ঢাকা ০৬:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রাখাইনের রাজধানী ছাড়ছেন আতঙ্কিত মানুষেরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:২৮:১৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৫৭ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মিয়ানমারের সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মি (এএ) দেশটির রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিত্তেতে হামলা চালাতে পারে। এই আশঙ্কায় সিত্তে ছেড়ে পালাচ্ছেন হাজার হাজার স্থানীয় বাসিন্দা। রাখাইনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নারিনজারা নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, আরাকান আর্মিরা সিত্তে দখল করতে পারে, এমন খবর শোনার পর স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তারা স্বাধীন অঞ্চলগুলোর দিকে আশ্রয়ের খোঁজে যাচ্ছেন।

এদিকে সিত্তেতে আরাকান আর্মির প্রবেশ ঠেকাতে ইয়াঙ্গুন-সিত্তে মহাসড়কের আহ মিয়ান্ট কায়ুন মিন চং উড়িয়ে দিয়েছে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা। এরপরই স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, গুরুত্বপূর্ণ এই সেতুটি উড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে কার্যত এই এলাকার মানুষদের আটকে ফেলা হয়েছে। যদি যুদ্ধ শুরু হয়, তাহলে কীভাবে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে যাবে, তা নিয়ে আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ।

এমন পরিস্থিতিতে হাজার হাজার মানুষ নৌকায় করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলছেন, নদীর এক পাশ থেকে অপর পাশে যেতে এখন জনপ্রতি ৫০ হাজার কিয়েট খরচ করতে হচ্ছে।

এ ছাড়া জান্তা বাহিনী স্থানীয়দের পালাতে বাধা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, আরাকান আর্মির হামলার সময় জান্তারা যাতে সাধারণ মানুষদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করতে পারে, সেই উদ্দ্যেশেই তাদের পালাতে দেওয়া হচ্ছে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

রাখাইনের রাজধানী ছাড়ছেন আতঙ্কিত মানুষেরা

আপডেট সময় : ০৬:২৮:১৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

মিয়ানমারের সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মি (এএ) দেশটির রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিত্তেতে হামলা চালাতে পারে। এই আশঙ্কায় সিত্তে ছেড়ে পালাচ্ছেন হাজার হাজার স্থানীয় বাসিন্দা। রাখাইনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নারিনজারা নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, আরাকান আর্মিরা সিত্তে দখল করতে পারে, এমন খবর শোনার পর স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তারা স্বাধীন অঞ্চলগুলোর দিকে আশ্রয়ের খোঁজে যাচ্ছেন।

এদিকে সিত্তেতে আরাকান আর্মির প্রবেশ ঠেকাতে ইয়াঙ্গুন-সিত্তে মহাসড়কের আহ মিয়ান্ট কায়ুন মিন চং উড়িয়ে দিয়েছে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা। এরপরই স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, গুরুত্বপূর্ণ এই সেতুটি উড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে কার্যত এই এলাকার মানুষদের আটকে ফেলা হয়েছে। যদি যুদ্ধ শুরু হয়, তাহলে কীভাবে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে যাবে, তা নিয়ে আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ।

এমন পরিস্থিতিতে হাজার হাজার মানুষ নৌকায় করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলছেন, নদীর এক পাশ থেকে অপর পাশে যেতে এখন জনপ্রতি ৫০ হাজার কিয়েট খরচ করতে হচ্ছে।

এ ছাড়া জান্তা বাহিনী স্থানীয়দের পালাতে বাধা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, আরাকান আর্মির হামলার সময় জান্তারা যাতে সাধারণ মানুষদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করতে পারে, সেই উদ্দ্যেশেই তাদের পালাতে দেওয়া হচ্ছে না।