ঢাকা ০৮:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
রমাজান মাস উপলক্ষে আগামী ১২ই মার্চ থেকে ৭১ নিউজ বিডির হোম পেজে লাইভ টিভি চালু হবে। ৭১ নিউজ টিভিতে সাহরি এবং ইফতারের আগে লাইভ ইসলামী অনুষ্ঠান ও আযান সম্প্রচার করা হবে।

ইমরান খান ও তার স্ত্রীর আরও ৭ বছরের কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৪:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৩৪৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শরিয়াহ আইন লঙ্ঘন করে বিয়ে করার দায়ে এবার পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দী ইমরান খান ও তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবিকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্য ডন বলছে, শনিবার একটি আদালত এই রায় দেন। এ ছাড়া তাঁদের ৫ লাখ রুপি করে জরিমানা করেছেন আদালত।

রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারের একটি অস্থায়ী আদালতে ইমরান ও বুশরা দম্পতির বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করা হয়। রায় ঘোষণার সময় বিশেষ ওই আদালতে উপস্থিত ছিলেন ইমরান খান ও বুশরা বিবি। বুশরা বিবির সাবেক স্বামী খাওয়ার ফরিদ মানেকা এই মামলা করেছিলেন।

মামলায় খাওয়ার ফরিদ বলেন, তাঁর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর নির্দিষ্ট সময় পার না হতেই ইমরান খানকে বিয়ে করেন বুশরা বিবি, যা স্পষ্টতই শরিয়াহ আইনের লঙ্ঘন। ২০১৮ সালে ইমরান ও বুশরা বিয়ে করেছিলেন বলে জানা যায়।

নির্বাচনের আগে ইমরান খানকে যেন চেপে ধরেছেন পাকিস্তানের আইন বিভাগ। আলোচিত তোষাখানা দুর্নীতি মামলায় ইমরান ও তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবিকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড এবং ৭৮ কোটি ৭০ লাখ রুপি জরিমানা করেন দেশটির একটি আদালত। গত বুধবার এই রায় ঘোষণা করেন ইসলামাবাদের জবাবদিহিতা আদালত (অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্ট)।

এর আগে মঙ্গলবারই কূটনৈতিক তারবার্তা (সাইফার) ফাঁসের মামলায় ইমরান খান ও তাঁর সরকারের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির বিশেষ আদালত। বর্তমানে ইমরান কারাগারে আছেন। নির্বাচনে লড়ার যোগ্যতাও হারিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ইমরান খান ও তার স্ত্রীর আরও ৭ বছরের কারাদণ্ড

আপডেট সময় : ০৩:৫৪:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শরিয়াহ আইন লঙ্ঘন করে বিয়ে করার দায়ে এবার পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দী ইমরান খান ও তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবিকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্য ডন বলছে, শনিবার একটি আদালত এই রায় দেন। এ ছাড়া তাঁদের ৫ লাখ রুপি করে জরিমানা করেছেন আদালত।

রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারের একটি অস্থায়ী আদালতে ইমরান ও বুশরা দম্পতির বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করা হয়। রায় ঘোষণার সময় বিশেষ ওই আদালতে উপস্থিত ছিলেন ইমরান খান ও বুশরা বিবি। বুশরা বিবির সাবেক স্বামী খাওয়ার ফরিদ মানেকা এই মামলা করেছিলেন।

মামলায় খাওয়ার ফরিদ বলেন, তাঁর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর নির্দিষ্ট সময় পার না হতেই ইমরান খানকে বিয়ে করেন বুশরা বিবি, যা স্পষ্টতই শরিয়াহ আইনের লঙ্ঘন। ২০১৮ সালে ইমরান ও বুশরা বিয়ে করেছিলেন বলে জানা যায়।

নির্বাচনের আগে ইমরান খানকে যেন চেপে ধরেছেন পাকিস্তানের আইন বিভাগ। আলোচিত তোষাখানা দুর্নীতি মামলায় ইমরান ও তাঁর স্ত্রী বুশরা বিবিকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড এবং ৭৮ কোটি ৭০ লাখ রুপি জরিমানা করেন দেশটির একটি আদালত। গত বুধবার এই রায় ঘোষণা করেন ইসলামাবাদের জবাবদিহিতা আদালত (অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্ট)।

এর আগে মঙ্গলবারই কূটনৈতিক তারবার্তা (সাইফার) ফাঁসের মামলায় ইমরান খান ও তাঁর সরকারের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির বিশেষ আদালত। বর্তমানে ইমরান কারাগারে আছেন। নির্বাচনে লড়ার যোগ্যতাও হারিয়েছেন।