ঢাকা ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রেয়ালকে বাঁচালেন বেলিংহ্যাম

ক্রীড়া ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৭৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ম্যাচ শেষে রেয়াল মাদ্রিদের অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার নাচো ফের্নান্দেসের কথা। যারা খেলা দেখেননি, তাঁদের কাছে মনে হতে পারে, নিশ্চয়ই রেয়ালের অ্যাকাডেমির কোনো খেলোয়াড়ের ব্যাপারে এ কথা বলেছেন তিনি, বা স্পেনে জন্ম নেওয়া কোনো খেলোয়াড়কে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছে এ কথা। কিন্তু না, নাচোর কথাগুলো রেয়ালে নতুন আসা ইংলিশ মিডফিল্ডার জুড বেলিংহ্যামকে উদ্দেশ্য করে।

কথাটা শুনে প্রথমে খানিক খটকা লাগলেও রেয়ালের সাদা জার্সি গায়ে বেলিংহ্যাম যা যা করছেন, সে কথা মনে পড়লে আর অস্বাভাবিক লাগবে না। রেয়ালে নাম লিখিয়েছেন মাস দুয়েক আগে, এর মধ্যেই রেয়ালকে ‘উদ্ধার’ করার ব্যাপারটাকে অভ্যাস বানিয়ে ফেলেছেন যেন! লা লিগা অভিষেকে অ্যাথলেটিক বিলবাওর বিপক্ষে জয়সূচক দ্বিতীয় গোল করে শুরু, এরপর একে একে আলমেরিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোল, সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে ৮১ মিনিটের জয়সূচক গোল, হেতাফের বিপক্ষে ৯৫ মিনিটে গোল করে দলকে জেতানোর পর এবার চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিষেকেও একই কাজ করেছেন এই মিডফিল্ডার। গত রাতে ইউনিয়ন বার্লিনের রেয়ালের জার্সি গায়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন এই তারকা। প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত! হাজার চেষ্টা করেও রদ্রিগো, মদরিচ, হোসেলুরা যখন গোল পাচ্ছিলেন না, যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে গোল করে রেয়ালকে অমূল্য এক জয় এনে দিয়েছেন এই তারকা। রেয়ালের হয়ে প্রথম ছয় ম্যাচেই ছয় গোল আর চারবার ম্যাচ সেরার পুরস্কার – এমন অর্জন তো বাঘা বাঘা স্ট্রাইকারেরও নেই! নাচো ও কথা বলবেন না-ই বা কেন!

রেয়ালের আগে লিগ ও চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিষেকে গোল করা সর্বশেষ ইংলিশ খেলোয়াড় ছিলেন লরি কানিংহ্যাম। এখনই সমর্থকদের নয়নের মনি হয়ে গিয়েছেন এই তারকা। ব্যাপারটা উপভোগও করছেন বেশ, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার অভিজ্ঞতা সবচেয়ে সেরা। আমি ভেবেছিলাম রেয়ালের হয়ে লিগে খেলার অভিজ্ঞতাই অসাধারণ, কিন্তু এরপর আমি চ্যাম্পিয়নস লিগে আমার গোলের পর সমর্থকদের গর্জন শুনতে পেলাম। আপনি যতক্ষণ না পর্যন্ত এ ক্লাবের অংশ না হবেন ততক্ষণ এটা বুঝতে পারবেন না। আশা করি এমন সমর্থন সবসময় পেয়ে যাব।’

বেলিংহ্যাম যা করছেন, তাতে রেয়াল সমর্থকদের এভাবে সমর্থন না দেওয়ার কারণ নেই কোনো!

