ঢাকা ০৫:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পৃথিবী ধ্বংস হতে আর মাত্র ৩৬ বছর বাকি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫০:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৩৬৩ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পৃথিবী কবে ধ্বংস হবে? বছরের পর বছর ধরেই এই প্রশ্ন মানুষের মনে। ধর্মগ্রন্থগুলোতে রয়েছে আভাস, বিজ্ঞানীরা করছেন গবেষণা। প্রথম সারির পদার্থবিদ স্যার আইজ্যাক নিউটনই বা বাদ যাবেন কেন? তিনিও সমীকরণ কষে বের করেছিলেন পৃথিবী ধ্বংসের সময়। সেইদিন আর বেশি দূরে নয়। আর মাত্র ৩৬ বছর বাকি।

সংবাদমাধ্যম লেডবাইবেল বলছে, একাধারে পদার্থবিদ, গণিতবিদ ও জ্যোতির্বিদ ছিলেন নিউটন। এ ছাড়া আরও অনেক প্রতিভা ছিল তাঁর। কানাডার নিউটন প্রজেক্টের পরিচালক স্টিফেন স্নোবেলেন বলছেন, নিউটন ধর্মবিশ্বাসী ছিলেন। প্রায়ই বাইবেলের বিভিন্ন কথা বলতেন।

একটি ব্লগে পোস্ট করে স্টিফেন স্নোবেল বলেন, ‘নিউটন ঈশ্বরে বিশ্বাস করতেন, বাইবেলেও তার বিশ্বাস ছিল। এ কারণে তিনি বিশ্বাস করতেন, একদিন পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে। তবে বাইবেলের ভাষা সরাসরি না ব্যবহার করে, তা থেকে তথ্য নিয়ে করতেন হিসাবনিকাশ।’

এমনই এক হিসাবনিকাশের মাধ্যমে পৃথিবী ধ্বংসের ব্যাপারে ভবিষ্যদ্বাণী করেন নিউটন। এই বিজ্ঞানীর মতে, আগামী ২০৬০ সালে পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে।

এ ছাড়া ওই সময় বিশ্বের প্রচুর যুদ্ধ হবে বলেই ভবিষ্যদ্বাণী করেন নিউটন, যার নমুনা কয়েক বছর ধরেই দেখা যাচ্ছে। তবে তিনি বলেন, ওই সময় নতুন শুরু হতে পারে। পুরোনো পৃথিবী ধ্বংস হয়ে নতুন যুগের সূচনা হতে পারে।

এতে বাইবেলের বিভিন্ন ব্যাখ্যাও যুক্ত করেছিলেন নিউটন। তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি হবে কিনা—তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আরও ৩৬ বছর।

নিউজটি শেয়ার করুন

পৃথিবী ধ্বংস হতে আর মাত্র ৩৬ বছর বাকি

আপডেট সময় : ০৮:৫০:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পৃথিবী কবে ধ্বংস হবে? বছরের পর বছর ধরেই এই প্রশ্ন মানুষের মনে। ধর্মগ্রন্থগুলোতে রয়েছে আভাস, বিজ্ঞানীরা করছেন গবেষণা। প্রথম সারির পদার্থবিদ স্যার আইজ্যাক নিউটনই বা বাদ যাবেন কেন? তিনিও সমীকরণ কষে বের করেছিলেন পৃথিবী ধ্বংসের সময়। সেইদিন আর বেশি দূরে নয়। আর মাত্র ৩৬ বছর বাকি।

সংবাদমাধ্যম লেডবাইবেল বলছে, একাধারে পদার্থবিদ, গণিতবিদ ও জ্যোতির্বিদ ছিলেন নিউটন। এ ছাড়া আরও অনেক প্রতিভা ছিল তাঁর। কানাডার নিউটন প্রজেক্টের পরিচালক স্টিফেন স্নোবেলেন বলছেন, নিউটন ধর্মবিশ্বাসী ছিলেন। প্রায়ই বাইবেলের বিভিন্ন কথা বলতেন।

একটি ব্লগে পোস্ট করে স্টিফেন স্নোবেল বলেন, ‘নিউটন ঈশ্বরে বিশ্বাস করতেন, বাইবেলেও তার বিশ্বাস ছিল। এ কারণে তিনি বিশ্বাস করতেন, একদিন পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে। তবে বাইবেলের ভাষা সরাসরি না ব্যবহার করে, তা থেকে তথ্য নিয়ে করতেন হিসাবনিকাশ।’

এমনই এক হিসাবনিকাশের মাধ্যমে পৃথিবী ধ্বংসের ব্যাপারে ভবিষ্যদ্বাণী করেন নিউটন। এই বিজ্ঞানীর মতে, আগামী ২০৬০ সালে পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে।

এ ছাড়া ওই সময় বিশ্বের প্রচুর যুদ্ধ হবে বলেই ভবিষ্যদ্বাণী করেন নিউটন, যার নমুনা কয়েক বছর ধরেই দেখা যাচ্ছে। তবে তিনি বলেন, ওই সময় নতুন শুরু হতে পারে। পুরোনো পৃথিবী ধ্বংস হয়ে নতুন যুগের সূচনা হতে পারে।

এতে বাইবেলের বিভিন্ন ব্যাখ্যাও যুক্ত করেছিলেন নিউটন। তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি হবে কিনা—তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আরও ৩৬ বছর।