ঢাকা ০৯:২৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দাঁড়িয়ে থেকে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন স্বামী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:০৬:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৬৮ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

এ যেন বলিউডের সিনেমার গল্প। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন এক স্বামী। ঘটনাটি গত শনিবারের, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম এলাকার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বীরভূমের মল্লারপুরে ছোটবেলার প্রেমিক কৃষ্ণেন্দু মণ্ডলকে বিয়ে করেন নাড়ুগোপাল মণ্ডলের সাবেক স্ত্রী স্মৃতি। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কৃষ্ণেন্দুর সঙ্গে স্মৃতির বিয়ে দেন নাড়ুগোপাল।

নাড়ুগোপাল মণ্ডলের সঙ্গে পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল স্মৃতির। তাঁদের তিন বছরের একটি সন্তান আছে। কয়েক দিন আগে পুরোনো শ্বশুর বাড়ির সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করে প্রেমিকের কাছে চলে যান স্মৃতি। থানায় নিখোঁজের মামলাও করেন স্বামী। চারদিন পর স্মৃতি জানান, তিনি আর স্বামীর সঙ্গে থাকতে চান না।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চম শ্রেণি থেকে সহপাঠী কৃষ্ণেন্দুর সঙ্গে স্মৃতির প্রেম। কিন্তু পরিবারের চাপে তাঁদের চারহাত এক হয়নি। স্মৃতির বিয়ের পরও দুজনের মধ্যে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ ছিল। এর আগেও একবার বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন স্মৃতি। সেবার বুঝিয়ে বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়। এবার আর তিনি কিছুতেই ফিরতে রাজি নয়। অবশেষে প্রেমিকের কাছেই তাঁকে ফিরিয়ে দিলেন স্বামী নাড়ুগোপাল।

নাড়ুগোপাল বলেন, ‘আমার জীবনে যত কষ্টই আসুক, প্রেম সত্য হোক। আমাদের ছেলে আমার কাছে থাকবে। আমরা দুজনে স্বেচ্ছায় বিচ্ছেদপত্র লিখে নিয়েছি।’ স্মৃতি বলেন, ‘আমি বাকি জীবন প্রেমিকের সঙ্গে থাকতে চাই। আমিই স্বামীর কাছে বিচ্ছেদপত্র চেয়ে নিলাম।’

প্রেমিকা স্মৃতিকে মল্লেশ্বরের কালীতলায় সাবেক স্বামীর সামনেই সিঁদুর পড়িয়ে দেন প্রেমিক কৃষ্ণেন্দু। তিনি জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমারা দুজন দুজনকে ভালোবাসি। ওর সঙ্গে সারাজীবন কাটাতে চায়। আমি ওঁর স্বামীর কাছে কৃতজ্ঞ।’

নিউজটি শেয়ার করুন

দাঁড়িয়ে থেকে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন স্বামী

আপডেট সময় : ০২:০৬:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

এ যেন বলিউডের সিনেমার গল্প। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন এক স্বামী। ঘটনাটি গত শনিবারের, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম এলাকার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বীরভূমের মল্লারপুরে ছোটবেলার প্রেমিক কৃষ্ণেন্দু মণ্ডলকে বিয়ে করেন নাড়ুগোপাল মণ্ডলের সাবেক স্ত্রী স্মৃতি। নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কৃষ্ণেন্দুর সঙ্গে স্মৃতির বিয়ে দেন নাড়ুগোপাল।

নাড়ুগোপাল মণ্ডলের সঙ্গে পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল স্মৃতির। তাঁদের তিন বছরের একটি সন্তান আছে। কয়েক দিন আগে পুরোনো শ্বশুর বাড়ির সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করে প্রেমিকের কাছে চলে যান স্মৃতি। থানায় নিখোঁজের মামলাও করেন স্বামী। চারদিন পর স্মৃতি জানান, তিনি আর স্বামীর সঙ্গে থাকতে চান না।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চম শ্রেণি থেকে সহপাঠী কৃষ্ণেন্দুর সঙ্গে স্মৃতির প্রেম। কিন্তু পরিবারের চাপে তাঁদের চারহাত এক হয়নি। স্মৃতির বিয়ের পরও দুজনের মধ্যে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ ছিল। এর আগেও একবার বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন স্মৃতি। সেবার বুঝিয়ে বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়। এবার আর তিনি কিছুতেই ফিরতে রাজি নয়। অবশেষে প্রেমিকের কাছেই তাঁকে ফিরিয়ে দিলেন স্বামী নাড়ুগোপাল।

নাড়ুগোপাল বলেন, ‘আমার জীবনে যত কষ্টই আসুক, প্রেম সত্য হোক। আমাদের ছেলে আমার কাছে থাকবে। আমরা দুজনে স্বেচ্ছায় বিচ্ছেদপত্র লিখে নিয়েছি।’ স্মৃতি বলেন, ‘আমি বাকি জীবন প্রেমিকের সঙ্গে থাকতে চাই। আমিই স্বামীর কাছে বিচ্ছেদপত্র চেয়ে নিলাম।’

প্রেমিকা স্মৃতিকে মল্লেশ্বরের কালীতলায় সাবেক স্বামীর সামনেই সিঁদুর পড়িয়ে দেন প্রেমিক কৃষ্ণেন্দু। তিনি জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে আমারা দুজন দুজনকে ভালোবাসি। ওর সঙ্গে সারাজীবন কাটাতে চায়। আমি ওঁর স্বামীর কাছে কৃতজ্ঞ।’