি বগি নিয়ে চালানো হয়। এর আগেও আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথের বাংলাদেশ অংশে কয়েক দফায় ট্র্যাক কার চালানো হয়েছে ।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১৮ সালের জুলাইয়ে আখাউড়ার গঙ্গাসাগর থেকে আগরতলার নিশ্চিন্তপুর পর্যন্ত ১২ দশমিক ২৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের আখাউড়া-আগরতলা রেলপথের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। যার মধ্যে বাংলাদেশ অংশে রয়েছে ৬.৭৮ কিলোমিটার। এতে ব্যয় হয়েছে ২৪১ কোটি টাকা। তবে করোনা মহামারিসহ নানা সংকটের কারণে দেড় বছর মেয়াদি প্রকল্পের কাজ শেষ করতে সময় লাগছে পাঁচ বছরেরও বেশি। রেললাইনের কাজ শেষ হলেও ইমিগ্রেশন, কাস্টমস ভবন এবং প্ল্যাটফর্মের ফিনিশিং কাজ এখনও চলছে। প্রাথমিক অবস্থায় এ রেলপথে শুধু মালবাহী ট্রেন চলাচল করবে। পর্যায়ক্রমে এ রেলপথে যাত্রীবাহি ট্রেনও চলাচল করবে।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট আরও জানিয়েছেন, ডুয়েলগেজ রেলপথটি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন। তবে কবে নাগাদ এ রেলপথের উদ্বোধন করা হবে তা জানা যায়নি।

এসময় আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ প্রকল্পের পরিচালক (বাংলাদেশ অংশ) মো. আবু জাফর মিয়া ও ভারতের টেক্সমেকো রেল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের কান্ট্রি ম্যানেজার শরৎ শর্মাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্রেন চলাচল পরিদর্শন শেষে আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ প্রকল্পের পরিচালক (বাংলাদেশ অংশ) মো. আবু জাফর মিয়া জানান, রেলপথ নির্মাণ শেষে ট্রায়াল সম্পূর্ণ করলাম। এটি আমাদের একটি টেকনিক্যাল কাজ। এ রেলপথের মাধ্যমে নতুন দিগন্তের পথ সূচিত হবে। এই ডুয়েলগেজ রেলপথ চালু হলে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারসহ সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আখাউড়া-আগরতলা রেলপথে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল শুরু

আপডেট সময় : ০৪:৪৯:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

প্রায় পাঁচ বছরের কর্মযজ্ঞ শেষে বহুল কাঙ্ক্ষিত আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথের বাংলাদেশ অংশে পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল শুরু করেছে । বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার গঙ্গাসাগর রেলস্টেশন থেকে ভারত সীমান্তবর্তী শিবনগর পর্যন্ত একটি খালি কনটেইনার ট্রেন চারটি বগি নিয়ে চালানো হয়। এর আগেও আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ রেলপথের বাংলাদেশ অংশে কয়েক দফায় ট্র্যাক কার চালানো হয়েছে ।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১৮ সালের জুলাইয়ে আখাউড়ার গঙ্গাসাগর থেকে আগরতলার নিশ্চিন্তপুর পর্যন্ত ১২ দশমিক ২৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের আখাউড়া-আগরতলা রেলপথের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। যার মধ্যে বাংলাদেশ অংশে রয়েছে ৬.৭৮ কিলোমিটার। এতে ব্যয় হয়েছে ২৪১ কোটি টাকা। তবে করোনা মহামারিসহ নানা সংকটের কারণে দেড় বছর মেয়াদি প্রকল্পের কাজ শেষ করতে সময় লাগছে পাঁচ বছরেরও বেশি। রেললাইনের কাজ শেষ হলেও ইমিগ্রেশন, কাস্টমস ভবন এবং প্ল্যাটফর্মের ফিনিশিং কাজ এখনও চলছে। প্রাথমিক অবস্থায় এ রেলপথে শুধু মালবাহী ট্রেন চলাচল করবে। পর্যায়ক্রমে এ রেলপথে যাত্রীবাহি ট্রেনও চলাচল করবে।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট আরও জানিয়েছেন, ডুয়েলগেজ রেলপথটি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন। তবে কবে নাগাদ এ রেলপথের উদ্বোধন করা হবে তা জানা যায়নি।

এসময় আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ প্রকল্পের পরিচালক (বাংলাদেশ অংশ) মো. আবু জাফর মিয়া ও ভারতের টেক্সমেকো রেল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের কান্ট্রি ম্যানেজার শরৎ শর্মাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্রেন চলাচল পরিদর্শন শেষে আখাউড়া-আগরতলা ডুয়েলগেজ প্রকল্পের পরিচালক (বাংলাদেশ অংশ) মো. আবু জাফর মিয়া জানান, রেলপথ নির্মাণ শেষে ট্রায়াল সম্পূর্ণ করলাম। এটি আমাদের একটি টেকনিক্যাল কাজ। এ রেলপথের মাধ্যমে নতুন দিগন্তের পথ সূচিত হবে। এই ডুয়েলগেজ রেলপথ চালু হলে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারসহ সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।