ঢাকা ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সরকার সবাইকে ভয় দেখাচ্ছে: গণতন্ত্র মঞ্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০২:৫৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৭৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সংবিধান সংশোধন করে জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী নির্বাচন আয়োজনের দাবি জানিয়েছে গণতন্ত্র মঞ্চ। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে এ দাবি জানান নেতারা।

সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা ও গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকী বলেন, সরকার নিজেরা ভয় পেয়ে সবাইকে ভয় দেখাচ্ছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জামানত হারাবে আওয়ামী লীগের সব প্রার্থী।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, বাংলাদেশে এখন যেটা দাঁড়িয়েছে যে, সরকার একটা নির্দিষ্ট বয়ান হাজির করছে, তার বিরুদ্ধে গেলে সেটা আইনিভাবে একটা অপরাধ। আওয়ামী লীগের বিরোধিতা এখন আইনিভাবে অপরাধ, সেটা কিন্তু সাইবার সিকিউরিটি আইনের মাধ্যমে প্রকাশ করে এবং বাংলাদেশের গণমাধ্যম পরিস্থিতির মুখোমুখি।

তিনি বলেন, এখন ফ্যাসিস্ট ব্যবস্থার বিরুদ্ধে আমরা যখন লড়ছি, তখন আমাদের ন্যায্যতার ভিত্তিটা কী? আমাদের ন্যায্যতার ভিত্তি হচ্ছে আমরা একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র তৈরি করতে পারছি না এবং সেখানে বিচার বিভাগকে তার সর্বোচ্চ স্বাধীনতার জায়গায় এবং গণমাধ্যমকে তার সর্বোচ্চ স্বাধীনতার জায়গায় নিয়ে যাওয়ার কর্মসূচি নিয়ে আমরা এগোচ্ছি। আমরা যত বেশি এই কর্মসূচিকে মানুষের সামনে হাজির রাখতে পারব, যত বেশি এই কর্মসূচির প্রতি আমাদের যে অঙ্গীকার প্রতিষ্ঠা করতে পারব, তত মানুষের সামনে ওই স্বপ্নটা তৈরি হবে, যে স্বপ্নকে আদায় করার জন্য, বাস্তব রূপ দেওয়ার জন্য মানুষ একটা মরিয়া লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হবে।

সরকারের পদত্যাগ, অন্তর্র্বর্তী সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দীর মুক্তি ও সংবিধান সংস্কার করে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে এই সমাবেশ ও গণমিছিল কর্মসূচির আয়োজন করে গণতন্ত্র মঞ্চ।

সমাবেশ শেষে টিকাটুলী মোড় পর্যন্ত গণমিছিল করেন মঞ্চের নেতাকর্মীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সরকার সবাইকে ভয় দেখাচ্ছে: গণতন্ত্র মঞ্চ

আপডেট সময় : ০২:৫৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সংবিধান সংশোধন করে জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী নির্বাচন আয়োজনের দাবি জানিয়েছে গণতন্ত্র মঞ্চ। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে এ দাবি জানান নেতারা।

সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা ও গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকী বলেন, সরকার নিজেরা ভয় পেয়ে সবাইকে ভয় দেখাচ্ছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জামানত হারাবে আওয়ামী লীগের সব প্রার্থী।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, বাংলাদেশে এখন যেটা দাঁড়িয়েছে যে, সরকার একটা নির্দিষ্ট বয়ান হাজির করছে, তার বিরুদ্ধে গেলে সেটা আইনিভাবে একটা অপরাধ। আওয়ামী লীগের বিরোধিতা এখন আইনিভাবে অপরাধ, সেটা কিন্তু সাইবার সিকিউরিটি আইনের মাধ্যমে প্রকাশ করে এবং বাংলাদেশের গণমাধ্যম পরিস্থিতির মুখোমুখি।

তিনি বলেন, এখন ফ্যাসিস্ট ব্যবস্থার বিরুদ্ধে আমরা যখন লড়ছি, তখন আমাদের ন্যায্যতার ভিত্তিটা কী? আমাদের ন্যায্যতার ভিত্তি হচ্ছে আমরা একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র তৈরি করতে পারছি না এবং সেখানে বিচার বিভাগকে তার সর্বোচ্চ স্বাধীনতার জায়গায় এবং গণমাধ্যমকে তার সর্বোচ্চ স্বাধীনতার জায়গায় নিয়ে যাওয়ার কর্মসূচি নিয়ে আমরা এগোচ্ছি। আমরা যত বেশি এই কর্মসূচিকে মানুষের সামনে হাজির রাখতে পারব, যত বেশি এই কর্মসূচির প্রতি আমাদের যে অঙ্গীকার প্রতিষ্ঠা করতে পারব, তত মানুষের সামনে ওই স্বপ্নটা তৈরি হবে, যে স্বপ্নকে আদায় করার জন্য, বাস্তব রূপ দেওয়ার জন্য মানুষ একটা মরিয়া লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হবে।

সরকারের পদত্যাগ, অন্তর্র্বর্তী সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দীর মুক্তি ও সংবিধান সংস্কার করে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে এই সমাবেশ ও গণমিছিল কর্মসূচির আয়োজন করে গণতন্ত্র মঞ্চ।

সমাবেশ শেষে টিকাটুলী মোড় পর্যন্ত গণমিছিল করেন মঞ্চের নেতাকর্মীরা।