ঢাকা ১২:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

গোয়েন্দাদের জেরায় যা বললেন নুসরাত

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৫:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪৬৬ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গত কয়েকদিন ধরেই বিনোদন দুনিয়ের বাইরের খবরে আলোচনায় আছেন টলিউড অভিনেত্রী ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান। প্রতারণার অভিযোগ এসেছে তার বিরুদ্ধে। ফ্ল্যাট দেওয়ার নামে ২৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন—এমনটিই দাবি ভুক্তভোগীদের। এটি জানাতে ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডির দ্বারস্থ হন প্রতারিত ব্যক্তিরা।

যার ফলে এবার গোয়েন্দা সংস্থাটির ৬ ঘণ্টা জেরার মুখে পড়তে হলো নায়িকাকে। তবে নুসরাত কিন্তু এখনও ‘আত্মবিশ্বাসী’। জানিয়েছেন, ‘‌সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছি। সবরকম সহযোগিতা করেছি। আবার যদি ডাকে, আবারও আসব। সব নথি দিয়েছি।’‌

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি কোট শেয়ার করেছেন তিনি। যাতে লেখা আছে, ‘সত্য চিরন্তন। হতে পারে পরিস্থিতির কারণে রং চড়িয়ে তা বিকৃত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে সত্য উদঘাটন হবেই। আর যারা এই সত্যটা অগ্রাহ্য করবে তারা একদিন না একদিন ধ্বংস হবেই।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের মতে, গত সপ্তাহে ইডির দফতর থেকে বেরিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের কোনও প্রশ্নেরই কোনও জবাব দেননি নুসরাত। বরং সোজা গাড়িতে উঠে যান। তবে সবাইকে অবাক করে তাঁর গাড়ি সেই সময় বাড়ি নয়, গিয়ে থামে এক হনুমান মন্দিরের সামনে। পূজা দেন তিনি। তারপর প্রসাদও বিতরণ করেন মন্দিরের বাইরে উপস্থিত সকলকে। অনেকের মনেই যা দেখে প্রশ্ন আসে, ভয় পেয়েই কি ভগবান দর্শনে হাজির হয়েছিলেন?

নুসরাতের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৪ সালে তার সংস্থা ৪২৯ জনের কাছ থেকে ৫ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা করে নেয়। সব মিলিয়ে প্রায় ২৪ কোটি টাকা। তাদের মধ্যে ছিলেন একটি ব্যাংকের অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীসহ বেশ কিছু চাকুরীজীবী। তাদের বলা হয়েছিল, তিন বছরের মধ্যে ফ্ল্যাট দেওয়া হবে। কিন্তু প্রায় ১ দশক কেটে গেলেও তারা তাদের প্রাপ্য বুঝে পাননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

গোয়েন্দাদের জেরায় যা বললেন নুসরাত

আপডেট সময় : ০৮:৫৫:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

গত কয়েকদিন ধরেই বিনোদন দুনিয়ের বাইরের খবরে আলোচনায় আছেন টলিউড অভিনেত্রী ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান। প্রতারণার অভিযোগ এসেছে তার বিরুদ্ধে। ফ্ল্যাট দেওয়ার নামে ২৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন—এমনটিই দাবি ভুক্তভোগীদের। এটি জানাতে ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডির দ্বারস্থ হন প্রতারিত ব্যক্তিরা।

যার ফলে এবার গোয়েন্দা সংস্থাটির ৬ ঘণ্টা জেরার মুখে পড়তে হলো নায়িকাকে। তবে নুসরাত কিন্তু এখনও ‘আত্মবিশ্বাসী’। জানিয়েছেন, ‘‌সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছি। সবরকম সহযোগিতা করেছি। আবার যদি ডাকে, আবারও আসব। সব নথি দিয়েছি।’‌

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি কোট শেয়ার করেছেন তিনি। যাতে লেখা আছে, ‘সত্য চিরন্তন। হতে পারে পরিস্থিতির কারণে রং চড়িয়ে তা বিকৃত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে সত্য উদঘাটন হবেই। আর যারা এই সত্যটা অগ্রাহ্য করবে তারা একদিন না একদিন ধ্বংস হবেই।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের মতে, গত সপ্তাহে ইডির দফতর থেকে বেরিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের কোনও প্রশ্নেরই কোনও জবাব দেননি নুসরাত। বরং সোজা গাড়িতে উঠে যান। তবে সবাইকে অবাক করে তাঁর গাড়ি সেই সময় বাড়ি নয়, গিয়ে থামে এক হনুমান মন্দিরের সামনে। পূজা দেন তিনি। তারপর প্রসাদও বিতরণ করেন মন্দিরের বাইরে উপস্থিত সকলকে। অনেকের মনেই যা দেখে প্রশ্ন আসে, ভয় পেয়েই কি ভগবান দর্শনে হাজির হয়েছিলেন?

নুসরাতের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৪ সালে তার সংস্থা ৪২৯ জনের কাছ থেকে ৫ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা করে নেয়। সব মিলিয়ে প্রায় ২৪ কোটি টাকা। তাদের মধ্যে ছিলেন একটি ব্যাংকের অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীসহ বেশ কিছু চাকুরীজীবী। তাদের বলা হয়েছিল, তিন বছরের মধ্যে ফ্ল্যাট দেওয়া হবে। কিন্তু প্রায় ১ দশক কেটে গেলেও তারা তাদের প্রাপ্য বুঝে পাননি।