০৪:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রাজিলকে আটকে দিলো কোস্টারিকা

কোপা আমেরিকায় নিজেদের প্রথম ম্যাচটা সুখকর হলো না ব্রাজিলের জন্য। মঙ্গলবার (২৫ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের সোফাই স্টেডিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে সেলেসাওরা। পুরো ম্যাচে ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখলেও মাত্র মাত্র তিনটি শট অন-টার্গেটে রাখতে পেরেছে দরিভাল জুনিয়রের দল।

একের পর এক গোল মিসে হতাশ করেছেন ব্রাজিলের তারকায় ঠাসা দলটি। এক গোল বাতিলের পর দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক মিস করে কেবল হতাশাই বাড়িয়েছেন দোরিভাল জুনিয়র শিষ্যরা। লুকাস পাকেতা, রদ্রিগো, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রাফিনহাদের নিয়ে আক্রমণভাগ সাজিয়েছিলেন কোচ দোরিভাল জুনিয়র। বদলি হিসেবে নেমেছিলেন এন্ড্রিক ফিলিপে। শেষ দিকে গোলের আশায় গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লিকেও নামানো হয়েছিল। কিন্তু হতাশাটাই শেষ পর্যন্ত সঙ্গী হয়েছে তাদের।

ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে ব্রাজিলিয়ানরা। তবে ভাঙা যায়নি কোস্টারিকার রক্ষণ। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে অবশ্য গোল পেয়েছিল সেলেসাওরা। রাফিনিয়ার ফ্রি কিক থেকে রদ্রিগোর কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন মার্কুইনহোস। তবে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিতে (ভিএআর) বাতিল হয় গোলটি। কারণ রাফিনিয়া যখন ফ্রি কিক নিচ্ছিলেন, তখন অফসাইডে ছিলেন রদ্রিগো।

ব্রাজিলকে আটকে দিলো কোস্টারিকা

আপডেট : ০১:৪৬:৩৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

কোপা আমেরিকায় নিজেদের প্রথম ম্যাচটা সুখকর হলো না ব্রাজিলের জন্য। মঙ্গলবার (২৫ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের সোফাই স্টেডিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে সেলেসাওরা। পুরো ম্যাচে ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখলেও মাত্র মাত্র তিনটি শট অন-টার্গেটে রাখতে পেরেছে দরিভাল জুনিয়রের দল।

একের পর এক গোল মিসে হতাশ করেছেন ব্রাজিলের তারকায় ঠাসা দলটি। এক গোল বাতিলের পর দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক মিস করে কেবল হতাশাই বাড়িয়েছেন দোরিভাল জুনিয়র শিষ্যরা। লুকাস পাকেতা, রদ্রিগো, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রাফিনহাদের নিয়ে আক্রমণভাগ সাজিয়েছিলেন কোচ দোরিভাল জুনিয়র। বদলি হিসেবে নেমেছিলেন এন্ড্রিক ফিলিপে। শেষ দিকে গোলের আশায় গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লিকেও নামানো হয়েছিল। কিন্তু হতাশাটাই শেষ পর্যন্ত সঙ্গী হয়েছে তাদের।

ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে ব্রাজিলিয়ানরা। তবে ভাঙা যায়নি কোস্টারিকার রক্ষণ। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে অবশ্য গোল পেয়েছিল সেলেসাওরা। রাফিনিয়ার ফ্রি কিক থেকে রদ্রিগোর কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন মার্কুইনহোস। তবে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিতে (ভিএআর) বাতিল হয় গোলটি। কারণ রাফিনিয়া যখন ফ্রি কিক নিচ্ছিলেন, তখন অফসাইডে ছিলেন রদ্রিগো।