ঢাকা ০৩:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
রমাজান মাস উপলক্ষে আগামী ১২ই মার্চ থেকে ৭১ নিউজ বিডির হোম পেজে লাইভ টিভি চালু হবে। ৭১ নিউজ টিভিতে সাহরি এবং ইফতারের আগে লাইভ ইসলামী অনুষ্ঠান ও আযান সম্প্রচার করা হবে।

চীনে উইঘুর শিক্ষাবিদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:০৬:২৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৬৪ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সংখ্যালঘু উইঘুর সম্প্রদায়ের এক শিক্ষাবিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চীন সরকার। তাঁর নাম রাহিল দাউত। রাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিপন্ন করার দায়ে তাঁকে এ সাজা দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ডুই হুয়া ফাউন্ডেশন তাঁর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চত করেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি। ব্রিটিশ এ গণমাধ্যম বলেছে, ২০১৮ সালে রাহিল দাউতের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছিলেন আদালত। ওই সময়েই রাহিল দাউত ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। গত শুক্রবার উচ্চ আদালত তাঁর আপিল খারিজ করে দিয়েছেন।

চীনের জিনজিয়াংয়ে সংখ্যালঘু উইঘুর ও অন্যান্য মুসলিম জাতিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে চীর সরকার মানবতাবিরোধী অপরাধ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, গত কয়েক বছরে চীন ১০ লাখেরও বেশি উইঘুরকে আটক করেছে। এর মধ্যে কয়েক হাজার উইঘুরকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তবে চীন বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাও নিং গত শুক্রবার বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, দাউতের মামলার বিষয়ে তাঁর কাছে কোনও তথ্য নেই।

ডুই হুয়া ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক জন কাম বলেন, প্রফেসর রাহিল দাউতের শাস্তি একটি নিষ্ঠুর ট্র্যাজেডি। এটি উইঘুর জনগণের জন্য একটি বড় ক্ষতি। তাঁকে অবিলম্বে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানাই।

অধ্যাপক রাহিল দাউতের মেয়ে আকেদা পুলতি বলেন, ‘আমি আমার মাকে নিয়ে ভীষণ চিন্তিত। তিনি কোনো অপরাধ করেননি। কীভাবে আমার মা কারাগারে থাকবে, ভাবতেই পারছি না। চীন, তোমার করুণা দেখাও, আমার নির্দোষ মাকে মুক্তি দাও।’

৫৭ বছর বয়সি অধ্যাপক রাহিল দাউতকে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিপন্ন করার অপরাধে ২০১৭ সালে গ্রেপ্তার করেছিল চীন সরকার। পরের বছরের ডিমেস্বরে জিনজিয়াংয়ের একটি আদালতে তাঁর গোপন বিচার সম্পন্ন করা হয়।

ডুই হুয়া ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, তারা চীন সরকারের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে রাহিল দাউতের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

অধ্যাপক রাহিল দাউত জিনজিয়াং ইউনিভার্সিটি কলেজ অফ হিউম্যানিটিজে শিক্ষকতা করতেন। তিনি উইঘুর লোককাহিনী ও ঐতিহ্যের একজন বিশেষজ্ঞ হিসেবে সুপরিচিত।

নিউজটি শেয়ার করুন

চীনে উইঘুর শিক্ষাবিদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আপডেট সময় : ০৭:০৬:২৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সংখ্যালঘু উইঘুর সম্প্রদায়ের এক শিক্ষাবিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চীন সরকার। তাঁর নাম রাহিল দাউত। রাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিপন্ন করার দায়ে তাঁকে এ সাজা দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ডুই হুয়া ফাউন্ডেশন তাঁর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চত করেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি। ব্রিটিশ এ গণমাধ্যম বলেছে, ২০১৮ সালে রাহিল দাউতের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় দিয়েছিলেন আদালত। ওই সময়েই রাহিল দাউত ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। গত শুক্রবার উচ্চ আদালত তাঁর আপিল খারিজ করে দিয়েছেন।

চীনের জিনজিয়াংয়ে সংখ্যালঘু উইঘুর ও অন্যান্য মুসলিম জাতিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে চীর সরকার মানবতাবিরোধী অপরাধ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, গত কয়েক বছরে চীন ১০ লাখেরও বেশি উইঘুরকে আটক করেছে। এর মধ্যে কয়েক হাজার উইঘুরকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তবে চীন বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাও নিং গত শুক্রবার বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, দাউতের মামলার বিষয়ে তাঁর কাছে কোনও তথ্য নেই।

ডুই হুয়া ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক জন কাম বলেন, প্রফেসর রাহিল দাউতের শাস্তি একটি নিষ্ঠুর ট্র্যাজেডি। এটি উইঘুর জনগণের জন্য একটি বড় ক্ষতি। তাঁকে অবিলম্বে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানাই।

অধ্যাপক রাহিল দাউতের মেয়ে আকেদা পুলতি বলেন, ‘আমি আমার মাকে নিয়ে ভীষণ চিন্তিত। তিনি কোনো অপরাধ করেননি। কীভাবে আমার মা কারাগারে থাকবে, ভাবতেই পারছি না। চীন, তোমার করুণা দেখাও, আমার নির্দোষ মাকে মুক্তি দাও।’

৫৭ বছর বয়সি অধ্যাপক রাহিল দাউতকে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিপন্ন করার অপরাধে ২০১৭ সালে গ্রেপ্তার করেছিল চীন সরকার। পরের বছরের ডিমেস্বরে জিনজিয়াংয়ের একটি আদালতে তাঁর গোপন বিচার সম্পন্ন করা হয়।

ডুই হুয়া ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, তারা চীন সরকারের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে রাহিল দাউতের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

অধ্যাপক রাহিল দাউত জিনজিয়াং ইউনিভার্সিটি কলেজ অফ হিউম্যানিটিজে শিক্ষকতা করতেন। তিনি উইঘুর লোককাহিনী ও ঐতিহ্যের একজন বিশেষজ্ঞ হিসেবে সুপরিচিত।