ঢাকা ০৮:৫০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
রমাজান মাস উপলক্ষে আগামী ১২ই মার্চ থেকে ৭১ নিউজ বিডির হোম পেজে লাইভ টিভি চালু হবে। ৭১ নিউজ টিভিতে সাহরি এবং ইফতারের আগে লাইভ ইসলামী অনুষ্ঠান ও আযান সম্প্রচার করা হবে।

বাইডেনকে নিয়ে দ্বিধায় আমেরিকার মুসলিম নেতারা

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:৪১:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩৫৫ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গাজায় চলমান যুদ্ধে ইসরায়েলেকে সমর্থন করায় প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন আমেরিকার ছয়টি অঙ্গরাজ্যের মুসলিম নেতারা। তাঁরা চান না আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেন আবার প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হোন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

তবে আমেরিকার মুসলিম নেতারা ২০২৪ সালের নির্বাচনে জো বাইডেনের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীতার বিরুদ্ধ ঐক্যবদ্ধ হলেও তাঁর বিকল্প প্রার্থী কে হবেন, সে বিষয়েও মতৈক্যে পৌছাতে পারেননি।

ছয়টি অঙ্গরাজ্য হচ্ছে—মিনেসোটা, মিশিগান, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, পেনসিলভানিয়া ও ফ্লোরিডা। এর আগে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এসব রাজ্যে জো বাইডেন জয়ী হয়েছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি গাজা ইস্যুতে জো বাইডেন যে অবস্থান নিয়েছেন, তা এসব রাজ্যের বিশাল মুসলিম সম্প্রদায়কে ক্ষুব্ধ করেছে। এই বিক্ষুদ্ধ আরব–আমেরিকান সম্প্রদায় আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ী হওয়ার পথকে নিঃসন্দেহে জটিল করে তুলবে।

গতকাল শনিবার মিনিসোটার কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) চ্যাপ্টারের পরিচালক জয়লানি হুসেন মিশিগানের ডিয়ারবর্নে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমাদের সামনে বিকল্প বলতে শুধু জো বাইডেন আর ডোনাল্ড ট্রাম্পই আছেন, এমন নয়। আমাদের সামনে অনেক বিকল্প রয়েছে। আমরা ডোনল্ড ট্রাম্পকেও সমর্থন করছি না। আমাদের মুসলিম সম্প্রদায়ই সিদ্ধান্ত নেবে, কীভাবে অন্য প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে।

তবে এটি তাঁর ব্যক্তিগত মতামত, সংগঠনের (সিএআইআর) মতামত নয় বলেও জানান জয়লানি হুসেন।

গত ৭ অক্টোবর গাজায় ইসরায়েলে ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর মিনেসোটার মুসলিম আমেরিকানরা ৩১ অক্টোবরের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে ভূমিকা নিতে জো বাইডেনের প্রতি আহ্বান জানান। কিন্তু প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তেমন কোনো উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হলে মিনেসোটার মুসলিম নেতারা হ্যাসট্যাগ অ্যাবানডন বাইডেন বা ‘বাইডেনকে ত্যাগ করো’ আন্দোলন শুরু করেন। পরে দ্রুত তা মিশিগান, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, পেনসিলভানিয়া এবং ফ্লোরিডায় ছড়িয়ে পড়ে।

আমেরিকার মুসলিম নেতারা বলছেন, আগামী নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচিত হলে তাদের সাথে ভালো আচরণ করবেন, এমনটা তারা বিশ্বাস করেন না। আবার জো বাইডেনকেও তারা ভোট দিতে চান না, কারণ ইতিম্যধে তিনি বিশ্বাসভঙ্গ করেছেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা বলছেন, আগামী নির্বাচনে আমেরিকার মুসলিম ভোটাররা ব্যাপকভাবে বাইডেনের বিরুদ্ধ দাঁড়াবেন কি না, তা এখনই সুস্পষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে ২০২০ সালের নির্বাচনে যেসব রাজ্যে বাইডেন জয়ী হয়েছিলেন, সেসব রাজ্যে আগামী নির্বাচনে তাঁর জয়ী হওয়া কিছুটা যে কঠিন হবে, তা হলফ করে বলাই যায়।

সম্প্রতি আরব আমেরিকান ইনস্টিটিউটের এক জরিপে দেখা গেছে, মিশিগান রাজ্যে আরব–আমেরিকানদের মধ্যে জো বাইডেনের প্রতি সমর্থন ২০২০ সালের তুলনায় ১৭ শতাংশ কমে এসেছে। অথচ এই রাজ্যে ২০২০ সালের নির্বাচনে জো বাইডেন মুসলিমদের ৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন।

উইসকনসিন রাজ্যে প্রায় ২৫ হাজার মুসলিম ভোটার রয়েছে। এই রাজ্যে গত নির্বাচনে বাইডেন ২০ হাজার ভোটে জিতেছিলেন। কিন্তু আগামী নির্বাচনে এই চিত্র পাল্টে যেতে পারে। উইসকনসিনের মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্বকারী নেতা তারেক আমিন বলেন, আগামী নির্বাচনে আমরা অবশ্যই সমর্থন পাল্টাব। বাইডেনকে একটা ঝাঁকুনি দিতে চাই আমরা।

২০২০ সালের নির্বাচনে অ্যারিজোনা রাজ্যে বাইডেন প্রায় সাড়ে ১০ হাজার ভোটে জিতেছিলেন। রাজ্যটিতে মুসলিম ভোটার রয়েছে ২৫ হাজারেরও বেশি। ওই রাজ্যে বসবাসকারী হাজিম নাসারেদেন নামের এক ব্যক্তি বলেন, আমরা এমন কোনো মানুষের পাশে দাঁড়াব না, যিনি রক্তের লাল ফোঁটায় নীল সমুদ্রকে কলঙ্কিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বাইডেনকে নিয়ে দ্বিধায় আমেরিকার মুসলিম নেতারা

