ঢাকা ০৫:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৯:০০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৯২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করাতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে। সেখান থেকে আইনমন্ত্রণালয়ে মতামত চাওয়া হলে আইন অনুযায়ী মতামত দেয়া হবে। শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা জানান।

দন্ডপ্রাপ্ত হলেও বর্তমানে খালেদা জিয়া যে চিকিৎসা পাচ্ছেন তা প্রধামন্ত্রীর মহানুভবতা উল্লে­খ করে আইনমন্ত্রী বলেন, দেশেই ভালো চিকিৎসা হচ্ছে খালেদা জিয়ার। এসময় কর্মসূচির নামে আইন অমান্য করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলেন আনিসুল হক।

এ সময় বিএনপি হরতাল-অবরোধে ফিরে গেলে আইনগতভাবে মোকাবিলা করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন আইনমন্ত্রী।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাজা হলে কারাজীবন শুরু হয় খালেদা জিয়ার। পরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায়ও তার সাজার রায় হয়।

সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাবরণের পর সরকারের নির্বাহী আদেশে খালেদা জিয়া প্রায় চার বছর ধরে গুলশানে নিজ বাসা ‘ফিরোজায়’ রয়েছেন। ৭৭ বছর বয়সী সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী ডায়াবেটিস, চোখের সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৯:৫৯:০০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা করাতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে। সেখান থেকে আইনমন্ত্রণালয়ে মতামত চাওয়া হলে আইন অনুযায়ী মতামত দেয়া হবে। শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা জানান।

দন্ডপ্রাপ্ত হলেও বর্তমানে খালেদা জিয়া যে চিকিৎসা পাচ্ছেন তা প্রধামন্ত্রীর মহানুভবতা উল্লে­খ করে আইনমন্ত্রী বলেন, দেশেই ভালো চিকিৎসা হচ্ছে খালেদা জিয়ার। এসময় কর্মসূচির নামে আইন অমান্য করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলেন আনিসুল হক।

এ সময় বিএনপি হরতাল-অবরোধে ফিরে গেলে আইনগতভাবে মোকাবিলা করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন আইনমন্ত্রী।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাজা হলে কারাজীবন শুরু হয় খালেদা জিয়ার। পরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায়ও তার সাজার রায় হয়।

সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাবরণের পর সরকারের নির্বাহী আদেশে খালেদা জিয়া প্রায় চার বছর ধরে গুলশানে নিজ বাসা ‘ফিরোজায়’ রয়েছেন। ৭৭ বছর বয়সী সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী ডায়াবেটিস, চোখের সমস্যাসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছেন।