ঢাকা ০৫:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে এবি পার্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৭৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

অবৈধ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে সরকার একের পর এক রেড সিগন্যাল অগ্রাহ্য করার কারণে বিপর্যয় আসন্ন বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে আমার বাংলাদেশ পার্টি ‘এবি পার্টি’। অবিলম্বে পদত্যাগ করে অন্তবর্তীকালীন নিরপেক্ষ সরকারের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর অথবা বিকল্প হিসেবে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে দলটি।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টায় রাজধানীর বিজয় নগরস্থ বিজয়-৭১ চত্ত্বরে এবি পার্টি আয়োজিত একদফা দাবিতে মিছিল ও বিক্ষোভ চলাকালে এ দাবি করেন দলের নেতৃবৃন্দ।

এবি পার্টির যুগ্ম-সদস্য সচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বিএম নাজমূল হকের সভাপতিত্বে ও দলের সিনিয়র সহকারী সদস্য-সচিব আনোয়ার সাদাত টুটুলের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের সদস্য-সচিব মজিবুর রহমান মন্জু।

তিনি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদল এসে সরকারীদলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাথে মিটিং করেছে, তারা নির্বাচন কমিশনের সাথেও কথা বলেছে। সরকার যে একটা একতরফা প্রহসনের নির্বাচন করতে চাচ্ছে সেই কুমতলব তারা বুঝে ফেলেছে।

তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক মহল পর্যবেক্ষক না পাঠালে নির্বাচন কারও কাছেই গ্রহণযোগ্য হবেনা। সরকার গোয়ার্তুমি করে দেশকে চরম অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, অবৈধ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে সরকার একের পর এক রেড সিগন্যাল অগ্রাহ্য করছে; এর কারণে দেশ ও জনগণের জন্য ভয়াবহ বিপর্যয় আসন্ন। তিনি অবিলম্বে পদত্যাগ করে অন্তবর্তীকালীন নিরপেক্ষ সরকারের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর অথবা বিকল্প হিসেবে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানান।

সভাপতির বক্তব্যে বিএম নাজমুল হক বলেন, স্বৈরাচারী সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে দেশের কোটি কোটি মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ। দুর্নীতি, অর্থপাচার, লুটপাট, দ্রব্যমূল্যের সীমাহীন ঊর্ধ্বগতির বিরুদ্ধে যত ক্ষোভ মানুষের মনে জমা হয়েছে, তাতে পরিস্থিতি খুবই পরিস্কার, অবৈধ এই সরকারকে এবার ক্ষমতা ছাড়তেই হবে। জনদাবি উপেক্ষা করে ক্ষমতা আঁকড়ে থেকে থাকার পরিণাম শুভ হবেনা বলে তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন পার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব ও কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, যুব পার্টির আহ্বায়ক এবিএম খালিদ হাসান, মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন, বাংলাদেশ ছাত্রপক্ষের আহবায়ক মোহাম্মদ প্রিন্স, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন, যুবনেতা হাদিউজ্জামান খোকন ও নারী নেত্রী সুলতানা রাজিয়া।

অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, এবি পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব ফিরোজ কবির, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক গাজী নাসির, যুগ্ম সদস্য সচিব সফিউল বাসার, কেফায়েত হোসেন তানভীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম নুর, সহকারী প্রচার সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন শরীফ, যুবপার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব আলী নাসের খান, কেন্দ্রীয় সহকারী তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক নাসির আব্দুল্লাহ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নারী নেত্রী আমেনা বেগম, শীলা আক্তার, যুবনেতা মাসুদ জমাদ্দার রানা সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে এবি পার্টির কেন্দ্রীয় অফিস চত্বরে এসে শেষ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে এবি পার্টি

আপডেট সময় : ০৯:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

অবৈধ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে সরকার একের পর এক রেড সিগন্যাল অগ্রাহ্য করার কারণে বিপর্যয় আসন্ন বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে আমার বাংলাদেশ পার্টি ‘এবি পার্টি’। অবিলম্বে পদত্যাগ করে অন্তবর্তীকালীন নিরপেক্ষ সরকারের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর অথবা বিকল্প হিসেবে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে দলটি।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টায় রাজধানীর বিজয় নগরস্থ বিজয়-৭১ চত্ত্বরে এবি পার্টি আয়োজিত একদফা দাবিতে মিছিল ও বিক্ষোভ চলাকালে এ দাবি করেন দলের নেতৃবৃন্দ।

এবি পার্টির যুগ্ম-সদস্য সচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বিএম নাজমূল হকের সভাপতিত্বে ও দলের সিনিয়র সহকারী সদস্য-সচিব আনোয়ার সাদাত টুটুলের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের সদস্য-সচিব মজিবুর রহমান মন্জু।

তিনি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদল এসে সরকারীদলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাথে মিটিং করেছে, তারা নির্বাচন কমিশনের সাথেও কথা বলেছে। সরকার যে একটা একতরফা প্রহসনের নির্বাচন করতে চাচ্ছে সেই কুমতলব তারা বুঝে ফেলেছে।

তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক মহল পর্যবেক্ষক না পাঠালে নির্বাচন কারও কাছেই গ্রহণযোগ্য হবেনা। সরকার গোয়ার্তুমি করে দেশকে চরম অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, অবৈধ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে সরকার একের পর এক রেড সিগন্যাল অগ্রাহ্য করছে; এর কারণে দেশ ও জনগণের জন্য ভয়াবহ বিপর্যয় আসন্ন। তিনি অবিলম্বে পদত্যাগ করে অন্তবর্তীকালীন নিরপেক্ষ সরকারের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর অথবা বিকল্প হিসেবে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নির্বাচনের দাবি জানান।

সভাপতির বক্তব্যে বিএম নাজমুল হক বলেন, স্বৈরাচারী সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে দেশের কোটি কোটি মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ। দুর্নীতি, অর্থপাচার, লুটপাট, দ্রব্যমূল্যের সীমাহীন ঊর্ধ্বগতির বিরুদ্ধে যত ক্ষোভ মানুষের মনে জমা হয়েছে, তাতে পরিস্থিতি খুবই পরিস্কার, অবৈধ এই সরকারকে এবার ক্ষমতা ছাড়তেই হবে। জনদাবি উপেক্ষা করে ক্ষমতা আঁকড়ে থেকে থাকার পরিণাম শুভ হবেনা বলে তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন পার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব ও কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, যুব পার্টির আহ্বায়ক এবিএম খালিদ হাসান, মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন, বাংলাদেশ ছাত্রপক্ষের আহবায়ক মোহাম্মদ প্রিন্স, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন, যুবনেতা হাদিউজ্জামান খোকন ও নারী নেত্রী সুলতানা রাজিয়া।

অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, এবি পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব ফিরোজ কবির, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক গাজী নাসির, যুগ্ম সদস্য সচিব সফিউল বাসার, কেফায়েত হোসেন তানভীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম নুর, সহকারী প্রচার সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন শরীফ, যুবপার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব আলী নাসের খান, কেন্দ্রীয় সহকারী তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক নাসির আব্দুল্লাহ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নারী নেত্রী আমেনা বেগম, শীলা আক্তার, যুবনেতা মাসুদ জমাদ্দার রানা সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে এবি পার্টির কেন্দ্রীয় অফিস চত্বরে এসে শেষ হয়।