ঢাকা ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বঙ্গোপসাগরে ২০ ট্রলারসহ নিখোঁজ ২০০ জেলে

বরগুনা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৭:৩২:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩৪৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘মিথিলি’র প্রভাবে এফবি নিশাত নামে একটি মাছ ধরার ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া আরও ২০টি ট্রলারসহ আনুমানিক ২০০ জন জেলে নিখোঁজ রয়েছেন।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বরগুনা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, এফবি নিশাত নামের ডুবে যাওয়া ওই ট্রলারটিতে থাকা ১৮ জেলে জীবিত উদ্ধার হয়েছে এবং নিখোঁজ ২০ ট্রলারে আনুমানিক ২০০ জন জেলে রয়েছেন ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া এমভি নিশাত নামের একটি ট্রলার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কবলে পরে ডুবে যায়। পরে ট্রলারে থাকে ১৮ জেলে অন্য একটি ট্রলারে উঠে নিরাপদে তীরে ফিরে আসে। অপরদিকে আরও ২০টি ট্রলারের সঙ্গে ট্রলার মালিক সমিতি কোনো যোগাযোগ করতে পারছে না। এতে সে সব ট্রলারে থাকা ২০০ জন জেলে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

এ বিষয়ে ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, ডুবে যাওয়া ট্রলারের ১৮ জেলেই জীবিত উদ্ধার হয়েছে। অপরদিকে নিখোঁজ ট্রলারগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বঙ্গোপসাগরে ২০ ট্রলারসহ নিখোঁজ ২০০ জেলে

আপডেট সময় : ০৭:৩২:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর ২০২৩

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘মিথিলি’র প্রভাবে এফবি নিশাত নামে একটি মাছ ধরার ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া আরও ২০টি ট্রলারসহ আনুমানিক ২০০ জন জেলে নিখোঁজ রয়েছেন।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বরগুনা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, এফবি নিশাত নামের ডুবে যাওয়া ওই ট্রলারটিতে থাকা ১৮ জেলে জীবিত উদ্ধার হয়েছে এবং নিখোঁজ ২০ ট্রলারে আনুমানিক ২০০ জন জেলে রয়েছেন ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া এমভি নিশাত নামের একটি ট্রলার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কবলে পরে ডুবে যায়। পরে ট্রলারে থাকে ১৮ জেলে অন্য একটি ট্রলারে উঠে নিরাপদে তীরে ফিরে আসে। অপরদিকে আরও ২০টি ট্রলারের সঙ্গে ট্রলার মালিক সমিতি কোনো যোগাযোগ করতে পারছে না। এতে সে সব ট্রলারে থাকা ২০০ জন জেলে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

এ বিষয়ে ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, ডুবে যাওয়া ট্রলারের ১৮ জেলেই জীবিত উদ্ধার হয়েছে। অপরদিকে নিখোঁজ ট্রলারগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চেষ্টা চলছে।