০৯:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে সরকার’

ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার চতুর্থ রোডমার্চ করেছে বিএনপি। সকালে বরিশাল থেকে শুরু হওয়া এই রোডমার্চ পটুয়াখালী, ঝালকাঠি হয়ে শেষ হয় পিরোজপুর গিয়ে। পিরোজপুরে সমাপনী সমাবেশে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই গণতন্ত্র ধ্বংস হয়। অবিলম্বে সরকারকে পদত্যাগ করে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান তিনি।

সরকারের পদত্যাগের দাবিতে শনিবার বরিশাল বিভাগে রোডমার্চ করেছে বিএনপি। নগরীর বেলস পার্কে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে রোডমার্চ শুরু হয়। এরআগে পটুয়াখালী থেকে বরিশালে আসে বিএনপির নেতাকর্মীরা। রোডমার্চটি বরিশাল, ঝালকাঠি হয়ে পিরোজপুর গিয়ে শেষ হয়। কর্মসূচিতে নেতাকর্মীরা বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস ছাড়াও মোটরসাইকেল নিয়ে যোগ দেয়।

পথে ঝালকাঠি থেকেও শত শত নেতাকর্মী রোডমার্চে অংশ নেন। ঝালকাঠিতে দুটি স্থানে পথসভায় বক্তব্য রাখেন নেতারা। বলেন, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে দাবি আদায় না হলে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

রোডমার্চ শেষে পিরোজপুর শেয়ালকাঁটা ময়দানে সমাপনী সমাবেশ করে জেলা বিএনপি। বৃষ্টি উপেক্ষা করে এ সমাবেশে জড়ো হন হাজারও নেতাকর্মী। সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, এই সরকার দেশের গণতন্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে।

সরকারের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানান তিনি।

আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর খুলনা বিভাগে, পহেলা অক্টোবর ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ, তেশরা অক্টোবর ফরিদপুরে ও ৫ই অক্টোবর কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত রোডমার্চ করবে বিএনপি।

‘দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে সরকার’

আপডেট : ০২:২৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার চতুর্থ রোডমার্চ করেছে বিএনপি। সকালে বরিশাল থেকে শুরু হওয়া এই রোডমার্চ পটুয়াখালী, ঝালকাঠি হয়ে শেষ হয় পিরোজপুর গিয়ে। পিরোজপুরে সমাপনী সমাবেশে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই গণতন্ত্র ধ্বংস হয়। অবিলম্বে সরকারকে পদত্যাগ করে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান তিনি।

সরকারের পদত্যাগের দাবিতে শনিবার বরিশাল বিভাগে রোডমার্চ করেছে বিএনপি। নগরীর বেলস পার্কে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে রোডমার্চ শুরু হয়। এরআগে পটুয়াখালী থেকে বরিশালে আসে বিএনপির নেতাকর্মীরা। রোডমার্চটি বরিশাল, ঝালকাঠি হয়ে পিরোজপুর গিয়ে শেষ হয়। কর্মসূচিতে নেতাকর্মীরা বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস ছাড়াও মোটরসাইকেল নিয়ে যোগ দেয়।

পথে ঝালকাঠি থেকেও শত শত নেতাকর্মী রোডমার্চে অংশ নেন। ঝালকাঠিতে দুটি স্থানে পথসভায় বক্তব্য রাখেন নেতারা। বলেন, শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে দাবি আদায় না হলে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

রোডমার্চ শেষে পিরোজপুর শেয়ালকাঁটা ময়দানে সমাপনী সমাবেশ করে জেলা বিএনপি। বৃষ্টি উপেক্ষা করে এ সমাবেশে জড়ো হন হাজারও নেতাকর্মী। সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, এই সরকার দেশের গণতন্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে।

সরকারের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানান তিনি।

আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর খুলনা বিভাগে, পহেলা অক্টোবর ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ, তেশরা অক্টোবর ফরিদপুরে ও ৫ই অক্টোবর কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত রোডমার্চ করবে বিএনপি।