গ্রুপের আরেক ম্যাচে পর্তুগিজ ক্লাব ব্রাগাকে ২-১ গোলে হারিয়েছে নাপোলি। আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লাওতারো মার্তিনেসের গোলে রেয়াল সোসিয়েদাদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইন্তার মিলান, বেনফিকাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে সালজবুর্গ।

নিউজটি শেয়ার করুন

রেয়ালকে বাঁচালেন বেলিংহ্যাম

আপডেট সময় : ০৭:০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ম্যাচ শেষে রেয়াল মাদ্রিদের অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার নাচো ফের্নান্দেসের কথা। যারা খেলা দেখেননি, তাঁদের কাছে মনে হতে পারে, নিশ্চয়ই রেয়ালের অ্যাকাডেমির কোনো খেলোয়াড়ের ব্যাপারে এ কথা বলেছেন তিনি, বা স্পেনে জন্ম নেওয়া কোনো খেলোয়াড়কে উদ্দেশ্য করে বলা হয়েছে এ কথা। কিন্তু না, নাচোর কথাগুলো রেয়ালে নতুন আসা ইংলিশ মিডফিল্ডার জুড বেলিংহ্যামকে উদ্দেশ্য করে।

কথাটা শুনে প্রথমে খানিক খটকা লাগলেও রেয়ালের সাদা জার্সি গায়ে বেলিংহ্যাম যা যা করছেন, সে কথা মনে পড়লে আর অস্বাভাবিক লাগবে না। রেয়ালে নাম লিখিয়েছেন মাস দুয়েক আগে, এর মধ্যেই রেয়ালকে ‘উদ্ধার’ করার ব্যাপারটাকে অভ্যাস বানিয়ে ফেলেছেন যেন! লা লিগা অভিষেকে অ্যাথলেটিক বিলবাওর বিপক্ষে জয়সূচক দ্বিতীয় গোল করে শুরু, এরপর একে একে আলমেরিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোল, সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে ৮১ মিনিটের জয়সূচক গোল, হেতাফের বিপক্ষে ৯৫ মিনিটে গোল করে দলকে জেতানোর পর এবার চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিষেকেও একই কাজ করেছেন এই মিডফিল্ডার। গত রাতে ইউনিয়ন বার্লিনের রেয়ালের জার্সি গায়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন এই তারকা। প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত! হাজার চেষ্টা করেও রদ্রিগো, মদরিচ, হোসেলুরা যখন গোল পাচ্ছিলেন না, যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে গোল করে রেয়ালকে অমূল্য এক জয় এনে দিয়েছেন এই তারকা। রেয়ালের হয়ে প্রথম ছয় ম্যাচেই ছয় গোল আর চারবার ম্যাচ সেরার পুরস্কার – এমন অর্জন তো বাঘা বাঘা স্ট্রাইকারেরও নেই! নাচো ও কথা বলবেন না-ই বা কেন!

রেয়ালের আগে লিগ ও চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিষেকে গোল করা সর্বশেষ ইংলিশ খেলোয়াড় ছিলেন লরি কানিংহ্যাম। এখনই সমর্থকদের নয়নের মনি হয়ে গিয়েছেন এই তারকা। ব্যাপারটা উপভোগও করছেন বেশ, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার অভিজ্ঞতা সবচেয়ে সেরা। আমি ভেবেছিলাম রেয়ালের হয়ে লিগে খেলার অভিজ্ঞতাই অসাধারণ, কিন্তু এরপর আমি চ্যাম্পিয়নস লিগে আমার গোলের পর সমর্থকদের গর্জন শুনতে পেলাম। আপনি যতক্ষণ না পর্যন্ত এ ক্লাবের অংশ না হবেন ততক্ষণ এটা বুঝতে পারবেন না। আশা করি এমন সমর্থন সবসময় পেয়ে যাব।’

বেলিংহ্যাম যা করছেন, তাতে রেয়াল সমর্থকদের এভাবে সমর্থন না দেওয়ার কারণ নেই কোনো!

গ্রুপের আরেক ম্যাচে পর্তুগিজ ক্লাব ব্রাগাকে ২-১ গোলে হারিয়েছে নাপোলি। আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লাওতারো মার্তিনেসের গোলে রেয়াল সোসিয়েদাদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইন্তার মিলান, বেনফিকাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে সালজবুর্গ।