ঢাকা ০৯:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

৪১ পেরিয়ে ৪২ বছরে জি-সিরিজ

বিনোদন প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১০:৪৭:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৮৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দেশের প্রথম সারির অডিও-ভিডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জি-সিরিজ। অডিও জগতের অন্যতম পথিকৃৎ। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রতিষ্ঠানটি পার করে ফেলেছে চার দশক। দেখতে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি ৪১ পেরিয়ে ৪২ বছরে পা রাখলো।

আগামীকাল রোববার (৩ মার্চ) জি-সিরিজের ৪১ বছর পূর্তি। জি-সিরিজ পরিবারের সুদীর্ঘ যাত্রার শুভক্ষণকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যলয়ে কেক কাটাসহ নানা আয়োজন করা হয়েছে। আনন্দ আয়োজনে দিনটি উদযাপিত হবে।

দীর্ঘ পথচলা প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার নাজমুল হক ভূঁইয়া (খালেদ) বলেন, মনে হচ্ছে এই তো সেদিন জি-সিরিজের যাত্রা শুরু হয়েছে। দেখতে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি ৪১ বছর পূর্ণ করেছে। কিভাবে যে চার দশক চলে গেছে টেরই পাইনি। বিগত দিনগুলোর মত আগামী দিনগুলোতেও দেশের সব গুণী শিল্পীদের নিয়ে কাজ করবে জি-সিরিজ। পাশাপাশি নতুন প্রতিভাবানদের নিয়ে কাজ করা অব্যাহত রাখবে। বিগত বছরগুলোর মতো আগামী বছরগুলোতেও সবার অকৃত্রিম ভালোবাসা আর সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যাবো। বর্ষপূর্তিতে আমাদের সব শ্রোতা-দর্শক, শিল্পী-কলাকুশলী ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা।

শিল্প অনুরাগী নাজমুল হক ভূঁইয়া (খালেদ) ১৯৮৩ সালে জি-সিরিজের যাত্রা শুরু করেন। তার মেধা, মনন এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বে জি-সিরিজ এখন দেশের প্রথমসারির একটি প্রযোজনা সংস্থা হিসেবে সুনামের সঙ্গে এগিয়ে চলছে। শুরু থেকেই দেশীয় শিল্প-সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি দেশসেরা নন্দিত সঙ্গীতশিল্পীসহ নতুন প্রজন্মের প্রতিভা বিকাশেও অনন্য অবদান রেখে চলেছে জি-সিরিজ।

বাংলাদেশের সঙ্গীত ভুবনের বহু প্রতিষ্ঠিত গীতিকার, সুরকার এবং সঙ্গীত শিল্পীদের যাত্রা শুরু হয়েছিল এ প্রতিষ্ঠানটির হাত ধরেই। জি-সিরিজের নামকরণ করা হয়েছে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিখ্যাত কবিতাগ্রন্থ গীতাঞ্জলির ইংরেজি প্রথম বর্ণ ‘জি’-কে গুরুত্ব দিয়েই। এছাড়া গায়া, গ্লোবাল ও গ্রাউন্ড এ শব্দগুলোর প্রথম বর্ণ ‘জি’। গায়া, গ্রাউন্ড ও গ্লোবালের বৈশিষ্ট্য অনুসরণের নীতি ও অনুমিতি জি-সিরিজের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

প্রতিষ্ঠানটি বাংলা গানের ক্যাসেট/অ্যালবাম, সিডি, ভিসিডি, মিউজিক ভিডিও প্রকাশনাসহ নাটক, টেলিফিল্ম, সিনেমা এবং ভিডিও ডকুমেন্টারির প্রযোজনা-পরিবেশনা করে আসছে।

প্রসঙ্গত, জি-সিরিজ ২০০৬ সালে অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে ‘অগ্নিবীণা’ প্রতিষ্ঠা করে। যার নামকরণ করা হয় বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বিখ্যাত কবিতাগ্রন্থ অগ্নিবীণা থেকে। পরবর্তীতে ‘জি-টেকনলজিস’, ‘রেডিও জি বিডি ডটনেট’ জি-সিরিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।

এ ছাড়াও ৭ বছর আগে জি-সিরিজের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেশাত্মবোধ ও বস্তুনিষ্ঠতার দায় থেকে সংবাদমাধ্যমে নতুন উদ্যমে যাত্রা করে ‘নিউজজি টোয়েন্টিফোর ডটকম’ নামের অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সেই অর্থে এদিন ‘নিউজজি টোয়েন্টিফোর ডটকম’-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীও। এদিন নিউজজি পা রাখলো ৮ বছরে।

একই সঙ্গে জি-সিরিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে ই-কমার্স ব্যবসা। যার নাম বিক্রয়বাবাডটকম (http://www.bikroybaba.com/)। এছাড়া, জি প্রাইম (https://gprimeapp.com/) নামের আরো একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান যুক্ত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

