ঢাকা ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

অচলাবস্থার ঝুঁকিতে আমেরিকা সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:১৯:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৮৪ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দুই সপ্তাহের মধ্যে অচলাবস্থায় পড়তে পারে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। একটি স্বল্পমেয়াদী ব্যয় বিল নিয়ে মার্কিন আইন প্রণেতারা একমত না হওয়ায় এ শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এ নিয়ে ঐক্যমতে না পৌঁছাতে পারলে যুক্তরাষ্ট্র সরকারে অচলাবস্থা তৈরি হতে পারে। বেশ কয়েকটি বাজেট বিল বর্তমানে ওয়াশিংটনে আলোচনা করা হচ্ছে, তবে ডেমোক্র্যাট-সংখ্যাগরিষ্ঠ সিনেট এবং রিপাবলিকান-নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে পেরোতে পারেনি এগুলোর একটিও।

এর আগে সবশেষ ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্র সরকারে অচলাবস্থা বা শাটডাউন ঘোষণা করেছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারে অচলাবস্থা তৈরি হলে লাখো কর্মীর বেতন-ভাতা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন সবসময়ই এ ধরনের পরিস্থিতি এড়িয়ে চলে চায়। তবে ট্রাম্পের কিছু সমর্থক এখন পর্যন্ত মার্কিন কংগ্রেসে উত্থাপিত ডেমোক্র্যাটদের প্রতিটি বিলের বিরোধিতা করেছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, কট্টরপন্থি রিপাবলিকানরা মানুষের জীবন নিয়ে খেলছে।

এ ধরনের অচলাবস্থা তৈরি হলে ইউক্রেন যুদ্ধেও এর প্রভাব পড়তে পারে। হোয়াইট হাউস চাইছে, ইউক্রেনকে ২৪ বিলিয়ন ডলারের সামরিক ও মানবিক সহায়তা দিতে একটি বাজেট বিল পাস করাতে এই প্রস্তাবে সিনেট সমর্থন করলেও মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের কিছু সদস্য এর বিরোধিতা করেছে।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের ডানপন্থি সদস্য মার্জোরি টেলর গ্রিন এক্সে দেওয়া পোস্টে লেখেন, ‘ইউক্রেন, করোনার জন্য একটি পয়সা দেওয়ার জন্যও ভোট দেব না’।

নিউজটি শেয়ার করুন

অচলাবস্থার ঝুঁকিতে আমেরিকা সরকার

আপডেট সময় : ০৯:১৯:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দুই সপ্তাহের মধ্যে অচলাবস্থায় পড়তে পারে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। একটি স্বল্পমেয়াদী ব্যয় বিল নিয়ে মার্কিন আইন প্রণেতারা একমত না হওয়ায় এ শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এ নিয়ে ঐক্যমতে না পৌঁছাতে পারলে যুক্তরাষ্ট্র সরকারে অচলাবস্থা তৈরি হতে পারে। বেশ কয়েকটি বাজেট বিল বর্তমানে ওয়াশিংটনে আলোচনা করা হচ্ছে, তবে ডেমোক্র্যাট-সংখ্যাগরিষ্ঠ সিনেট এবং রিপাবলিকান-নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে পেরোতে পারেনি এগুলোর একটিও।

এর আগে সবশেষ ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্র সরকারে অচলাবস্থা বা শাটডাউন ঘোষণা করেছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারে অচলাবস্থা তৈরি হলে লাখো কর্মীর বেতন-ভাতা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন সবসময়ই এ ধরনের পরিস্থিতি এড়িয়ে চলে চায়। তবে ট্রাম্পের কিছু সমর্থক এখন পর্যন্ত মার্কিন কংগ্রেসে উত্থাপিত ডেমোক্র্যাটদের প্রতিটি বিলের বিরোধিতা করেছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, কট্টরপন্থি রিপাবলিকানরা মানুষের জীবন নিয়ে খেলছে।

এ ধরনের অচলাবস্থা তৈরি হলে ইউক্রেন যুদ্ধেও এর প্রভাব পড়তে পারে। হোয়াইট হাউস চাইছে, ইউক্রেনকে ২৪ বিলিয়ন ডলারের সামরিক ও মানবিক সহায়তা দিতে একটি বাজেট বিল পাস করাতে এই প্রস্তাবে সিনেট সমর্থন করলেও মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের কিছু সদস্য এর বিরোধিতা করেছে।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের ডানপন্থি সদস্য মার্জোরি টেলর গ্রিন এক্সে দেওয়া পোস্টে লেখেন, ‘ইউক্রেন, করোনার জন্য একটি পয়সা দেওয়ার জন্যও ভোট দেব না’।