ঢাকা ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

চিরতরে ধ্বংস হয়ে যাবে নিউইয়র্ক শহর!

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৪০:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৩৪৩ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্বপ্নের হাতছানি দিয়ে ডাকে আমেরিকা। উন্নত জীবনের খোঁজে দেশটিতে পাড়ি জমান অনেকেই। আর এ স্বপ্নই সবচেয়ে বড় সংকট তৈরি করছে আমেরিকায়। বিশেষ করে দেশটির অন্যতম প্রধান শহর নিউইয়র্কে। আর সে সংকটের কারণেই চিরতরে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে শহরটি।

নিউইয়র্ক শহরের কর্তৃপক্ষের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, গত বছর শহরটিতে ১ লাখ ১৮ হাজার অভিবাসী এসেছিলেন। এদের মধ্যে শহরের আশ্রয়ণ ব্যবস্থায় বসবাসের সুযোগ দেওয়া গেছে মাত্র ৬০ হাজার মানুষকে। বাকিরা থাকছেন অন্য কোথাও।

কিন্তু যে ৬০ হাজার অভিবাসীকে থাকতে দেওয়া হয়েছে, এদের চাহিদা মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে নিউইয়র্ক শহরের কর্তৃপক্ষ। স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে, আবাসন সংকট এখন এই শহরে প্রকট আকার ধারণ করেছে।

এই অবস্থাকে নিউইয়র্ক শহরের মেয়র এরিক অ্যাডামস বলছেন ‘মানবিক সংকট’। আর এই মানবিক সংকটের কারণেই এই শহর ধ্বংস হয়ে যাবে বলে মনে করেন তিনি।

নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান ও স্থিতিশীল জীবনের জন্য নিউইয়র্ক আসেন বেশির ভাগ অভিবাসী। দক্ষিণ আমেরিকা ও পশ্চিম আফ্রিকা থেকে আসছেন সবচেয়ে বেশি। কিন্তু এদের সামাল দেওয়া এত সহজ কাজ নয়। এত লোক কোথায় রাখবে, তা নিয়েই এখন হিমশিত খেতে হয়। খাবার দেওয়া তো পরের কথা।

এ সংকটের কারণে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দোষারোপ করছেন নিউইয়র্ক শহরের মেয়র এরিক অ্যাডামস ও গভর্নর ক্যাথি হচুল। সরকারি কোষাগার থেকে বাজেট আসছে না বলেই সংকট আরও প্রকট হচ্ছে বলে মনে করেন তাঁরা। আর এ কারণেই আমেরিকার স্বপ্ন এখন দিবাস্বপ্ন হয়ে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

চিরতরে ধ্বংস হয়ে যাবে নিউইয়র্ক শহর!

আপডেট সময় : ০৩:৪০:৪৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ অক্টোবর ২০২৩

স্বপ্নের হাতছানি দিয়ে ডাকে আমেরিকা। উন্নত জীবনের খোঁজে দেশটিতে পাড়ি জমান অনেকেই। আর এ স্বপ্নই সবচেয়ে বড় সংকট তৈরি করছে আমেরিকায়। বিশেষ করে দেশটির অন্যতম প্রধান শহর নিউইয়র্কে। আর সে সংকটের কারণেই চিরতরে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে শহরটি।

নিউইয়র্ক শহরের কর্তৃপক্ষের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, গত বছর শহরটিতে ১ লাখ ১৮ হাজার অভিবাসী এসেছিলেন। এদের মধ্যে শহরের আশ্রয়ণ ব্যবস্থায় বসবাসের সুযোগ দেওয়া গেছে মাত্র ৬০ হাজার মানুষকে। বাকিরা থাকছেন অন্য কোথাও।

কিন্তু যে ৬০ হাজার অভিবাসীকে থাকতে দেওয়া হয়েছে, এদের চাহিদা মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে নিউইয়র্ক শহরের কর্তৃপক্ষ। স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে, আবাসন সংকট এখন এই শহরে প্রকট আকার ধারণ করেছে।

এই অবস্থাকে নিউইয়র্ক শহরের মেয়র এরিক অ্যাডামস বলছেন ‘মানবিক সংকট’। আর এই মানবিক সংকটের কারণেই এই শহর ধ্বংস হয়ে যাবে বলে মনে করেন তিনি।

নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান ও স্থিতিশীল জীবনের জন্য নিউইয়র্ক আসেন বেশির ভাগ অভিবাসী। দক্ষিণ আমেরিকা ও পশ্চিম আফ্রিকা থেকে আসছেন সবচেয়ে বেশি। কিন্তু এদের সামাল দেওয়া এত সহজ কাজ নয়। এত লোক কোথায় রাখবে, তা নিয়েই এখন হিমশিত খেতে হয়। খাবার দেওয়া তো পরের কথা।

এ সংকটের কারণে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দোষারোপ করছেন নিউইয়র্ক শহরের মেয়র এরিক অ্যাডামস ও গভর্নর ক্যাথি হচুল। সরকারি কোষাগার থেকে বাজেট আসছে না বলেই সংকট আরও প্রকট হচ্ছে বলে মনে করেন তাঁরা। আর এ কারণেই আমেরিকার স্বপ্ন এখন দিবাস্বপ্ন হয়ে যাচ্ছে।