ঢাকা ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ঘর পেয়ে বদলে গেছে আশ্রয়হীনদের জীবন

ফরিদপুর সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৪:০২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৮৭ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পে জমিসহ ঘর পাওয়া ৪৪৫টি পরিবার নিশ্চিত করেছে নিজেদের কর্মসংস্থান। ঘুরে গেছে তাদের জীবনের চাকা। দীর্ঘ সময় যারা ঠিকানাবিহীন হয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন, আজ তারাই নিজেদের কর্মদক্ষতা দিয়ে আয়ের পথ খুঁজে পেয়েছে। তাদের নানা প্রশিক্ষণ দিয়ে পাশে থাকার কথা জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের একটি ঘরে থাকেন রাহেলা বেগম। বছর খানেক আগেও তার নিজের বলতে কিছুই ছিল না। এখন তিনি পেয়েছেন মাথা গোঁজার ঠাঁই। তার সেই ছোট্ট ঘরের টিনের চালায় সবজির ভালো ফলন হয়েছে। সেই সাথে ছোট উঠানটিতে যেটুকু সবজি ফলে, তা বিক্রি করে সংসারের খরচ শেষে বাড়তি কিছুটা আয়ও হয়।

নগরকান্দার এই আশ্রয়ণ প্রকল্পের সব বাসিন্দার জীবনের গল্প প্রায় একই। বেশিরভাগ সময় কেটেছে উদ্বাস্তু হিসেবে। সরকারের সহায়তায় ঘরসহ জমি পেয়ে প্রত্যেকে সেখানে আশ্যয় পাওয়ার পাশাপশি নিজের মত করে কর্মসংস্থানও নিশ্চিত করেছে।

কর্মসংস্থানের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের পেশাভিত্তিক নানা প্রশিক্ষণ দিচ্ছে প্রশাসন। এই প্রশিক্ষণের ফলে পুরুষদের পাশাপাশি স্বাবলম্বী হচ্ছে নারীরাও।

নিউজটি শেয়ার করুন

ঘর পেয়ে বদলে গেছে আশ্রয়হীনদের জীবন

আপডেট সময় : ০৭:৪৪:০২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পে জমিসহ ঘর পাওয়া ৪৪৫টি পরিবার নিশ্চিত করেছে নিজেদের কর্মসংস্থান। ঘুরে গেছে তাদের জীবনের চাকা। দীর্ঘ সময় যারা ঠিকানাবিহীন হয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন, আজ তারাই নিজেদের কর্মদক্ষতা দিয়ে আয়ের পথ খুঁজে পেয়েছে। তাদের নানা প্রশিক্ষণ দিয়ে পাশে থাকার কথা জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের একটি ঘরে থাকেন রাহেলা বেগম। বছর খানেক আগেও তার নিজের বলতে কিছুই ছিল না। এখন তিনি পেয়েছেন মাথা গোঁজার ঠাঁই। তার সেই ছোট্ট ঘরের টিনের চালায় সবজির ভালো ফলন হয়েছে। সেই সাথে ছোট উঠানটিতে যেটুকু সবজি ফলে, তা বিক্রি করে সংসারের খরচ শেষে বাড়তি কিছুটা আয়ও হয়।

নগরকান্দার এই আশ্রয়ণ প্রকল্পের সব বাসিন্দার জীবনের গল্প প্রায় একই। বেশিরভাগ সময় কেটেছে উদ্বাস্তু হিসেবে। সরকারের সহায়তায় ঘরসহ জমি পেয়ে প্রত্যেকে সেখানে আশ্যয় পাওয়ার পাশাপশি নিজের মত করে কর্মসংস্থানও নিশ্চিত করেছে।

কর্মসংস্থানের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের পেশাভিত্তিক নানা প্রশিক্ষণ দিচ্ছে প্রশাসন। এই প্রশিক্ষণের ফলে পুরুষদের পাশাপাশি স্বাবলম্বী হচ্ছে নারীরাও।