১০:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আবারও ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে কানাডা

  • ক্রীড়া ডেস্ক
  • আপডেট : ০৪:৩৭:১০ অপরাহ্ন, রোববার, ৮ অক্টোবর ২০২৩
  • ৬৫ দেখেছেন

আবারও ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে ফিরলো উত্তর আমেরিকার দেশ কানাডা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে এ দেশটি। ২০২৪ সালে আমেরিকা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আসর। সেখানেই দেথা যাবে আমেরিকার প্রতিবেশী কানাডাকে।

প্রথমবার জন্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন কানাডা করা এর আগে একদিনের ক্রিকেটে বিশ্বকাপ খেলেছিল। প্রথমবার সেই ১৯৭৯ সালে। শুধু বিশ্বকাপই নয়, প্রথমবার আন্তর্জাতিক আসরেও অভিষেক হয় দেশটির। গ্রুপ পর্বে তিনটি ম্যাচই হেরেছিল কানাডা।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেখানেই প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিল তারা। সেই ম্যাচে আট উইকেটে হেরেছিল কানাডা। এর পরে ২০০৩, ২০০৭ এবং ২০১১ সালে এক দিনের বিশ্বকাপ খেলেছিল কানাডা। অনেক বছর পরও ক্রিকেটের আরও একটি বিশ্ব আসরে খেলতে যাচ্ছে দেশটি।

শনিবার বারমুডাকে হারিয়ে আমেরিকা মহাদেশের দেশগুলোর মধ্যে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে নেয় কানাডা। বারমুডার বিরুদ্ধে টস জিতে ব্যাটে যায় জাস্টিন ট্রুডোর দেশ। আবহাওয়ার কারণে পুরো ২০ ওভার খেলা হয়নি। ১৮ ওভার করে খেলা হয়।

সেখানে প্রথমে ব্যাট করে ১৩২ রান করে কানাডা। শেষ ওভারে ২০ রান তোলেন নিকোলাস কীর্তন। সেটাই ম্যাচে বড় ভূমিকা নেয়। কানাডার ইনিংসে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে নবনীতের। তিনি করেন ৪৫ রান। বল হাতে কানাডাকে জয় এনে দেন কালিম সানা ও জেরেমি গর্ডন। তারা দু’জনেই তিনটি করে উইকেট নেন।

আবারও ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে কানাডা

আপডেট : ০৪:৩৭:১০ অপরাহ্ন, রোববার, ৮ অক্টোবর ২০২৩

আবারও ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে ফিরলো উত্তর আমেরিকার দেশ কানাডা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে এ দেশটি। ২০২৪ সালে আমেরিকা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আসর। সেখানেই দেথা যাবে আমেরিকার প্রতিবেশী কানাডাকে।

প্রথমবার জন্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন কানাডা করা এর আগে একদিনের ক্রিকেটে বিশ্বকাপ খেলেছিল। প্রথমবার সেই ১৯৭৯ সালে। শুধু বিশ্বকাপই নয়, প্রথমবার আন্তর্জাতিক আসরেও অভিষেক হয় দেশটির। গ্রুপ পর্বে তিনটি ম্যাচই হেরেছিল কানাডা।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেখানেই প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিল তারা। সেই ম্যাচে আট উইকেটে হেরেছিল কানাডা। এর পরে ২০০৩, ২০০৭ এবং ২০১১ সালে এক দিনের বিশ্বকাপ খেলেছিল কানাডা। অনেক বছর পরও ক্রিকেটের আরও একটি বিশ্ব আসরে খেলতে যাচ্ছে দেশটি।

শনিবার বারমুডাকে হারিয়ে আমেরিকা মহাদেশের দেশগুলোর মধ্যে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে নেয় কানাডা। বারমুডার বিরুদ্ধে টস জিতে ব্যাটে যায় জাস্টিন ট্রুডোর দেশ। আবহাওয়ার কারণে পুরো ২০ ওভার খেলা হয়নি। ১৮ ওভার করে খেলা হয়।

সেখানে প্রথমে ব্যাট করে ১৩২ রান করে কানাডা। শেষ ওভারে ২০ রান তোলেন নিকোলাস কীর্তন। সেটাই ম্যাচে বড় ভূমিকা নেয়। কানাডার ইনিংসে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে নবনীতের। তিনি করেন ৪৫ রান। বল হাতে কানাডাকে জয় এনে দেন কালিম সানা ও জেরেমি গর্ডন। তারা দু’জনেই তিনটি করে উইকেট নেন।