ঢাকা ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

অন্য দলে যোগ দিচ্ছেন বিএনপির তৈমুর ও শমসের মবিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৭:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৮২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আক্ষেপ ও অভিমান থেকে তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের বহিষ্কৃত সদস্য অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। তিনি অভিযোগ করেন গত দেড় বছরে একটি বারের জন্যেও বিএনপি আমার কোনো খোঁজ নেয়নি।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান। তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, বিএনপির দুঃসময়ে তিনি ছিলেন। এখন আর তাকে দলে দরকার নেই। এসময় বিএনপিতে তিনি আর ফিরবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দেন।

২০২২ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হন তৈমুর। দলের সিদ্ধান্ত না মানায় একই বছরের জানুয়ারিতে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

এ প্রসঙ্গে তৈমুর বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে স্বতন্ত্রভাবে অংশ নেয়ায় আমাকে অব্যাহতি দেয়া হয়। কিন্তু আমি মনে করি তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের দলে গুরুত্ব থাকা উচিত। মানুষ ভুল করতে পারে। এটা সংশোধনের সুযোগ দেয়া উচিত। আইনও সংশোধন করা যায়। মানুষ সংশোধনের সুযোগ থাকবে না কেন, প্রশ্ন রাখেন তিনি।

আগামীকাল মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে বিএনপির সাবেক নেতা প্রয়াত নাজমুল হুদার প্রতিষ্ঠিত দলটির প্রথম কাউন্সিল।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত এ কাউন্সিল ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি। তাতে যোগ দিতে পারেন বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সাবেক সদস্য (বহিষ্কৃত) অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধন পায় তৃণমূল বিএনপি। এর তিন দিন পর ১৯ ফেব্রুয়ারি মারা যান তৃণমূল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হন নাজমুল হুদার বড় মেয়ে অ্যাডভোকেট অন্তরা সেলিমা হুদা। দলটির নির্বাচনি প্রতীক ‘সোনালী আঁশ’।

নিউজটি শেয়ার করুন

অন্য দলে যোগ দিচ্ছেন বিএনপির তৈমুর ও শমসের মবিন

আপডেট সময় : ০৩:৪৭:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আক্ষেপ ও অভিমান থেকে তৃণমূল বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের বহিষ্কৃত সদস্য অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার। তিনি অভিযোগ করেন গত দেড় বছরে একটি বারের জন্যেও বিএনপি আমার কোনো খোঁজ নেয়নি।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান। তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, বিএনপির দুঃসময়ে তিনি ছিলেন। এখন আর তাকে দলে দরকার নেই। এসময় বিএনপিতে তিনি আর ফিরবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দেন।

২০২২ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হন তৈমুর। দলের সিদ্ধান্ত না মানায় একই বছরের জানুয়ারিতে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

এ প্রসঙ্গে তৈমুর বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে স্বতন্ত্রভাবে অংশ নেয়ায় আমাকে অব্যাহতি দেয়া হয়। কিন্তু আমি মনে করি তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের দলে গুরুত্ব থাকা উচিত। মানুষ ভুল করতে পারে। এটা সংশোধনের সুযোগ দেয়া উচিত। আইনও সংশোধন করা যায়। মানুষ সংশোধনের সুযোগ থাকবে না কেন, প্রশ্ন রাখেন তিনি।

আগামীকাল মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে বিএনপির সাবেক নেতা প্রয়াত নাজমুল হুদার প্রতিষ্ঠিত দলটির প্রথম কাউন্সিল।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত এ কাউন্সিল ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি। তাতে যোগ দিতে পারেন বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সাবেক সদস্য (বহিষ্কৃত) অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধন পায় তৃণমূল বিএনপি। এর তিন দিন পর ১৯ ফেব্রুয়ারি মারা যান তৃণমূল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হন নাজমুল হুদার বড় মেয়ে অ্যাডভোকেট অন্তরা সেলিমা হুদা। দলটির নির্বাচনি প্রতীক ‘সোনালী আঁশ’।