ঢাকা ১০:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিশ্বরেকর্ড গড়ে জিততে হবে বাংলাদেশকে

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৪৮:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৩৫২ বার পড়া হয়েছে
৭১ নিউজ বিডির সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট জয়ের জন্য বাংলাদেশকে ৫১১ রানের বিশাল টার্গেট দিয়েছে সফরকারী শ্রীলংকা। প্রথম ইনিংসে পাওয়া ৩৫৩ রানের লিডকে সাথে নিয়ে ৭ উইকেটে ১৫৭ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষনা করে শ্রীলংকা।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিন শেষে ৬ উইকেটে ১০২ রান সংগ্রহ ছিলো শ্রীলংকার। আজ, চতুর্থ দিন ১ উইকেট হারিয়ে ৫৫ রান যোগ করে ইনিংস ঘোষনা করে শ্রীলংকা।

চট্টগ্রামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের চতুর্থ দিনে এক সেশনও ব্যাট করেনি লঙ্কানরা। তার আগেই অধিনায়ক ব্যাটারদের দিয়েছেন মাঠ ছেড়ে আসার সংকেত দিলেন। ততক্ষণে অবশ্য সফরকারীদের লিড গিয়ে ঠেকেছে ৫১০ রানে। বাংলাদেশের সামনে এখন টার্গেট ৫১১।

জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে ইতিহাসই গড়তে হবে টাইগারদের। টেস্ট ইতিহাসে রান তাড়ার রেকর্ড ৪১৮ রানের। বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের হিসেবে যা অসম্ভব কল্পনাই বলা যায়। চলতি সিরিজে এখন পর্যন্ত ২০০ রান করতে না পারা বাংলাদেশের জন্য তাই বড় এক পরীক্ষা অপেক্ষা করছে চট্টগ্রামের মাঠে। এর আগে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানতাড়ার রেকর্ড ২১৫ রানের। সেটাও এসেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

গেল বিশ্বকাপ থেকেই বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যে শুরু হয়েছে এক দ্বৈরথ। যেখানে মূল নায়ক হিসেবে রয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। হেলমেট কান্ডে টাইমড আউট হওয়ার পর থেকেই শুরু হয়েছে স্নায়ুযুদ্ধ। আজ সকালে বাংলাদেশের একমাত্র সাফল্যটাও এসেছে এদেরই সূত্রে।

ফিফটি পার করা ম্যাথিউসের স্ট্যাম্প উপড়ে দিলেন সাকিব। তবে ততক্ষণে ম্যাথিউস দলের স্কোর বেশ অনেকটা দূর নিয়ে গিয়েছেন। এরপর প্রভাত জয়সুরিয়া কিছুটা বড় শট খেলার চেষ্টা করেছেন। দলের লিড ছাড়িয়েছে ৫০০ রান।

এর আগে ৩৫৩ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে শ্রীলঙ্কা। মূলত বোলারদের বিশ্রাম দিতেই বাংলাদেশকে ফলো-অনে পাঠাননি লঙ্কান অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। তাতে অবশ্য খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি দলটি। শেষ বিকেলে বাংলাদেশি পেসার হাসান মাহমুদ একাই নিয়েছেন ৪ উইকেট। চট্টগ্রামে টাইগারদের সুখস্মৃতি হয়ে থাকলো, কেবল এই স্পেলটাই।

এর আগে চট্টগ্রামে শুরু থেকেই দাপট দেখিয়েছে শ্রীলঙ্কা। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ফ্ল্যাট পিচের পুরো সুবিধা আদায় করেছে সরকারী দলটি।প্রথম ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ছিল ৫৩১ রানের। জবাবে নিজেদের ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ দল অলআউট হয়েছে ১৭৮ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৫৭ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দিয়েছে সফরকারীরা। প্রথম ইনিংসের ৩৫৩ রানের লিডসহ বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে ৫১১ রানের।

