০৯:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মার্কিন প্রতিনিধি দলের কথাবার্তা খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে : কাদের

মার্কিন প্রতিনিধি দলের কথাবার্তা খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (৯ অক্টোবর) রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে আওয়ামী লীগের সঙ্গে মার্কিন প্রতিনিধি দলের বৈঠকের পর ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

কাদের বলেন, তাদের কথাবার্তা আমাদের কাছে খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে। তারা কোনো পক্ষ নিয়ে কথা বলেছেন এমন মনে হয়নি। আমরা আমাদের টকশো, টেলিভিশনে দেখি উপস্থাপক পক্ষ নিয়ে ফেলে, কিন্তু এই প্রতিনিধি দল কারো পক্ষে মনে হয়নি। তারা ভায়োলেন্সের আশঙ্কা আছে কিনা, পর্যবেক্ষণ করছেন।

এর আগে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে এ বৈঠক শুরু হয়।

প্রতিনিধি দলে অন্য সদস্যরা হলেন, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মি আহমেদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ এ আরাফাত।

বৈঠকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে মারিয়া চিন বিনতে আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল অংশ নেন। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা ছিলেন- মারিও মাইত্রি, জেমি ক্যানডেন্স সাক্স স্পাইকারম্যান, আকাশ সিসাসাই কুলোরি, ডেনিয়েল মাইকেল রেইলি, জিওফ্রে পিটার ম্যাকডোনাল্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক-নির্বাচন পর্যবেক্ষণ মিশনের এ প্রতিনিধি দল আগামী জাতীয় নির্বাচন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ঢাকায় এসেছে। প্রতিনিধি দলটি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করবে। এরপর আগামী ১০ অক্টোবর বৈঠক করবে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে।

মার্কিন প্রতিনিধি দলের কথাবার্তা খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে : কাদের

আপডেট : ০২:০৯:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৯ অক্টোবর ২০২৩

মার্কিন প্রতিনিধি দলের কথাবার্তা খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (৯ অক্টোবর) রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে আওয়ামী লীগের সঙ্গে মার্কিন প্রতিনিধি দলের বৈঠকের পর ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

কাদের বলেন, তাদের কথাবার্তা আমাদের কাছে খুব ইতিবাচক মনে হয়েছে। তারা কোনো পক্ষ নিয়ে কথা বলেছেন এমন মনে হয়নি। আমরা আমাদের টকশো, টেলিভিশনে দেখি উপস্থাপক পক্ষ নিয়ে ফেলে, কিন্তু এই প্রতিনিধি দল কারো পক্ষে মনে হয়নি। তারা ভায়োলেন্সের আশঙ্কা আছে কিনা, পর্যবেক্ষণ করছেন।

এর আগে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে এ বৈঠক শুরু হয়।

প্রতিনিধি দলে অন্য সদস্যরা হলেন, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মি আহমেদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ এ আরাফাত।

বৈঠকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে মারিয়া চিন বিনতে আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল অংশ নেন। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা ছিলেন- মারিও মাইত্রি, জেমি ক্যানডেন্স সাক্স স্পাইকারম্যান, আকাশ সিসাসাই কুলোরি, ডেনিয়েল মাইকেল রেইলি, জিওফ্রে পিটার ম্যাকডোনাল্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক-নির্বাচন পর্যবেক্ষণ মিশনের এ প্রতিনিধি দল আগামী জাতীয় নির্বাচন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ঢাকায় এসেছে। প্রতিনিধি দলটি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করবে। এরপর আগামী ১০ অক্টোবর বৈঠক করবে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে।