ঢাকা ০৪:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

কানাডায় শিখ নেতা হত্যায় কাউকে ছাড় দেবে না আমেরিকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:৪২:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৯১ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কানাডায় একজন খালিস্তানপন্থি নেতাকে হত্যার ঘটনায় ভারতীয় গোয়েন্দাদের জড়িত থাকার অভিযোগের বিষয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে আমেরিকা। গতকাল বৃহস্পতিবার আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বলেছেন, ‘কানাডায় একজন খালিস্তানপন্থী নেতাকে হত্যার সঙ্গে ভারত সরকারের গোয়েন্দাদের যোগসূত্র রয়েছে বলে অটোয়া যে অভিযোগ করেছে, সে বিষয়ে আমেরিকা সরকারের উচ্চ পর্যায় ভারত সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে এবং ওয়াশিংটন এই ইস্যুতে কোনো ছাড় দেবে না।’

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জ্যাক সুলিভান। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, কানাডায় খালিস্তানপন্থী নেতা হত্যার ঘটনায় আমেরিকা উদ্বিগ্ন। এ ব্যাপারে আমরা কোনো ছাড় দেব না। যে দেশই ক্ষতিগ্রস্ত হোক না কেন, আমেরিতা তার নীতিতে অটল থাকবে। সুলিভান আরও বলেন, ‘বিষয়টি আমাদের জন্য উদ্বেগের। আমরা তাই এই ইস্যুকে গুরুত্বসহকারে নিয়েছি। আমরা সব দেশের ক্ষেত্রেই আমাদের নীতি অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যাব। কাউকে ছাড় দেব না। কানাডা আমাদের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র। তাদের প্রচলিত আইন ও কূটনৈতিক প্রক্রিয়ার পাশে থাকব আমরা।’

গত সোমবার খালিস্তানপন্থি শিখ নেতা হরদীপ সিং নিজ্জারকে হত্যার ঘটনায় ভারতের সম্পৃক্ততার বিশ্বাসযোগ্য কারণ রয়েছে বলে মন্তব্য করেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের কানাডার মিশনের এক সংবাদ সম্মেলনেও তিনি একই মন্তব্য করেন।

সুলিভান বলেন, ‘আমেরিকা বিষয়টি নিয়ে উভয় দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। আমরা কানাডার সঙ্গে ক্রমাগত যোগাযোগ রাখছি। একই সঙ্গে ভারতের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছি।’ কানাডার সঙ্গে ভারত সরকারের কূটনৈতিক দূরত্ব তৈরি হয়েছে বলে মনে করেন না জ্যাক সুলিভান। তিনি বলেন, আমরা শুধু কানাডার অভিযোগের ব্যাপারে উদ্বেগ জানাচ্ছি। আমরা চাই, কানাডা তাদের তদন্ত সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে নিক।

রয়টার্স জানিয়েছে, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করতে চাইছে আমেরিকা। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চলতি বছরের শুরুতে হোয়াইট হাউসে একটি রাষ্ট্রীয় সফরের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

কানাডায় শিখ নেতা হত্যায় কাউকে ছাড় দেবে না আমেরিকা

আপডেট সময় : ০৮:৪২:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কানাডায় একজন খালিস্তানপন্থি নেতাকে হত্যার ঘটনায় ভারতীয় গোয়েন্দাদের জড়িত থাকার অভিযোগের বিষয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে আমেরিকা। গতকাল বৃহস্পতিবার আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বলেছেন, ‘কানাডায় একজন খালিস্তানপন্থী নেতাকে হত্যার সঙ্গে ভারত সরকারের গোয়েন্দাদের যোগসূত্র রয়েছে বলে অটোয়া যে অভিযোগ করেছে, সে বিষয়ে আমেরিকা সরকারের উচ্চ পর্যায় ভারত সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে এবং ওয়াশিংটন এই ইস্যুতে কোনো ছাড় দেবে না।’

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জ্যাক সুলিভান। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, কানাডায় খালিস্তানপন্থী নেতা হত্যার ঘটনায় আমেরিকা উদ্বিগ্ন। এ ব্যাপারে আমরা কোনো ছাড় দেব না। যে দেশই ক্ষতিগ্রস্ত হোক না কেন, আমেরিতা তার নীতিতে অটল থাকবে। সুলিভান আরও বলেন, ‘বিষয়টি আমাদের জন্য উদ্বেগের। আমরা তাই এই ইস্যুকে গুরুত্বসহকারে নিয়েছি। আমরা সব দেশের ক্ষেত্রেই আমাদের নীতি অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যাব। কাউকে ছাড় দেব না। কানাডা আমাদের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র। তাদের প্রচলিত আইন ও কূটনৈতিক প্রক্রিয়ার পাশে থাকব আমরা।’

গত সোমবার খালিস্তানপন্থি শিখ নেতা হরদীপ সিং নিজ্জারকে হত্যার ঘটনায় ভারতের সম্পৃক্ততার বিশ্বাসযোগ্য কারণ রয়েছে বলে মন্তব্য করেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের কানাডার মিশনের এক সংবাদ সম্মেলনেও তিনি একই মন্তব্য করেন।

সুলিভান বলেন, ‘আমেরিকা বিষয়টি নিয়ে উভয় দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। আমরা কানাডার সঙ্গে ক্রমাগত যোগাযোগ রাখছি। একই সঙ্গে ভারতের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছি।’ কানাডার সঙ্গে ভারত সরকারের কূটনৈতিক দূরত্ব তৈরি হয়েছে বলে মনে করেন না জ্যাক সুলিভান। তিনি বলেন, আমরা শুধু কানাডার অভিযোগের ব্যাপারে উদ্বেগ জানাচ্ছি। আমরা চাই, কানাডা তাদের তদন্ত সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে নিক।

রয়টার্স জানিয়েছে, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করতে চাইছে আমেরিকা। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চলতি বছরের শুরুতে হোয়াইট হাউসে একটি রাষ্ট্রীয় সফরের জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।