নিউজটি শেয়ার করুন

বিশ্বরেকর্ড গড়ে জিততে হবে বাংলাদেশকে

আপডেট সময় : ০১:৪৮:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট জয়ের জন্য বাংলাদেশকে ৫১১ রানের বিশাল টার্গেট দিয়েছে সফরকারী শ্রীলংকা। প্রথম ইনিংসে পাওয়া ৩৫৩ রানের লিডকে সাথে নিয়ে ৭ উইকেটে ১৫৭ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষনা করে শ্রীলংকা।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিন শেষে ৬ উইকেটে ১০২ রান সংগ্রহ ছিলো শ্রীলংকার। আজ, চতুর্থ দিন ১ উইকেট হারিয়ে ৫৫ রান যোগ করে ইনিংস ঘোষনা করে শ্রীলংকা।

চট্টগ্রামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের চতুর্থ দিনে এক সেশনও ব্যাট করেনি লঙ্কানরা। তার আগেই অধিনায়ক ব্যাটারদের দিয়েছেন মাঠ ছেড়ে আসার সংকেত দিলেন। ততক্ষণে অবশ্য সফরকারীদের লিড গিয়ে ঠেকেছে ৫১০ রানে। বাংলাদেশের সামনে এখন টার্গেট ৫১১।

জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে ইতিহাসই গড়তে হবে টাইগারদের। টেস্ট ইতিহাসে রান তাড়ার রেকর্ড ৪১৮ রানের। বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের হিসেবে যা অসম্ভব কল্পনাই বলা যায়। চলতি সিরিজে এখন পর্যন্ত ২০০ রান করতে না পারা বাংলাদেশের জন্য তাই বড় এক পরীক্ষা অপেক্ষা করছে চট্টগ্রামের মাঠে। এর আগে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানতাড়ার রেকর্ড ২১৫ রানের। সেটাও এসেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

গেল বিশ্বকাপ থেকেই বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যে শুরু হয়েছে এক দ্বৈরথ। যেখানে মূল নায়ক হিসেবে রয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। হেলমেট কান্ডে টাইমড আউট হওয়ার পর থেকেই শুরু হয়েছে স্নায়ুযুদ্ধ। আজ সকালে বাংলাদেশের একমাত্র সাফল্যটাও এসেছে এদেরই সূত্রে।

ফিফটি পার করা ম্যাথিউসের স্ট্যাম্প উপড়ে দিলেন সাকিব। তবে ততক্ষণে ম্যাথিউস দলের স্কোর বেশ অনেকটা দূর নিয়ে গিয়েছেন। এরপর প্রভাত জয়সুরিয়া কিছুটা বড় শট খেলার চেষ্টা করেছেন। দলের লিড ছাড়িয়েছে ৫০০ রান।

এর আগে ৩৫৩ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে শ্রীলঙ্কা। মূলত বোলারদের বিশ্রাম দিতেই বাংলাদেশকে ফলো-অনে পাঠাননি লঙ্কান অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। তাতে অবশ্য খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি দলটি। শেষ বিকেলে বাংলাদেশি পেসার হাসান মাহমুদ একাই নিয়েছেন ৪ উইকেট। চট্টগ্রামে টাইগারদের সুখস্মৃতি হয়ে থাকলো, কেবল এই স্পেলটাই।

এর আগে চট্টগ্রামে শুরু থেকেই দাপট দেখিয়েছে শ্রীলঙ্কা। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ফ্ল্যাট পিচের পুরো সুবিধা আদায় করেছে সরকারী দলটি।প্রথম ইনিংসে তাদের সংগ্রহ ছিল ৫৩১ রানের। জবাবে নিজেদের ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ দল অলআউট হয়েছে ১৭৮ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৫৭ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দিয়েছে সফরকারীরা। প্রথম ইনিংসের ৩৫৩ রানের লিডসহ বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে ৫১১ রানের।