০৫:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রুশ হামলায় ইউক্রেনে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ৪ শতাধিক শহর

ইউক্রেনে ব্যাপক ড্রোন হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। এতে করে দেশটির দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তরাঞ্চলে ৪ শতাধিক ইউক্রেনীয় শহর-গ্রাম বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গড়েছে। আজ রোববার (১৯ শে নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাতের আঁধারে ইউক্রেনের অবকাঠামোগত বহু স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা শনিবার জানিয়েছেন এতে করে ইউক্রেনের দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত ৪০০ টিরও বেশি শহর ও গ্রাম বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

এদিকে ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে আঘাত হানার সময় ইরানের তৈরি ৩৮টি শাহেদ ড্রোনের মধ্যে ২৯টি ড্রোন ভূপাতিত করার জন্য ইউক্রেনীয় বিমানবাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি তার রাতের ভিডিও ভাষণে বলেন, ‘আপনাদের নির্ভুল কাজই ইউক্রেনের জন্য আক্ষরিক অর্থে জীবন’। তবে তিনি সতর্ক করে বলেন: ‘আমরা শীতের যত কাছে এগিয়ে যাব, রাশিয়ানরা ততই তাদের এই হামলাকে আরও জোরালো করার চেষ্টা করবে।’

ইউক্রেনের জ্বালানি মন্ত্রণালয় বলেছে, দেশের চাহিদা মেটাতে সিস্টেমে পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ থাকলেও রাশিয়ার ড্রোন হামলায় গ্রিডের ক্ষতির কারণে হাজারো গ্রাহক বিদ্যুৎ থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এর আগে রুশ ড্রোন হামলার পর দক্ষিণাঞ্চলীয় ওডেসা অঞ্চলে এবং দক্ষিণ-পূর্বের জাপোরিঝিয়া অঞ্চলে ৪১৬ টি এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলে জানানো হয়।

রয়টার্স বলছে, চলতি বছর ইউক্রেনের শরৎকাল ছিল অস্বাভাবিকভাবে উষ্ণ। তবে তাপমাত্রা কমতে শুরু করার সাথে সাথে ইউক্রেনের বাসিন্দাদের এবং ব্যবসায়ীদের নতুন করে রাশিয়ান হামলার জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

জ্বালানি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওডেসা অঞ্চলে একটি তেল শোধনাগারে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। সেখানকার একটি প্রশাসনিক ভবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং হামলায় একজন বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন বলে দক্ষিণাঞ্চলীয় সামরিক কমান্ড টেলিগ্রাম মেসেজিং অ্যাপে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

রুশ হামলায় ইউক্রেনে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ৪ শতাধিক শহর

আপডেট : ০৭:৩৮:১৩ পূর্বাহ্ন, রোববার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩

ইউক্রেনে ব্যাপক ড্রোন হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। এতে করে দেশটির দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তরাঞ্চলে ৪ শতাধিক ইউক্রেনীয় শহর-গ্রাম বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গড়েছে। আজ রোববার (১৯ শে নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাতের আঁধারে ইউক্রেনের অবকাঠামোগত বহু স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা শনিবার জানিয়েছেন এতে করে ইউক্রেনের দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত ৪০০ টিরও বেশি শহর ও গ্রাম বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

এদিকে ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে আঘাত হানার সময় ইরানের তৈরি ৩৮টি শাহেদ ড্রোনের মধ্যে ২৯টি ড্রোন ভূপাতিত করার জন্য ইউক্রেনীয় বিমানবাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি তার রাতের ভিডিও ভাষণে বলেন, ‘আপনাদের নির্ভুল কাজই ইউক্রেনের জন্য আক্ষরিক অর্থে জীবন’। তবে তিনি সতর্ক করে বলেন: ‘আমরা শীতের যত কাছে এগিয়ে যাব, রাশিয়ানরা ততই তাদের এই হামলাকে আরও জোরালো করার চেষ্টা করবে।’

ইউক্রেনের জ্বালানি মন্ত্রণালয় বলেছে, দেশের চাহিদা মেটাতে সিস্টেমে পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ থাকলেও রাশিয়ার ড্রোন হামলায় গ্রিডের ক্ষতির কারণে হাজারো গ্রাহক বিদ্যুৎ থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এর আগে রুশ ড্রোন হামলার পর দক্ষিণাঞ্চলীয় ওডেসা অঞ্চলে এবং দক্ষিণ-পূর্বের জাপোরিঝিয়া অঞ্চলে ৪১৬ টি এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলে জানানো হয়।

রয়টার্স বলছে, চলতি বছর ইউক্রেনের শরৎকাল ছিল অস্বাভাবিকভাবে উষ্ণ। তবে তাপমাত্রা কমতে শুরু করার সাথে সাথে ইউক্রেনের বাসিন্দাদের এবং ব্যবসায়ীদের নতুন করে রাশিয়ান হামলার জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

জ্বালানি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওডেসা অঞ্চলে একটি তেল শোধনাগারে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। সেখানকার একটি প্রশাসনিক ভবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং হামলায় একজন বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন বলে দক্ষিণাঞ্চলীয় সামরিক কমান্ড টেলিগ্রাম মেসেজিং অ্যাপে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।