ঢাকা ০৫:৫৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যানেল খুলবেন যেভাবে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৪:১৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪২৫ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সম্প্রতি নতুন নতুন সুবিধা যুক্ত হচ্ছে বার্তা আদান-প্রদানের মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপে। এর সবশেষ সংযোজন হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল ফিচার। জনপ্রিয় তারকারাও হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল তৈরি করছেন। এই ফিচারটি চালু করার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, আপনার প্রিয় অভিনেতা বা অভিনেত্রী সম্পর্কে সমস্ত আপডেট হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া যাবে। বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি, লেটেস্ট আপডেটগুলো সহজে পেয়ে যাবেন ব্যবহারকারীরা।

বিশ্বের অন্তত ১৫০টি দেশে চালু হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল ফিচার। ফিচারটি চালু হওয়ার পর অনেকের মনে প্রশ্ন, কীভাবে নিজের চ্যানেল তৈরি করা যায়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে নিজেই খুলবেন হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল।

হোয়াটসঅ্যাপের ওয়েবসাইটে জানানো হয়, চ্যানেল তৈরি করতে আপনার অবশ্যই একটি বিসনেজ অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। আপনার ফোনে অ্যাপটির লেটেস্ট ভার্সন ইনস্টল করতে হবে। এ ছাড়া অ্যাকাউন্টে টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন চালু থাকা প্রয়োজন, যাতে আপনার ব্যক্তিগত কোনো তথ্য কেউ না পায়।

কীভাবে নিজেই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল তৈরি করবেন:

• প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপ বিসনেজ অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এর পর আপডেট ট্যাবে প্লাস (+) আইকনে ক্লিক করতে হবে।

• এই অপশনে ক্লিক করার পর নিউ চ্যানেল অপশন দেখতে পাবেন

• নিউ চ্যানেলে ক্লিক করে গেট স্টার্টেডে প্রবেশ করে অনস্ক্রিন ইনস্ট্রাকশনসে লেখা কিছু নির্দেশনা অনুসরন করুন।

• এরপর চ্যানেলের নাম দিয়ে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলের কী কী সুবিধা:
• এনহ্যান্সড ডিরেক্টরি – আপনি আপনার দেশের এবং অটোমেটিক্যালি ফিল্টার করা যেকোনো চ্যানেল খুঁজে নিতে পারবেন। পাশাপাশি সেই সব চ্যানেল ফলো করতে পারবেন, যেগুলো অধিক সক্রিয় এবং বেশি ফলোয়ারের ভিত্তিতে জনপ্রিয়।

• রিঅ্যাকশনস – বিভিন্ন চ্যানেলের বিভিন্ন আপডেটে ইমোজি রিঅ্যাকশন করে নিজের ফিডব্যাক জানাতে পারবেন।

• এডিটিং – একটি চ্যানেলের অ্যাডমিন তার আপডেটের পরিবর্তন সম্পাদনা করতে পারবেন ৩০ দিন পর্যন্ত। এর পরে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে সার্ভার থেকে ডিলিট হয়ে যাবে।

• ফরোওয়ার্ডিং – আপনি যখন কোনো আপডেট অন্য কোনো অ্যাকাউন্ট বা গ্রুপে পাঠাবেন, তখন সেই চ্যানেলের একটি লিঙ্কও তাতে যুক্ত থাকবে। যাতে করে ব্যবহারকারীরা সেই বিষয় ও চ্যানেল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যানেল খুলবেন যেভাবে

আপডেট সময় : ০৬:১৪:১৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সম্প্রতি নতুন নতুন সুবিধা যুক্ত হচ্ছে বার্তা আদান-প্রদানের মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপে। এর সবশেষ সংযোজন হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল ফিচার। জনপ্রিয় তারকারাও হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল তৈরি করছেন। এই ফিচারটি চালু করার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, আপনার প্রিয় অভিনেতা বা অভিনেত্রী সম্পর্কে সমস্ত আপডেট হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া যাবে। বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি, লেটেস্ট আপডেটগুলো সহজে পেয়ে যাবেন ব্যবহারকারীরা।

বিশ্বের অন্তত ১৫০টি দেশে চালু হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল ফিচার। ফিচারটি চালু হওয়ার পর অনেকের মনে প্রশ্ন, কীভাবে নিজের চ্যানেল তৈরি করা যায়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে নিজেই খুলবেন হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল।

হোয়াটসঅ্যাপের ওয়েবসাইটে জানানো হয়, চ্যানেল তৈরি করতে আপনার অবশ্যই একটি বিসনেজ অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। আপনার ফোনে অ্যাপটির লেটেস্ট ভার্সন ইনস্টল করতে হবে। এ ছাড়া অ্যাকাউন্টে টু-স্টেপ ভ্যারিফিকেশন চালু থাকা প্রয়োজন, যাতে আপনার ব্যক্তিগত কোনো তথ্য কেউ না পায়।

কীভাবে নিজেই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল তৈরি করবেন:

• প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপ বিসনেজ অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এর পর আপডেট ট্যাবে প্লাস (+) আইকনে ক্লিক করতে হবে।

• এই অপশনে ক্লিক করার পর নিউ চ্যানেল অপশন দেখতে পাবেন

• নিউ চ্যানেলে ক্লিক করে গেট স্টার্টেডে প্রবেশ করে অনস্ক্রিন ইনস্ট্রাকশনসে লেখা কিছু নির্দেশনা অনুসরন করুন।

• এরপর চ্যানেলের নাম দিয়ে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেলের কী কী সুবিধা:
• এনহ্যান্সড ডিরেক্টরি – আপনি আপনার দেশের এবং অটোমেটিক্যালি ফিল্টার করা যেকোনো চ্যানেল খুঁজে নিতে পারবেন। পাশাপাশি সেই সব চ্যানেল ফলো করতে পারবেন, যেগুলো অধিক সক্রিয় এবং বেশি ফলোয়ারের ভিত্তিতে জনপ্রিয়।

• রিঅ্যাকশনস – বিভিন্ন চ্যানেলের বিভিন্ন আপডেটে ইমোজি রিঅ্যাকশন করে নিজের ফিডব্যাক জানাতে পারবেন।

• এডিটিং – একটি চ্যানেলের অ্যাডমিন তার আপডেটের পরিবর্তন সম্পাদনা করতে পারবেন ৩০ দিন পর্যন্ত। এর পরে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে সার্ভার থেকে ডিলিট হয়ে যাবে।

• ফরোওয়ার্ডিং – আপনি যখন কোনো আপডেট অন্য কোনো অ্যাকাউন্ট বা গ্রুপে পাঠাবেন, তখন সেই চ্যানেলের একটি লিঙ্কও তাতে যুক্ত থাকবে। যাতে করে ব্যবহারকারীরা সেই বিষয় ও চ্যানেল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন।