০৫:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গুতে ১৩ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ২৪২৫

দেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩ জন ঢাকার এবং ১০ জন ঢাকার বাইরের। এ নিয়ে এ বছর ডেঙ্গুতে মোট প্রাণহানি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১২২ জনে।

আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই সময়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার ৪২৫ জন নতুন রোগী। তাঁদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৫৭৯ জন ও ঢাকার বাইরের ১ হাজার ৮৪৬ জন।

এ নিয়ে চলতি বছর মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়ালো ২ লাখ ৩১ হাজার ২০৪ জনে। আর বর্তমানে সারা দেশে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৮ হাজার ৬৪৭ রোগী। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে দুই হাজার ৬৯০ জন এবং ঢাকার বাইরে পাঁচ হাজার ৯৫৭ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এদিকে, একদিনে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৩৬৭ জন। আর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ২ লাখ ২১ হাজার ৪৩৫ জন।

এছাড়া ঢাকার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ২ হাজার ৬৯০ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৫ হাজার ৯৫৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইইডিসিআরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, চলতি বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত ও মৃত্যুর সরকারি পরিসংখ্যান গত ২৪ বছরের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে দুই লাখ ৩১ হাজার ২০৪ ডেঙ্গুরোগী ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় ৯০ হাজার ৩৯ জন এবং ঢাকার বাইরে এক লাখ ৪১ হাজার ১৬৫ জন রয়েছে। একই সময়ে দেশে মোট ছাড়প্রাপ্ত ডেঙ্গুরোগী দুই লাখ ২১ হাজার ৪৩৫ জন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হওয়ার হার ৯৬ শতাংশ।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট এক হাজার ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৭০৩ জন। আর ঢাকার বাইরে মারা গেছে ৪১৯ জন। আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ।

ডেঙ্গুতে ১৩ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ২৪২৫

আপডেট : ০৩:২১:৫১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩

দেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩ জন ঢাকার এবং ১০ জন ঢাকার বাইরের। এ নিয়ে এ বছর ডেঙ্গুতে মোট প্রাণহানি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১২২ জনে।

আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই সময়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার ৪২৫ জন নতুন রোগী। তাঁদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৫৭৯ জন ও ঢাকার বাইরের ১ হাজার ৮৪৬ জন।

এ নিয়ে চলতি বছর মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়ালো ২ লাখ ৩১ হাজার ২০৪ জনে। আর বর্তমানে সারা দেশে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৮ হাজার ৬৪৭ রোগী। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে দুই হাজার ৬৯০ জন এবং ঢাকার বাইরে পাঁচ হাজার ৯৫৭ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এদিকে, একদিনে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৩৬৭ জন। আর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ২ লাখ ২১ হাজার ৪৩৫ জন।

এছাড়া ঢাকার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ২ হাজার ৬৯০ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৫ হাজার ৯৫৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইইডিসিআরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, চলতি বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত ও মৃত্যুর সরকারি পরিসংখ্যান গত ২৪ বছরের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে দুই লাখ ৩১ হাজার ২০৪ ডেঙ্গুরোগী ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় ৯০ হাজার ৩৯ জন এবং ঢাকার বাইরে এক লাখ ৪১ হাজার ১৬৫ জন রয়েছে। একই সময়ে দেশে মোট ছাড়প্রাপ্ত ডেঙ্গুরোগী দুই লাখ ২১ হাজার ৪৩৫ জন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হওয়ার হার ৯৬ শতাংশ।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট এক হাজার ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৭০৩ জন। আর ঢাকার বাইরে মারা গেছে ৪১৯ জন। আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ।