ঢাকা ০৮:৪১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মেহেরপুরে শীতের আগাম সবজি চাষ

মেহেরপুর সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৭:৪২:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৫৪৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মেহেরপুরের কৃষকরা আগাম শীতকালীন সবজির চাষ করছেন। শীতের আগেই এসব সবজি চাষ করে বাজারে বিক্রি করে বেশ লাভ হচ্ছে তাদের। অসময়ে এসব সবজি চাষে খরচ বেশি হলেও, বাজারে চাহিদা ভালো থাকায় তা পুষিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে বলে জানালেন কৃষকরা। এদিকে, আগাম সবজি চাষে কৃষকদের বিভিন্ন তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহারবাটি গ্রামে আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষীরা। লাভের আশায় তারা বাঁধাকপি, ফুলকপি, শিমসহ শীতকালীর এসব সবজি চাষ করছেন। বাজারে ভালো দাম মিলবে বলে আশাবাদী চাষিরা।

মেহেরপুরে চাষ করা সবজি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি হয়। তবে আগাম এসব সবজি চাষ করতে গেলে সার ও কিটনাশকের বেশি ব্যবহার হয়। এতে খরচও হয় একটু বেশি। কিন্তু বাজারে এসব সবজির চাহিদা বেশি থাকায় বাড়তি দাম পাচ্ছেন চাষীরা। পুষিয়ে নিতে পারছেন উৎপাদনের বাড়তি খরচ।

সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে সবজি উৎপাদন করে যেন কৃষকরা লাভবান হতে পারে সে লক্ষ্যে কৃষি বিভাগ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তর এর উপ-পরিচালক শংকর কুমার মজুমদার।

নিউজটি শেয়ার করুন

মেহেরপুরে শীতের আগাম সবজি চাষ

আপডেট সময় : ০৭:৪২:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

মেহেরপুরের কৃষকরা আগাম শীতকালীন সবজির চাষ করছেন। শীতের আগেই এসব সবজি চাষ করে বাজারে বিক্রি করে বেশ লাভ হচ্ছে তাদের। অসময়ে এসব সবজি চাষে খরচ বেশি হলেও, বাজারে চাহিদা ভালো থাকায় তা পুষিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে বলে জানালেন কৃষকরা। এদিকে, আগাম সবজি চাষে কৃষকদের বিভিন্ন তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহারবাটি গ্রামে আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষীরা। লাভের আশায় তারা বাঁধাকপি, ফুলকপি, শিমসহ শীতকালীর এসব সবজি চাষ করছেন। বাজারে ভালো দাম মিলবে বলে আশাবাদী চাষিরা।

মেহেরপুরে চাষ করা সবজি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি হয়। তবে আগাম এসব সবজি চাষ করতে গেলে সার ও কিটনাশকের বেশি ব্যবহার হয়। এতে খরচও হয় একটু বেশি। কিন্তু বাজারে এসব সবজির চাহিদা বেশি থাকায় বাড়তি দাম পাচ্ছেন চাষীরা। পুষিয়ে নিতে পারছেন উৎপাদনের বাড়তি খরচ।

সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমে সবজি উৎপাদন করে যেন কৃষকরা লাভবান হতে পারে সে লক্ষ্যে কৃষি বিভাগ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তর এর উপ-পরিচালক শংকর কুমার মজুমদার।