১১:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজায় ফসফরাস বোমা ব্যবহার করছে ইসরায়েল

গাজায় ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ফসফরাস বোমা ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। সেখানে বেসামরিকদের উপর ইসরায়েলের হামলা নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন মহল থেকে। এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে, ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় সাদা ফসফরাস বোমা ব্যবহার করেছে। যার ব্যবহার আন্তর্জাতিক আইনে নিষিদ্ধ।

হামাসের হামলার জবাবে গাজায় নির্বিচার বোমা বর্ষণ করছে ইসরায়েল। এখন পর্যন্ত সেখানে প্রায় ৯০০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েক হাজার। এ ছাড়া আড়াই লাখের বেশি ফিলিস্তিনি বাড়ি-ঘর হারিয়ে উদ্বাস্তুতে পরিণত হয়েছেন।

ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ওয়াফা’র রিপোর্টের বরাত দিয়ে আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি বাহিনী সোমবার (৯ অক্টোবর) দিবাগত রাতের শুরুতে গাজার আল-কারামা এলাকায় সাদা ফসফরাস বোমা ফেলেছে।

তবে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটি উল্লেখ করেছে যে, তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিবেদনটি যাচাই করা তাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি। আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, হোয়াইট ফসফরাসকে (সাদা ফসফরাস বোমা) একটি জ্বালাময়ী অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী বেসামরিকদের মধ্যে অবস্থিত সামরিক লক্ষ্যবস্তুর বিরুদ্ধে এটির ব্যবহার নিষিদ্ধ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আল-কারামা এলাকায় বোমা হামলার দৃশ্যসহ একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স-এ (আগের টুইটার) পোস্ট করেছে। সূত্র: আল জাজিরা, আনাদোলু

গাজায় ফসফরাস বোমা ব্যবহার করছে ইসরায়েল

আপডেট : ০৮:২৩:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩

গাজায় ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ফসফরাস বোমা ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। সেখানে বেসামরিকদের উপর ইসরায়েলের হামলা নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন মহল থেকে। এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে, ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় সাদা ফসফরাস বোমা ব্যবহার করেছে। যার ব্যবহার আন্তর্জাতিক আইনে নিষিদ্ধ।

হামাসের হামলার জবাবে গাজায় নির্বিচার বোমা বর্ষণ করছে ইসরায়েল। এখন পর্যন্ত সেখানে প্রায় ৯০০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েক হাজার। এ ছাড়া আড়াই লাখের বেশি ফিলিস্তিনি বাড়ি-ঘর হারিয়ে উদ্বাস্তুতে পরিণত হয়েছেন।

ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ওয়াফা’র রিপোর্টের বরাত দিয়ে আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি বাহিনী সোমবার (৯ অক্টোবর) দিবাগত রাতের শুরুতে গাজার আল-কারামা এলাকায় সাদা ফসফরাস বোমা ফেলেছে।

তবে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটি উল্লেখ করেছে যে, তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিবেদনটি যাচাই করা তাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি। আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, হোয়াইট ফসফরাসকে (সাদা ফসফরাস বোমা) একটি জ্বালাময়ী অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী বেসামরিকদের মধ্যে অবস্থিত সামরিক লক্ষ্যবস্তুর বিরুদ্ধে এটির ব্যবহার নিষিদ্ধ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আল-কারামা এলাকায় বোমা হামলার দৃশ্যসহ একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স-এ (আগের টুইটার) পোস্ট করেছে। সূত্র: আল জাজিরা, আনাদোলু