ঢাকা ০৯:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ইন্ডিয়ান আইডলে চ্যাম্পিয়ন হলেন বৈভব

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৮:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৬৯ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নতুন চ্যাম্পিয়ন পেল জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ইন্ডিয়ান আইডল। রোববার (৩ মার্চ) বসেছিল অনুষ্ঠানটির ১৪ নম্বর সিজনের গ্র্যান্ড ফিনালে। শীর্ষে থাকা ৬ জনে মধ্যে হয়েছে জমাট লড়াই। তাঁরা হলেন কলকাতার অনন্যা পাল ও শুভদীপ দাস চৌধুরী, ফরিদাবাদের আদ্য মিশ্র, বেঙ্গালুরুর অঞ্জনা পদ্মনাভন, কানপুরের বৈভব গুপ্তা, রাজস্থানের পীযুশ পানওয়ার।

অবশেষে শুভদীপ দাস চৌধুরীকে হারিয়ে ট্রফি জিতে নেন বৈভব। ট্রফি ও ২৫ লাখ রুপির চেক ছাড়াও একটি মারুতি সুজুকি ব্রেজা গাড়ি উপহার পেয়েছেন বৈভব।

এবারের আসরে প্রথম ও দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন যথাক্রমে শুভদীপ দাস চৌধুরী ও পিয়ুশ পানওয়ার। তারা দুজনেই পেয়েছেন ৫ লাখ রুপি করে। তৃতীয় রানার আপ হয়ে তিন লাখ রুপি পেয়েছেন অনন্যা পাল।

বৈভব জানান, শো-এর ট্রফি জেতা তাঁর কাছে স্বপ্নের চেয়ে কম নয়। এমন দিনে প্রয়াত মাকে মনে করেন তিনি। বৈভব বলেন, ‘ভবিষ্যতে সালমান খান ও রণবীর সিংয়ের জন্য প্লেব্যাক করতে চাই। এত দূর আসতে পারব ভাবিনি। তবে যখন এসেছি একদিন আমার সেই স্বপ্নও পূরণ হবে বলে আশা রাখি।’

গ্র্যান্ড ফিনালের এই আসরে বিচারকের আসনে ছিলেন কণ্ঠশিল্পী শ্রেয়া ঘোষাল, বিশাল দাদলানি ও কুমার শানু। ফাইনালের শুরুতেই শ্রেয়া ঘোষণা দেন ৩ ঘণ্টায় থাকবে ৩টি চ্যালেঞ্জ। আর এই ৩ চ্যালেঞ্জের শেষেই বেছে নেওয়া হবে এবারের বিজেতা।

জানা যায়, এবারের ইন্ডিয়ান আইডলে প্রথম রাউন্ড ছিল ‘হিট লিস্ট চ্যালেঞ্জ’। যেখানে বেঙ্গালুরুর মেয়ে অঞ্জনা পদ্মনাভন গেয়েছেন ‘ঝুম ঝুম ঝুম বাবা’। শুভদীপ দাস চৌধুরী গেয়েছিলেন ‘মিতওয়া’। আর অনন্যা পালের কণ্ঠে শোনা যায় ‘মণিকা ও মাই ডার্লিং’। আদ্যা ও অনন্যা এই রাউন্ডে ছিলেন সবার শেষে। তবে বাদ পড়েন আদ্যা, ভাগ্য খোলে অনন্যারই।

এরপরের রাউন্ড ছিল ‘সিম্ফোনি চ্যালেঞ্জ’। এই রাউন্ডে ৫ ফাইনালিস্টই অসাধারণ পারফর্ম করেন। তবে বাদ পড়েন অঞ্জনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ইন্ডিয়ান আইডলে চ্যাম্পিয়ন হলেন বৈভব

আপডেট সময় : ০৫:৫৮:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০২৪

নতুন চ্যাম্পিয়ন পেল জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ইন্ডিয়ান আইডল। রোববার (৩ মার্চ) বসেছিল অনুষ্ঠানটির ১৪ নম্বর সিজনের গ্র্যান্ড ফিনালে। শীর্ষে থাকা ৬ জনে মধ্যে হয়েছে জমাট লড়াই। তাঁরা হলেন কলকাতার অনন্যা পাল ও শুভদীপ দাস চৌধুরী, ফরিদাবাদের আদ্য মিশ্র, বেঙ্গালুরুর অঞ্জনা পদ্মনাভন, কানপুরের বৈভব গুপ্তা, রাজস্থানের পীযুশ পানওয়ার।

অবশেষে শুভদীপ দাস চৌধুরীকে হারিয়ে ট্রফি জিতে নেন বৈভব। ট্রফি ও ২৫ লাখ রুপির চেক ছাড়াও একটি মারুতি সুজুকি ব্রেজা গাড়ি উপহার পেয়েছেন বৈভব।

এবারের আসরে প্রথম ও দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন যথাক্রমে শুভদীপ দাস চৌধুরী ও পিয়ুশ পানওয়ার। তারা দুজনেই পেয়েছেন ৫ লাখ রুপি করে। তৃতীয় রানার আপ হয়ে তিন লাখ রুপি পেয়েছেন অনন্যা পাল।

বৈভব জানান, শো-এর ট্রফি জেতা তাঁর কাছে স্বপ্নের চেয়ে কম নয়। এমন দিনে প্রয়াত মাকে মনে করেন তিনি। বৈভব বলেন, ‘ভবিষ্যতে সালমান খান ও রণবীর সিংয়ের জন্য প্লেব্যাক করতে চাই। এত দূর আসতে পারব ভাবিনি। তবে যখন এসেছি একদিন আমার সেই স্বপ্নও পূরণ হবে বলে আশা রাখি।’

গ্র্যান্ড ফিনালের এই আসরে বিচারকের আসনে ছিলেন কণ্ঠশিল্পী শ্রেয়া ঘোষাল, বিশাল দাদলানি ও কুমার শানু। ফাইনালের শুরুতেই শ্রেয়া ঘোষণা দেন ৩ ঘণ্টায় থাকবে ৩টি চ্যালেঞ্জ। আর এই ৩ চ্যালেঞ্জের শেষেই বেছে নেওয়া হবে এবারের বিজেতা।

জানা যায়, এবারের ইন্ডিয়ান আইডলে প্রথম রাউন্ড ছিল ‘হিট লিস্ট চ্যালেঞ্জ’। যেখানে বেঙ্গালুরুর মেয়ে অঞ্জনা পদ্মনাভন গেয়েছেন ‘ঝুম ঝুম ঝুম বাবা’। শুভদীপ দাস চৌধুরী গেয়েছিলেন ‘মিতওয়া’। আর অনন্যা পালের কণ্ঠে শোনা যায় ‘মণিকা ও মাই ডার্লিং’। আদ্যা ও অনন্যা এই রাউন্ডে ছিলেন সবার শেষে। তবে বাদ পড়েন আদ্যা, ভাগ্য খোলে অনন্যারই।

এরপরের রাউন্ড ছিল ‘সিম্ফোনি চ্যালেঞ্জ’। এই রাউন্ডে ৫ ফাইনালিস্টই অসাধারণ পারফর্ম করেন। তবে বাদ পড়েন অঞ্জনা।