১০:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে ৪ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প

বাংলাদেশে ৪.২ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ২। ভূমিকম্পের গভীরতা ছিল ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ৫ কিলোমিটার। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প গবেষণাগারের কর্মকর্তা রোবায়েত কবীর এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রোবায়েত কবীর জানান, আজ রোববার বেলা ১২টা ৫০ মিনিটে এই ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়। ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল টাঙ্গাইলের সখিপুরে। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ২। ঢাকা থেকে ৬৯ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে ছিল ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। ভূমিকম্পটির ধরন ছিল হালকা। এই ভূমিকম্পের কারণে এখন পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতির কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে রাজধানীসহ সারাদেশে গত ১১ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৩১ মিনিটের দিকে ভূমিকম্প অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে সেই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫। এর আগে সবশেষ গত ৯ সেপ্টেম্বর ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে সিলেট। ৪ দশমিক ৪ মাত্রার ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল আসাম।

ভারতের জাতীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র (এনসিএস) জানিয়েছিল, ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৪৩ কিলোমিটার গভীরে ছিল ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তি।

তার আগে গত ২৯ আগস্ট দুপুর ১টা ১৩ মিনিটের দিকে সিলেটে ৪ দশমিক ৬ মাত্রায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়। গত ১৪ আগস্ট রাত ৮টা ৪৯ মিনিটে ৫ দশমিক ৫ মাত্রায় ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল সিলেট।

বাংলাদেশে ৪ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প

আপডেট : ০৭:৫০:০৮ পূর্বাহ্ন, রোববার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বাংলাদেশে ৪.২ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ২। ভূমিকম্পের গভীরতা ছিল ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ৫ কিলোমিটার। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প গবেষণাগারের কর্মকর্তা রোবায়েত কবীর এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রোবায়েত কবীর জানান, আজ রোববার বেলা ১২টা ৫০ মিনিটে এই ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়। ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল টাঙ্গাইলের সখিপুরে। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ২। ঢাকা থেকে ৬৯ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে ছিল ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। ভূমিকম্পটির ধরন ছিল হালকা। এই ভূমিকম্পের কারণে এখন পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতির কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে রাজধানীসহ সারাদেশে গত ১১ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৩১ মিনিটের দিকে ভূমিকম্প অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে সেই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫। এর আগে সবশেষ গত ৯ সেপ্টেম্বর ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে সিলেট। ৪ দশমিক ৪ মাত্রার ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল আসাম।

ভারতের জাতীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র (এনসিএস) জানিয়েছিল, ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৪৩ কিলোমিটার গভীরে ছিল ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তি।

তার আগে গত ২৯ আগস্ট দুপুর ১টা ১৩ মিনিটের দিকে সিলেটে ৪ দশমিক ৬ মাত্রায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়। গত ১৪ আগস্ট রাত ৮টা ৪৯ মিনিটে ৫ দশমিক ৫ মাত্রায় ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল সিলেট।