ঢাকা ১১:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

থমকে আছে নীলফামারী-চিলাহাটি রেলপথের কাজ

নীলফামারী সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৮:২৮:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৮৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতায় থমকে আছে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটি থেকে স্থানীয় সীমান্ত পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের কাজ। ভূমি মালিকদের দাবি, অধিগ্রহণ করা জমির যে দাম ধরা হয়েছে, তার চেয়ে বর্তমান বাজার মূল্য কয়েক গুণ বেশি। ন্যায্যমূল্যের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনও করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা। এদিকে যথাযথ নিয়ম মেনেই জমির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

ভারতের সাথে রেল সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটি থেকে স্থানীয় সীমান্ত পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এই প্রকল্পের আওতায় লুপ লাইন স্থাপনের জন্য অধিগ্রহণ করা হয় চিলাহাটি ও চাঁন্দখানা মৌজার ২ দশমিক ৮৬ একর জমি। তবে ভূমি মালিকদের অভিযোগ, বর্তমান দামের থেকে কয়েকগুন কম দাম নির্ধারণ করা হয়েছে অধিগ্রহণ করা জমির। ন্যায্য মূল্য পেতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনও করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা।

তাদের অভিযোগ, অধিগ্রহণের কাজ শেষ না করেই জোর পূর্বক জমি ভরাটের কাজ করেছে ঠিকাদারের লোকজন। জমির দাম পুনর্বিবেচনার দাবি জানালেন জমির মালিকরা।

এদিকে, জমির দাম নিয়ে সৃষ্ট জটিলতায় বিলম্বিত হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ এই উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ। দ্রুত সমস্যা নিরসন করে কাজ শেষ করার দাবি জানিয়েছে স্থানীয় নাগরিক সমাজ ও জনপ্রতিনিধিরা।

তবে, যথাযথ নিয়ম মেনেই জমির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানালেন জেলা প্রশাসক। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া এই প্রকল্প শেষ হওয়ার কথা আগামী বছরের জুনে।

নিউজটি শেয়ার করুন

থমকে আছে নীলফামারী-চিলাহাটি রেলপথের কাজ

আপডেট সময় : ০৮:২৮:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতায় থমকে আছে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটি থেকে স্থানীয় সীমান্ত পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের কাজ। ভূমি মালিকদের দাবি, অধিগ্রহণ করা জমির যে দাম ধরা হয়েছে, তার চেয়ে বর্তমান বাজার মূল্য কয়েক গুণ বেশি। ন্যায্যমূল্যের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনও করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা। এদিকে যথাযথ নিয়ম মেনেই জমির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

ভারতের সাথে রেল সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটি থেকে স্থানীয় সীমান্ত পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এই প্রকল্পের আওতায় লুপ লাইন স্থাপনের জন্য অধিগ্রহণ করা হয় চিলাহাটি ও চাঁন্দখানা মৌজার ২ দশমিক ৮৬ একর জমি। তবে ভূমি মালিকদের অভিযোগ, বর্তমান দামের থেকে কয়েকগুন কম দাম নির্ধারণ করা হয়েছে অধিগ্রহণ করা জমির। ন্যায্য মূল্য পেতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনও করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকরা।

তাদের অভিযোগ, অধিগ্রহণের কাজ শেষ না করেই জোর পূর্বক জমি ভরাটের কাজ করেছে ঠিকাদারের লোকজন। জমির দাম পুনর্বিবেচনার দাবি জানালেন জমির মালিকরা।

এদিকে, জমির দাম নিয়ে সৃষ্ট জটিলতায় বিলম্বিত হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ এই উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ। দ্রুত সমস্যা নিরসন করে কাজ শেষ করার দাবি জানিয়েছে স্থানীয় নাগরিক সমাজ ও জনপ্রতিনিধিরা।

তবে, যথাযথ নিয়ম মেনেই জমির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানালেন জেলা প্রশাসক। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া এই প্রকল্প শেষ হওয়ার কথা আগামী বছরের জুনে।