আপডেট সময় : ০৬:৪১:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

গাজায় চলমান যুদ্ধে ইসরায়েলেকে সমর্থন করায় প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন আমেরিকার ছয়টি অঙ্গরাজ্যের মুসলিম নেতারা। তাঁরা চান না আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেন আবার প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হোন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

তবে আমেরিকার মুসলিম নেতারা ২০২৪ সালের নির্বাচনে জো বাইডেনের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীতার বিরুদ্ধ ঐক্যবদ্ধ হলেও তাঁর বিকল্প প্রার্থী কে হবেন, সে বিষয়েও মতৈক্যে পৌছাতে পারেননি।

ছয়টি অঙ্গরাজ্য হচ্ছে—মিনেসোটা, মিশিগান, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, পেনসিলভানিয়া ও ফ্লোরিডা। এর আগে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এসব রাজ্যে জো বাইডেন জয়ী হয়েছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি গাজা ইস্যুতে জো বাইডেন যে অবস্থান নিয়েছেন, তা এসব রাজ্যের বিশাল মুসলিম সম্প্রদায়কে ক্ষুব্ধ করেছে। এই বিক্ষুদ্ধ আরব–আমেরিকান সম্প্রদায় আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ী হওয়ার পথকে নিঃসন্দেহে জটিল করে তুলবে।

গতকাল শনিবার মিনিসোটার কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) চ্যাপ্টারের পরিচালক জয়লানি হুসেন মিশিগানের ডিয়ারবর্নে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমাদের সামনে বিকল্প বলতে শুধু জো বাইডেন আর ডোনাল্ড ট্রাম্পই আছেন, এমন নয়। আমাদের সামনে অনেক বিকল্প রয়েছে। আমরা ডোনল্ড ট্রাম্পকেও সমর্থন করছি না। আমাদের মুসলিম সম্প্রদায়ই সিদ্ধান্ত নেবে, কীভাবে অন্য প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে।

তবে এটি তাঁর ব্যক্তিগত মতামত, সংগঠনের (সিএআইআর) মতামত নয় বলেও জানান জয়লানি হুসেন।

গত ৭ অক্টোবর গাজায় ইসরায়েলে ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর মিনেসোটার মুসলিম আমেরিকানরা ৩১ অক্টোবরের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে ভূমিকা নিতে জো বাইডেনের প্রতি আহ্বান জানান। কিন্তু প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তেমন কোনো উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হলে মিনেসোটার মুসলিম নেতারা হ্যাসট্যাগ অ্যাবানডন বাইডেন বা ‘বাইডেনকে ত্যাগ করো’ আন্দোলন শুরু করেন। পরে দ্রুত তা মিশিগান, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, পেনসিলভানিয়া এবং ফ্লোরিডায় ছড়িয়ে পড়ে।

আমেরিকার মুসলিম নেতারা বলছেন, আগামী নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচিত হলে তাদের সাথে ভালো আচরণ করবেন, এমনটা তারা বিশ্বাস করেন না। আবার জো বাইডেনকেও তারা ভোট দিতে চান না, কারণ ইতিম্যধে তিনি বিশ্বাসভঙ্গ করেছেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা বলছেন, আগামী নির্বাচনে আমেরিকার মুসলিম ভোটাররা ব্যাপকভাবে বাইডেনের বিরুদ্ধ দাঁড়াবেন কি না, তা এখনই সুস্পষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে ২০২০ সালের নির্বাচনে যেসব রাজ্যে বাইডেন জয়ী হয়েছিলেন, সেসব রাজ্যে আগামী নির্বাচনে তাঁর জয়ী হওয়া কিছুটা যে কঠিন হবে, তা হলফ করে বলাই যায়।

সম্প্রতি আরব আমেরিকান ইনস্টিটিউটের এক জরিপে দেখা গেছে, মিশিগান রাজ্যে আরব–আমেরিকানদের মধ্যে জো বাইডেনের প্রতি সমর্থন ২০২০ সালের তুলনায় ১৭ শতাংশ কমে এসেছে। অথচ এই রাজ্যে ২০২০ সালের নির্বাচনে জো বাইডেন মুসলিমদের ৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন।

উইসকনসিন রাজ্যে প্রায় ২৫ হাজার মুসলিম ভোটার রয়েছে। এই রাজ্যে গত নির্বাচনে বাইডেন ২০ হাজার ভোটে জিতেছিলেন। কিন্তু আগামী নির্বাচনে এই চিত্র পাল্টে যেতে পারে। উইসকনসিনের মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্বকারী নেতা তারেক আমিন বলেন, আগামী নির্বাচনে আমরা অবশ্যই সমর্থন পাল্টাব। বাইডেনকে একটা ঝাঁকুনি দিতে চাই আমরা।

২০২০ সালের নির্বাচনে অ্যারিজোনা রাজ্যে বাইডেন প্রায় সাড়ে ১০ হাজার ভোটে জিতেছিলেন। রাজ্যটিতে মুসলিম ভোটার রয়েছে ২৫ হাজারেরও বেশি। ওই রাজ্যে বসবাসকারী হাজিম নাসারেদেন নামের এক ব্যক্তি বলেন, আমরা এমন কোনো মানুষের পাশে দাঁড়াব না, যিনি রক্তের লাল ফোঁটায় নীল সমুদ্রকে কলঙ্কিত করেছেন।