ঢাকা ১০:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুপারিশ বিআরটিএর

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:০৭:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৩৫২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জ্বালানি তেলের দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)। এরসঙ্গে একমত পোষণ করেছেন পরিবহন মালিকরাও।

সোমবার (১ এপ্রিল) বনানীর বিআরটিএর সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এটি আজই মন্ত্রণালয়ে পাঠাবে বিআরটিএ।

এতে করে দূরপাল্লায় কিলোমিটার প্রতি ২ টাকা ১৫ থেকে কমিয়ে ২ টাকা ১২ পয়সা; ঢাকা-চট্টগ্রাম মহানগরী এলাকায় ২ টাকা ৪৫ টাকা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ৪২ টাকা করার প্রস্তাব করা হয় হয়েছে।

সভার শুরুতে বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস জ্বালানি তেলের মূল্য ছাড়াও পরিবহন খাতের অন্যান্য যন্ত্রণাংশের আজকের বাজার মূল্য তুলে ধরেন। পরে কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির ভূইয়া ৫ পয়সা কমানোর দাবি করেন। কিন্তু বাস মালিকরা শুরুতে ভাড়া না কমানোর দাবি জানান। পরে আড়াই পয়সা কমাতে রাজি হয় মালিকরা। সেটিকে রাউন্ড ফিগার করে ৩ পয়সা করে বিআরটিএ।

নিউজটি শেয়ার করুন

বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুপারিশ বিআরটিএর

আপডেট সময় : ০৪:০৭:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

জ্বালানি তেলের দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)। এরসঙ্গে একমত পোষণ করেছেন পরিবহন মালিকরাও।

সোমবার (১ এপ্রিল) বনানীর বিআরটিএর সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এটি আজই মন্ত্রণালয়ে পাঠাবে বিআরটিএ।

এতে করে দূরপাল্লায় কিলোমিটার প্রতি ২ টাকা ১৫ থেকে কমিয়ে ২ টাকা ১২ পয়সা; ঢাকা-চট্টগ্রাম মহানগরী এলাকায় ২ টাকা ৪৫ টাকা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ৪২ টাকা করার প্রস্তাব করা হয় হয়েছে।

সভার শুরুতে বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস জ্বালানি তেলের মূল্য ছাড়াও পরিবহন খাতের অন্যান্য যন্ত্রণাংশের আজকের বাজার মূল্য তুলে ধরেন। পরে কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির ভূইয়া ৫ পয়সা কমানোর দাবি করেন। কিন্তু বাস মালিকরা শুরুতে ভাড়া না কমানোর দাবি জানান। পরে আড়াই পয়সা কমাতে রাজি হয় মালিকরা। সেটিকে রাউন্ড ফিগার করে ৩ পয়সা করে বিআরটিএ।