৪১ পেরিয়ে ৪২ বছরে জি-সিরিজ

আপডেট সময় : ১০:৪৭:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

দেশের প্রথম সারির অডিও-ভিডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জি-সিরিজ। অডিও জগতের অন্যতম পথিকৃৎ। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রতিষ্ঠানটি পার করে ফেলেছে চার দশক। দেখতে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি ৪১ পেরিয়ে ৪২ বছরে পা রাখলো।

আগামীকাল রোববার (৩ মার্চ) জি-সিরিজের ৪১ বছর পূর্তি। জি-সিরিজ পরিবারের সুদীর্ঘ যাত্রার শুভক্ষণকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যলয়ে কেক কাটাসহ নানা আয়োজন করা হয়েছে। আনন্দ আয়োজনে দিনটি উদযাপিত হবে।

দীর্ঘ পথচলা প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার নাজমুল হক ভূঁইয়া (খালেদ) বলেন, মনে হচ্ছে এই তো সেদিন জি-সিরিজের যাত্রা শুরু হয়েছে। দেখতে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি ৪১ বছর পূর্ণ করেছে। কিভাবে যে চার দশক চলে গেছে টেরই পাইনি। বিগত দিনগুলোর মত আগামী দিনগুলোতেও দেশের সব গুণী শিল্পীদের নিয়ে কাজ করবে জি-সিরিজ। পাশাপাশি নতুন প্রতিভাবানদের নিয়ে কাজ করা অব্যাহত রাখবে। বিগত বছরগুলোর মতো আগামী বছরগুলোতেও সবার অকৃত্রিম ভালোবাসা আর সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যাবো। বর্ষপূর্তিতে আমাদের সব শ্রোতা-দর্শক, শিল্পী-কলাকুশলী ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা।

শিল্প অনুরাগী নাজমুল হক ভূঁইয়া (খালেদ) ১৯৮৩ সালে জি-সিরিজের যাত্রা শুরু করেন। তার মেধা, মনন এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বে জি-সিরিজ এখন দেশের প্রথমসারির একটি প্রযোজনা সংস্থা হিসেবে সুনামের সঙ্গে এগিয়ে চলছে। শুরু থেকেই দেশীয় শিল্প-সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি দেশসেরা নন্দিত সঙ্গীতশিল্পীসহ নতুন প্রজন্মের প্রতিভা বিকাশেও অনন্য অবদান রেখে চলেছে জি-সিরিজ।

বাংলাদেশের সঙ্গীত ভুবনের বহু প্রতিষ্ঠিত গীতিকার, সুরকার এবং সঙ্গীত শিল্পীদের যাত্রা শুরু হয়েছিল এ প্রতিষ্ঠানটির হাত ধরেই। জি-সিরিজের নামকরণ করা হয়েছে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিখ্যাত কবিতাগ্রন্থ গীতাঞ্জলির ইংরেজি প্রথম বর্ণ ‘জি’-কে গুরুত্ব দিয়েই। এছাড়া গায়া, গ্লোবাল ও গ্রাউন্ড এ শব্দগুলোর প্রথম বর্ণ ‘জি’। গায়া, গ্রাউন্ড ও গ্লোবালের বৈশিষ্ট্য অনুসরণের নীতি ও অনুমিতি জি-সিরিজের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

প্রতিষ্ঠানটি বাংলা গানের ক্যাসেট/অ্যালবাম, সিডি, ভিসিডি, মিউজিক ভিডিও প্রকাশনাসহ নাটক, টেলিফিল্ম, সিনেমা এবং ভিডিও ডকুমেন্টারির প্রযোজনা-পরিবেশনা করে আসছে।

প্রসঙ্গত, জি-সিরিজ ২০০৬ সালে অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে ‘অগ্নিবীণা’ প্রতিষ্ঠা করে। যার নামকরণ করা হয় বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বিখ্যাত কবিতাগ্রন্থ অগ্নিবীণা থেকে। পরবর্তীতে ‘জি-টেকনলজিস’, ‘রেডিও জি বিডি ডটনেট’ জি-সিরিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।

এ ছাড়াও ৭ বছর আগে জি-সিরিজের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দেশাত্মবোধ ও বস্তুনিষ্ঠতার দায় থেকে সংবাদমাধ্যমে নতুন উদ্যমে যাত্রা করে ‘নিউজজি টোয়েন্টিফোর ডটকম’ নামের অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সেই অর্থে এদিন ‘নিউজজি টোয়েন্টিফোর ডটকম’-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীও। এদিন নিউজজি পা রাখলো ৮ বছরে।

একই সঙ্গে জি-সিরিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে ই-কমার্স ব্যবসা। যার নাম বিক্রয়বাবাডটকম (http://www.bikroybaba.com/)। এছাড়া, জি প্রাইম (https://gprimeapp.com/) নামের আরো একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান যুক্ত হয়েছে।